Back

ⓘ পানামা খাল সম্প্রসারণ প্রকল্প




পানামা খাল সম্প্রসারণ প্রকল্প
                                     

ⓘ পানামা খাল সম্প্রসারণ প্রকল্প

পানামা খাল সম্প্রসারণ প্রকল্প বিপুল সংখ্যক জাহাজের জন্য জাহাজ চলাচলের একটি নতুন গলি যুক্ত করা এবং লেন ও লকগুলির প্রশস্ততা ও গভীরতা বৃদ্ধি করা এবং বৃহত্তর জাহাজগুলি চলাচলের অনুমতি দেওয়া দ্বারা পানামা খালের সক্ষমতা দ্বিগুণ করে। নতুন পানাম্যাক্স নামে পরিচিত নতুন জাহাজগুলি পূর্বের পানাম্যাক্স আকারের প্রায় দেড়গুণ বেশি এবং দ্বিগুণ পণ্যসম্ভার বহন করতে পারে। প্রসারিত খালটি ২৬ জুন ২০১৬ সাল থেকে বাণিজ্যিক কার্যক্রম শুরু করে।

প্রকল্পটি হল:

  • আটলান্টিক এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে দুটি করে নতুন লক তৈরি করা হয় এবং নতুন লকের জন্য নতুন চ্যানেল খনন করা হয়।
  • বিদ্যমান চ্যানেলগুলি প্রশস্ত ও গভীর করা।
  • গাতুন হ্রদের সর্বাধিক অপারেটিং জলের স্তর বৃদ্ধি করা হয়।

তদানীন্তন পানামার রাষ্ট্রপতি মার্টন টোরিজোস ২৪ এপ্রিল ২০০৬ সালে এই প্রকল্পটির আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব করেন, এই বলে যে এটি পানামাকে প্রথম বিশ্বের দেশে রূপান্তরিত করবে। একটি জাতীয় গণভোটে প্রস্তাবটি ২২ অক্টোবরে ৭৬.৮ শতাংশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার দ্বারা অনুমোদিত হয় এবং মন্ত্রিপরিষদ ও জাতীয় সংসদ তা অনুসরণ করে। প্রকল্পটি আনুষ্ঠানিকভাবে ২০০৭ সালে শুরু হয়। পানামার খাল খোলার ১০০তম বার্ষিকী উপলক্ষ্যে আগস্ট ২০১৪ সালের মধ্যে খাল সম্প্রসারণের কাজ শেষ কারার ঘোষণা করা হয়, তবে ব্যয় ছাড়িয়ে যাওয়ার কারণে নির্মাণ সংস্থার সাথে ধর্মঘট ও বিরোধসহ বিভিন্ন বিপর্যয় সমাপ্তির তারিখটিকে বেশ কয়েকবার পিছিয়ে দেয়। নতুন লকগুলি থেকে সিপেজসহ অতিরিক্ত সমস্যার পরে, সম্প্রসারণটি ২৬ জুন ২০১৬ সালে খোলা হয়। সম্প্রসারণটি খালের ক্ষমতা দ্বিগুণ করে। ২ রা মার্চ, ২০১৮ সালে পানামা খাল কর্তৃপক্ষ ঘোষণা করেছে যে, সম্প্রসারিত খাল চালু হওয়ার ২০ মাসের মধ্যে ৩,০০০ টি নতুন পানাম্যাক্স জাহাজ খালটি অতিক্রম করে।

                                     

1. পটভূমি

পরিচালনার সময় ও বিদ্যমান লকগুলির চক্র দ্বারা মূল পানামা খালের সীমিত ক্ষমতা নির্ধারিত রয়েছে এবং খালের মাধ্যমে স্থানান্তরিত বৃহত্তর জাহাজের চলাচলের বর্তমান প্রবণতা দ্বারা আরও সীমাবদ্ধ, লক এবং চ্যানেলগুলিতে আরও বেশি ট্রানজিট সময় প্রয়োজন। এছাড়াও, বার্ধক্যজনিত খালের উপর পর্যায়ক্রমিক রক্ষণাবেক্ষণের জন্য এই জলপথটি বন্ধ করে দেওয়া দরকার। আন্তর্জাতিক বাণিজ্যের বিকাশের কারণে চাহিদা বাড়ছে এবং অনেক ব্যবহারকারীর একটি গ্যারান্টিযুক্ত স্তরের পরিষেবা প্রয়োজন। দক্ষতা অর্জনের পরেও পানামা খাল কর্তৃপক্ষ এসিপি অনুমান করেছে যে খালটি ২০০৯ থেকে ২০১২ সালের মধ্যে সর্বাধিক টেকসই সক্ষমতায় পৌঁছে যাবে। অত্যধিক ভিড়ের দীর্ঘমেয়াদী সমাধান হল তৃতীয় সেট লক সহ খালটির সম্প্রসারণ।

খালটি ট্রানজিট করতে পারে পানাম্যাক্স নামে পরিচিত এমন জাহাজগুলির আকার লকগুলির আকারের দ্বারা সীমাবদ্ধ, যা ১১০ ফুট ৩৩.৫৩ মিটার প্রশস্ত এবং ১,০৫০ ফুট ৩২০.০৪ মিটার লম্বা এবং ৪১.২ ফুট ১২.৫৬ মিটার গভীর। নতুন লক চেম্বারগুলি ১৮০ফুট ৫৪.৮৬ মিটার প্রশস্ত, ১,৪০০ ফুট ৪২৬.৭২ মিটার দীর্ঘ এবং ৬০ ফুট ১৮.২৯ মিটার গভীর। এই মাত্রাগুলি খাল পরিবহনে সমস্ত পণ্যবাহী জাহাজের আনুমানিক ৭৯% কে অনুমতি দেয়।

১৯৩০-এর দশক থেকে খাল-প্রশস্তকরণের সমস্ত অধ্যয়ন নির্ধারণ করে যে খালের সক্ষমতা বৃদ্ধির সর্বোত্তম উপায় ১৯১৪ টি লকের চেয়ে তৃতীয় সেট লক তৈরি করা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ১৯৩৯ সালে নতুন লকের জন্য খননকাজ শুরু করে, কিন্তু দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সূত্রপাতের কারণে ১৯৪৪ সালে এগুলি পরিত্যাগ করে। ১৯৮০-এর দশকে আবার পানামা, জাপান এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র দ্বারা গঠিত ত্রিপক্ষীয় কমিশন এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছিল। সম্প্রতি, পানামা খাল কর্তৃপক্ষের তার ২০২৫ মাস্টার প্ল্যানের জন্য বিকাশিত অধ্যয়নগুলি নিশ্চিত করে যে বৃহত্তর তৃতীয় লক সর্বাধিক উপযুক্ত, লাভজনক এবং পরিবেশগতভাবে দায়িত্বশীল বিকল্প।

                                     

2.1. প্রকল্প লক বা জলকপাট

আসল খালটিতে দুটি লেন রয়েছে, যার প্রতিটিটির নিজস্ব লক বা জল কপাট রয়েছে। সম্প্রসারণ প্রকল্পে খালের প্রতিটি প্রান্তে লক কমপ্লেক্স নির্মাণের মাধ্যমে একটি তৃতীয় গলি বা লেন যুক্ত করে। একটি লক কমপ্লেক্স বিদ্যমান মীরাফ্লোরাস লক বা জলকপাটের দক্ষিণ-পশ্চিমে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অংশে অবস্থিত। অন্যটি বিদ্যমান গাতুন লক বা জলকপাটের পূর্বদিকে অবস্থিত। এই নতুন লক কমপ্লেক্সগুলির প্রতিটিটিতেই জাহাজগুলিকে সমুদ্রের স্তর থেকে গাতুন হ্রদের স্তরে সরিয়ে নিয়ে আবার নিচের জলস্তরে নেওয়ার জন্য নকশা করা হয়।

প্রতিটি চেম্বারে লক প্রতি মোট নয়টি বেসিন এবং মোট ১৮ টি বেসিনের জন্য তিনটি পার্শ্বীয় জল-সংরক্ষণকারী বেসিন রয়েছে। মূল বা পুরাতন লকগুলির মতোই নতুন লক এবং তাদের বেসিন পাম্প ব্যবহার ছাড়াই মহাকর্ষ দ্বারা পূর্ণ হয় এবং খালি করা হয়। নতুন লকের অবস্থান ১৯৩৯ সালে আমেরিকা যুক্তরাষ্ট্র দ্বারা খনন করা অঞ্চলের উল্লেখযোগ্য অংশ ব্যবহার করে, যা দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের কারণে ১৯৪২ সালে স্থগিত হয়েছিল। নতুন লকগুলি নতুন ন্যাভিগেশনাল চ্যানেলের মাধ্যমে বিদ্যমান চ্যানেল ব্যবস্থার সাথে সংযুক্ত রয়েছে। নতুন লক চেম্বারগুলি ৪২৭ মিটার ১,৪০০.৯২ ফুট দীর্ঘ, ৫৫ মিটার ১৮০.৪৫ ফুট প্রস্থ এবং ১৮.৩ মিটার ৬০.০৪ ফুট গভীর। লকগুলি মেটার গেটের পরিবর্তে রোলিং গেটগুলি ব্যবহার করে, যা মূল লকগুলি ব্যবহার করে। রোলিং গেটগুলি প্রায় সমস্ত বিদ্যমান লকগুলিতে নতুনগুলির অনুরূপ মাত্রা সহ ব্যবহৃত হয় এবং এটি একটি প্রমাণিত প্রযুক্তি। নতুন লকগুলি বৈদ্যুতিক লোকোমোটিভের পরিবর্তে জাহাজগুলিকে নির্দিষ্ট অবস্থান স্থাপন করতে টগবোট ব্যবহার করে। ঘূর্ণায়মান গেটগুলির মতো, একই উদ্দেশ্যে একই মাত্রার লকগুলিতে টাগগুলি সফলভাবে এবং ব্যাপকভাবে ব্যবহৃত হয়।

                                     

2.2. প্রকল্প নেভিগেশনাল চ্যানেল

পরিকল্পনা অনুসারে, খালটির বিদ্যমান সমুদ্রের প্রবেশদ্বারের সাথে নতুন আটলান্টিক লকগুলি সংযুক্ত করতে একটি ৩.২ কিলোমিটার ২.০ মাইল দীর্ঘ অ্যাক্সেস চ্যানেল খনন করা হয়। বিদ্যমান চ্যানেলগুলির সাথে নতুন প্রশান্ত মহাসাগরীয়-পাশের লকগুলি সংযুক্ত করতে দুটি নতুন অ্যাক্সেস চ্যানেল নির্মিত হয়:

  • ১.৮ কিমি ১.১ মাইল দক্ষিণ অ্যাক্সেস চ্যানেল, যা প্রশান্ত মহাসাগরে বিদ্যমান সমুদ্রের প্রবেশদ্বার চিত্র ৫ এর সাথে নতুন লকটিকে সংযুক্ত করে।
  • ৬.২ কিমি ৩.৯ মাইল উত্তর অ্যাক্সেস চ্যানেল, যা নতুন প্রশান্ত মহাসাগরীয়-পাশের লকটিকে কুলেব্রা কাটের সাথে সংযুক্ত করে, মীরাফ্লোরিস হ্রদকে অবরুদ্ধ করে। এই চ্যানেলটি নতুন বোরিকোয়েন বাঁধের পাশ দিয়ে অগ্রসর হয়, যা এটিকে মিরাফ্লোরিস হ্রদ যা পানির স্তর ৯ মিটার নিচে, পেড্রো মিগুয়েল লকগুলি স্থানচ্যুত হওয়ার কারণে থেকে পৃথক করে।

আটলান্টিক এবং প্রশান্ত মহাসাগরীয় উভয় প্রান্তে নতুন চ্যানেলগুলি কমপক্ষে ২১৮ মিটার ৭১৫ ফুট প্রশস্ত এবং প্যানাম্যাক্স পরবর্তী জাহাজগুলিকে একক দিকে চলাচলের অনুমতি দেয়।



                                     

3. নির্মাণ সময়রেখা

প্রথমে ধরনা করা হয় তৃতীয় সেট লক প্রকল্পের নির্মাণে মূলত সাত বা আট বছর সময় লাগবে এবং খালটি খোলার প্রায় ১০০ বছর পরে নতুন লকটি ২০১৪ এবং ২০১৫ অর্থবছরের মধ্যে শুরু হবে। তবে ২০১২ সালের জুলাইয়ে ঘোষণা করা হয় যে সম্প্রসারণ প্রকল্পটি সময়সূচির ছয় মাস পিছনে চলছে, ফলে উদ্বোধনের তারিখটি অক্টোবর ২০১৪ সাল থেকে এপ্রিল ২০১৫ পর্যন্ত পিছিয়ে দেওয়া হয়। ২০১৪ সালে সেপ্টেম্বরে জানা যায়, নতুন গেটগুলি "২০১৬ সালের শুরুতে" ট্রানজিটের জন্য উন্মুক্ত করা হবে।

অক্টোবরে ২০১১ সালে পানামা খাল কর্তৃপক্ষ প্রশান্ত মহাসাগরীয় অ্যাক্সেস চ্যানেলের জন্য খননের তৃতীয় পর্যায়ের কাজ শেষ করার ঘোষণা দেয়।

২০১২ সালের জুনে, একটি ১০০ ফুট লম্বা কংক্রিটের একপ্রান্ত তৈরি করা হয়, যা এমন ৪৬ টির প্রশান্ত মহাসাগরের পাশের লক দেয়ালগুলির মধ্যে প্রথমটি।

                                     

4. পরিবেশগত প্রভাব

এসিপির প্রস্তাব দাবি করেছে যে প্রকল্পটি পরিবেশ, জনগোষ্ঠী, প্রাথমিক বন, জাতীয় উদ্যান বা বন সংরক্ষণাগার, প্রাসঙ্গিক জাতীয় বা প্রত্নতাত্ত্বিক স্থান, কৃষি বা শিল্প উৎপাদন অঞ্চল বা পর্যটক বা বন্দর অঞ্চলকে স্থায়ীভাবে ক্ষতি করবে না। এটি বলে যে বিদ্যমান পদ্ধতি এবং প্রযুক্তি ব্যবহার করে যে কোনও ক্ষতি প্রশমিত করা যেতে পারে।

প্রস্তাবে বলা হয়েছে যে প্রকল্পটি স্থায়ীভাবে জল বা বায়ুর মানের হ্রাস করবে না। প্রস্তাবিত জল সরবরাহ কর্মসূচী গাতুন এবং আলহাজুয়েলা হ্রদগুলির জলের সক্ষমতা সর্বাধিক করে তোলে এবং জলকে দক্ষতার সাথে ব্যবহার করার জন্য নকশা করা হয়েছে যাতে কোনও নতুন জলাধার প্রয়োজন হবে না এবং কোনও সম্প্রদায়কে বাস্তুচ্যুত হওয়ার দরকার নেই।