Back

ⓘ বিষয়শ্রেণী:করোনাভাইরাস




                                               

আলফাকরোনাভাইরাস

আলফাকোরোনাভাইরাস চারটি জেনারেটর মধ্যে প্রথম, আলফা-, বিটা-, গামা- এবং ডেল্টাকোরোনাভাইরাস পরিবারের সাবোন ফ্যামিলি Coronaviridae এর কোরোনাভিরিনে । করোনাভাইরাসগুলি এনভেলভড, পজেটিভ-ইন্দ্রিয়, একক-আটকে থাকা আরএনএ ভাইরাসগুলির মধ্যে মানব এবং জুনোোটিক প্রজাতি উভয়ই অন্তর্ভুক্ত। এই সাবফ্যামিলির মধ্যেই, ভাইরাসগুলির ক্লাব-আকারের পৃষ্ঠের অনুমান এবং একটি মূল শেল সহ গোলকের ভাইরাস থাকে। নামটি লাতিন করোনার, যার অর্থ মুকুট, যা বৈদ্যুতিন মাইক্রোস্কোপির অধীনে দেখা অনুমানগুলির চেহারা বর্ণনা করে যা একটি সৌর করোনার সাথে সাদৃশ্যপূর্ণ। এই জিনাসের মধ্যে যা ফাইলগ্রুপ 1 করোনভাইরাস হিসাবে বিবেচিত ছিল তা ধারণ করে। আলফা ...

                                               

করোনাভাইরাস মন্দা

করোনাভাইরাস মন্দা হচ্ছে বর্তমানে চলমান বৈশ্বিক অর্থনৈতিক মহা মন্দা যা ২০২০ খ্রিষ্টাব্দের শুরুতে বৈশ্বিক অর্থনীতিতে প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে। এটা গ্রেট লকডাউন বা গ্রেট শাটডাউন নামেও পরিচিতি পেয়েছে। ২০২০ শেয়ারবাজার ধ্বস এর মাধ্যমে এটি শুরু হয়ে কোভিড-১৯ মহামারীর সময়ে ভয়াবহ আকার ধারণ করেছিল। গ্রেট রিসেশন এর পর অর্থনীতির সবচেয়ে খাড়া পতন এই মন্দাটি। ১৪ এপ্রিল ২০২০ খ্রিস্টাব্দে ইন্টারন্যাশনাল মনিটারি ফান্ড এক ঘোষণায় এই মহামন্দা বিষয়ে সতর্ক করেছে। জি7 অন্তর্ভুক্ত জাতীসমূহ ইতিমধ্যেই অথবা সিঘ্রই এই মহামন্দার মধ্যে প্রবেশ করবে এবং একইসাথে অধিকাংশ পশ্চিমা দেশের অর্থনীতির উন্নয়ন হারও লক্ষনীয় ...

                                               

গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টি সৃষ্টিকারী করোনাভাইরাস

গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টি সৃষ্টিকারী করোনাভাইরাস একটি ভাইরাস যার কারণে গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টি নামক রোগাবস্থার সৃষ্টি হয়। ২০০৩ সালের ১৬ এপ্রিল তারিখে এশিয়াতে গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টির প্রাদুর্ভাব ঘটে এবং সেখান থেকে রোগটি বিশ্বের অন্য অন্য জায়গায় ছড়িয়ে পড়ে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলে যে বেশ কয়েকটি পরীক্ষাগার দ্বারা চিহ্নিত করোনাভাইরাসটি কারণ ছিল সার্স ভাইরাস । নিউইয়র্ক সিটি, সান ফ্রান্সিসকো, ম্যানিলা, হংকং এবং টরন্টোর পরীক্ষাগারগুলিতে ভাইরাসটির নমুনা সংরক্ষণ হয়েছিল। ২০০৩ সালের এপ্রিল মাসে মার্কিন য ...

                                               

গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টি সৃষ্টিকারী করোনাভাইরাস ২

গুরুতর তীব্র শ্বাসযন্ত্রীয় রোগলক্ষণসমষ্টি সৃষ্টিকারী করোনাভাইরাস ২ বা সংক্ষেপে সার্স-কোভ-২, একটি ধনাত্মক দিকমুখী একক-সূত্রবিশিষ্ট আরএনএ ভাইরাস। এটি মানুষ থেকে মানুষে সংক্রমিত হয়ে একটি রোগের সৃষ্টি করে, যার নাম করোনাভাইরাস রোগ ২০১৯। এই ভাইরাসঘটিত রোগটি ২০২০ সালে চলমান একটি বৈশ্বিক মহামারীর সৃষ্টি করেছে। ভাইরাসটিকে প্রথমদিকে সাময়িকভাবে "২০১৯ নভেল করোনাভাইরাস" নাম দেওয়া হয়েছিল। সার্স-কোভ-২ ভাইরাসটির সাথে বাদুড়ের দেহে বাহিত করোনাভাইরাসগুলির ঘনিষ্ঠ বংশাণুগত সাদৃশ্য রয়েছে এবং এগুলির কোনও একটি থেকেই হয়ত বিবর্তনের মাধ্যমে এই ভাইরাসটির উৎপত্তি ঘটেছে। ধারণা করা হচ্ছে একটি অন্তর্বর্তী প্রাণী ...

                                               

করোনাভাইরাস রোগ

করোনাভাইরাস রোগ, করোনাভাইরাস রেসপিরেটোরি সিন্ড্রোম, করোনাভাইরাস নিউমোনিয়া, করোনাভাইরাস ফ্লু, বা অন্য কোনও রূপ, করোনাভাইরাস পরিবারের সদস্যদের দ্বারা সৃষ্ট একটি রোগ। করোনাভাইরাসের বিভিন্ন সংক্রমণগুলি হলো সিভিয়ার একিউট রেসপিরেটোরি সিন্ড্রোম এসএআরএস, মিডল ইস্ট রেসপিরেটোরি সিন্ড্রোম এমইআরএস এবং করোনাভাইরাস রোগ ২০১৯ কোভিড-১৯। করোনাভাইরাসগুলি সর্দি-কাশি এর কিছু জোরের কারণেও হতে পারে। কোভিড-১৯ দ্বারা সৃষ্ট ২০১৯–২০ করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবকে ২০২০ সালের ১১ মার্চ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ডাব্লুএইচও দ্বারা একটি বৈশ্বিক মহামারী হিসাবে ঘোষণা করা হয়েছিল। এই রোগের স্থানীয় সংক্রমণ ছয়টি ডাব্লুএইচও অঞ্চল জ ...