Back

ⓘ মালয়েশীয় সেনাবাহিনী




মালয়েশীয় সেনাবাহিনী
                                     

ⓘ মালয়েশীয় সেনাবাহিনী

মালয়েশীয় সেনাবাহিনী হচ্ছে মালয়েশীয় সশস্ত্র বাহিনীর স্থল শাখা। মালয়শিয়া ১৯৫৭ সালে স্বাধীনতা লাভ করলেও দেশটির মূল সেনাবাহিনী গঠিত হয়েছিলো ১৯৬৭ সালে।

                                     

1. ইতিহাস

মালয়শিয়া ১৯৫৭ সাল পর্যন্ত ব্রিটিশদের শাসনাধীন ছিলো এবং তখন মালয়শিয়ার মধ্যে আজকের সিঙ্গাপুরও অন্তর্ভুক্ত ছিলো। মালয় ভূখণ্ডে আগে ব্রিটিশ ভারতীয় সেনাবাহিনী কাজ করতো যারা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে স্থানীয় মালয়দেরকে নিয়ে একটি মাত্র পদাতিক ব্যাটেলিয়ন গঠন করেছিলো, বিশ্বযুদ্ধ শেষ হওয়া পর্যন্ত অর্থাৎ ১৯৪৫ সাল পর্যন্ত মাত্র সাতটি ব্যাটেলিয়ন মালয় তরুণদেরকে নিয়ে গঠিত হয়েছিলো। মালয় তরুণদেরকে কমিশন প্রদানের ব্যবস্থা ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ করে যায়নি। ১৯৪৮ সালে ফেডারেশন অব মালয় গঠিত হলে মালয়শীয় সেনাবাহিনী গঠনের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়। ১৯৬৫ সালে আবার সিঙ্গাপুর মালয়শিয়া থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীন দেশ হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে, ১৯৬৫ সালের আগে মালয়শিয়ার সেনাবাহিনী বানানোর কোনো সঠিক পরিকল্পনা ছিলোনা, মালয়শিয়া সেনাবাহিনী ১৯৬৭ সালে আত্মপ্রকাশ করে মাত্র ২০০০ সদস্য নিয়ে কোনো নিজস্ব কর্মকর্তা ছাড়াই।

১৯৭০-এর দশকে ব্যাপক পুনর্গঠনের মধ্য দিয়ে যায় মালয়শিয়ার অর্থনীতি এবং সামরিক বাহিনী এবং মাহাথির বিন মোহাম্মদের সরকার ১৯৮১ সালে ক্ষমতায় আরোহণ করে মালয়শিয়া সামরিক বাহিনীর সদস্য ৩০,০০০-এ উন্নীত করেন আশির দশকের মাঝামাঝি, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে অনেক সামরিক সরঞ্জাম কেনে তার সরকার এবং সাধারণ সৈনিক এবং সেনা কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণকেন্দ্র, পোশাক, সামরিক অভ্যন্তরীণ গঠনপ্রণালী সবই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সেনাবাহিনীর আদলে গঠিত হয়ে যায়, সেনাবাহিনীতে নারীদের অন্তর্ভুক্তি মাহাথিরের সরকারই করেন, তবে নারী সেনা সদস্যদের সৈনিক এবং কর্মকর্তা সকলেরই সামরিক পোশাকের সঙ্গে মাথায় কালো রঙের হিজাব পরা বাধ্যতামূলক যেটা সামরিক বাহিনীর নিজস্ব।

সেনা সদস্যদের পদবী ১৯৯০-এর দশকে ইংরেজি ভাষা থেকে পূর্ণ মালয় ভাষায় রূপান্তরিত করে দেয় সরকার। ২০১৯ সালের সরকারী হিসেব অনুযায়ী মালয়শিয়ার মোট সেনা সদস্য প্রায় ৮০,০০০-এর কাছাকাছি ছিলো।