Back

ⓘ বিষয়শ্রেণী:পরিমাপ




                                               

কিলোগ্রাম

কিলোগ্রাম মেট্রিক পদ্ধতিতে ভর পরিমাপের একক। এটি আনুষ্ঠানিকভাবে আন্তর্জাতিক একক পদ্ধতিভর পরিমাপের মান একক হিসাবে গৃহীত হয়েছে যার এককের প্রতীক kg। এটি বিশ্বজুড়ে বিজ্ঞান, প্রকৌশল ও বাণিজ্যে বহুল ব্যবহৃত ভরের একক। কিলোগ্রামকে প্রত্যহিক জীবনে প্রায়শই শুধু কিলো হিসাবেও উল্লেখ করা হয়। আদিতে, ১৭৯৫ সালে, একক কিলোগ্রামকে এক লিটার বিশুদ্ধ পানিভর দ্বারা সংজ্ঞায়িত করা হয়েছিল। এটি কিলোগ্রামের সরল সংজ্ঞা হলেও ব্যাবহারিক ক্ষেত্রে প্রয়োগ অসুবিধাজনক। কিলোগ্রাম এককের সর্বশেষ সংজ্ঞাতেও এর নির্ভুলতা ৩০ পিপিএম। ১৭৯৯ সালে প্লাটিনামের কিলোগ্রাম দেস আর্কাইভেভর দ্বারা ভরের প্রমিত সংজ্ঞা প্রতিস্থাপন করা হয়। ...

                                               

ন্যানোমিটার

ন্যানোমিটার হলো মেট্রিক পদ্ধতিতে দৈর্ঘ্যের একটি একক, যা হলো এক মিটারের একশো কোটি ভাগের এক ভাগের সমান বা এক মিলিমিটারের এক মিলিয়ন ভাগের এক ভাগ। ন্যানোমিটার শব্দটি এসেছে গ্রিক νάνος এবং μέτρον শব্দদুটি যোগ করে। সাধারণত অতি ক্ষুদ্র দৈর্ঘ্য পরিমাপের জন্য ন্যানোমিটার ব্যবহার করা হয়। ন্যানো প্রযুক্তি এবং আলো বা অন্য তরঙ্গের তরঙ্গদৈর্ঘ্য পরিমাপের ক্ষেত্রে ন্যানোমিটার বহুল ব্যবহৃত একক। ন্যানোমিটারকে মিলিমাইক্রন প্রতীক mµ দ্বারা প্রকাশ করা হয়। µµ প্রতীকও ব্যবহার হয়. ন্যানোমিটার হলো অর্ধপরিবাহী সেমি কন্ডাক্টর উৎপাদন শিল্পে সর্ববহুল ব্যবহৃত একক। এটি আলোর তরঙ্গদৈর্ঘ্য প্রকাশের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত ...

                                               

পরিবেশগত ত্রুটি

পরিবেশগত ত্রুটি হলো পরিবেশের কারণে পরিমাপ বা গণনায় যে ত্রুটি বা ভুল অন্তর্ভুক্ত হয়। মহাবিশ্বের যেকোনো পরীক্ষণ সম্পন্ন করার সময় আশেপাশে পরিবেশ বিবেচনায় আনতে হয়, যাকে কোনো সিস্টেম বা ব্যবস্থা থেকে অপসারণ করা সম্ভব নয়। পরিবেশগত প্রভাবের পর্যবেক্ষণ দ্বারা এটা জানা সম্ভব হয় যে, পরিবেশ পরীক্ষণের ওপর প্রভাব ফেলে পর্যবেক্ষণের মান শুধু হ্রাসই না, বরং বৃদ্ধিও করতে পারে।

                                               

পরিমাপ

আমাদের দৈনন্দিন জীবনে প্রায় প্রতিটি কাজের সাথেই মাপ-জোখের ব্যাপারটি জড়িত। এছাড়া বিভিন্ন গবেষণার ক্ষেত্রে সূক্ষ্ম মাপ-জোখের প্রয়োজন হয়। পদার্থবিজ্ঞানের প্রায় সকল পরীক্ষণেই পদার্থের পরিমাণ, বলের মান, অতিবাহিত সময়, শক্তির পরিমাণ ইত্যাদি জানতে হয়। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে এ মাপ-জোখের বিষয়টাকে বলা হয় পরিমাপ। সুতরাং, কোন কিছুর পরিমাণ নির্ণয় করাকে পরিমাপ বলা হয়।

                                               

পরিমাপের ইতিহাস

ওজন ও পরিমাপ ব্যবস্থার প্রাচীনতম নথিবদ্ধ নিদর্শনের উৎপত্তি খ্রিস্টপূর্ব ৩য় বা ৪র্থ শতাব্দিতে। এমনকি সবচেয়ে আদিম সভ্যতাগুলোতেও কৃষি, নির্মাণ এবং বাণিজ্যের নিমিত্তে পরিমাপ ব্যবস্থার প্রয়োজন ছিল। শুরুর দিকের আদর্শ এককসমূহ কেবলমাত্র একটি সম্প্রদায় বা ক্ষুদ্র কোন এলাকাজুড়ে প্রচলিত ছিল; প্রতিটি অঞ্চলই দৈর্ঘ্য, ক্ষেত্রফল, আয়তন এবং ভর পরিমাপের জন্য নিজস্ব মাপকাঠি তৈরি করে নিয়েছিল। প্রায়শই এসব একক নির্দিষ্ট কোন একটি ক্ষেত্রের সাথে নিবিড়ভাবে সংশ্লিষ্ট ছিল, যেমন– শুষ্ক শস্যের আয়তনের পরিমাপ আর তরল পদার্থের আয়তনের পরিমাপের মধ্যে কোন সম্পর্ক ছিল না, আবার এদের কোনটার সাথেই কাপড় বা জমির দৈর্ঘ্ ...

                                               

পরিমাপের একক

যে আদর্শ পরিমাপের সাথে তুলনা করে ভৌত রাশিকে পরিমাপ করা হয় তাকে, পরিমাপের একক বলা হয়। কোন ভৌত রাশি পরিমাপের জন্য দুইটি জিনিসের প্রয়োজন হয়। একটি হল রাশিটির মান এবং অন্যটি একক। পরিমাপের একক মানব সভ্যতার ইতিহাসে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে। কারণ মানুষ প্রথমত এই এককগুলোর মাধ্যমেই পরিমাপ ব্যবস্থার সৃষ্টি করেছিল এবং এর প্রয়োজনেই সৃষ্টি হয়েছিল গণিতের, আর গণিতের মাধ্যমেই বিজ্ঞানের ভিত্তি স্থাপিত হয়েছে।

                                     

ⓘ পরিমাপ

  • উচ চত র পর ম প ম ট র গণ ড র পর ম প ম ট র এব মস তক র উচ চত র পর ম প ম ট র মন দ র র কপ টবন ধক একট আল ক র ক ন দর শন এদ র পর ম প হল
  • থ ক মন দ র প র ব সম ম খ ন হয এট ম ট র উচ চত সহ বর গ ম ট র পর ম প একট ন ম ন এব বর গক ষ ত র ভ ত র উপর দ ড য ছ পর কল পন ট ত দ বসভ
  • thermo ম ন ত প এব meter ম ন পর ম প কর হল ত পম ত র পর ম পক যন ত র, য ব ভ ন ন ম লন ত ব যবহ র কর ত পম ত র পর ম প কর থ ক থ র ম ম ট রক দ ট প রধ ন
  • ক ল ম ট র, চ হ ন ক ম দশম ক পদ ধত ত আন তর জ ত ক পদ ধত ত সমতল র আয তন র একট পর ম প আন তর জ ত ক পর ম প র ম ন ম ট র র ব হত তর ম ন হ স ব বর গ ক ল ম ট রক ধর
  • উভয ই বর তম ন ব শ ব র সর বত রই প রচল ত আছ একর স ধ রণত ভ - ভ গ জম র পর ম প ন র ণয ব যবহ র কর হয একর বর গগজ ব বর গফ ট ব প র য
  • আল র পর ম প কর র জন য প থ ব র কক ষপথ এব ব য মণ ডল র ব চ য ত হ স ব আনত হয র দ র ত ব রত Eext বছর র dn তম দ ন ন চ র স ত র ন স র পর ম প কর
  • স জ ঞ য ত কর হয স ল ম ট র - ক প রথম স জ ঞ য ত কর হয য র পর ম প কর প থ ব র উত তর ম র থ ক ফ র ন স র র জধ ন প য র স র দ র ঘ ম র খ বর বর
  • ব দ র ব যবস থ ম ট র ন চ র অ শ পল গ উচ চত ম ট র পর ম প কর ঝ ঝ ম ট র পর ম প কর ব ধ ছ চন র ম ণ র একট স ট দ ব র ত ল জঙ গ ও ঊর ধ ব ঙ গ য
  • দ ট রশ ম অঙ কন কর হয তব রশ ম দ বয র মধ যবর ত ফ কট য র শ দ য পর ম প কর হয ত ক জ য ম ত ক ক ণ বল আর একট সরলর খ ক স থ র র খ আর কট সরলর খ র
                                               

আন্তর্জাতিক রাশি ব্যবস্থা

যে সব রাশি অন্য কোন রাশির উপর নির্ভরশীল নয়, বরং অন্য সকল রাশি এদের উপর নির্ভরশীল, সেসব রাশিকে মৌলিক রাশি বলে। এ পর্যন্ত সাতটি রাশিকে বিজ্ঞানীদের সর্বসম্মতিতে মৌলিক রাশি হিসেবে নির্দিষ্ট করা হয়েছে। এগুলো হলঃ ভর, দৈর্ঘ্য, সময়, তাপমাত্রা, তড়িৎ প্রবাহ, দীপন তীব্রতা ও পদার্থের পরিমাণ। ১৯৬০ সালে অনুষ্ঠিত বিজ্ঞানীদের যৌথ সম্মেলনে এ সাতটি রাশিকে মৌলিক রাশি হিসেবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।

                                               

ভৌত ধ্রুবক

1 The values are given in the so-called concise form ; the number in brackets is the standard uncertainty, which is the value multiplied by the relative standard uncertainty. 2 This is the value adopted internationally for realizing representations of the volt using the Josephson effect. 3 This is the value adopted internationally for realizing representations of the ohm using the quantum Hall effect.

Users also searched:

গ্যাস পরিমাপের একক, পরিমাপের প্রয়োজনীয়তা ব্যাখ্যা কর, পরিমাপ ও একক, পরিমাপের স্কেল,

...
...
...