Back

ⓘ কৃষ্ণেন্দু অধিকারী




কৃষ্ণেন্দু অধিকারী
                                     

ⓘ কৃষ্ণেন্দু অধিকারী

কৃষ্ণেন্দু অধিকারী বিশিষ্ট ভারতীয় অভিনেতা, পরিচালক এবং প্রযোজক। তিনি মূলত বাংলা থিয়েটার এবং বাংলা চলচ্চিত্র শিল্পে কাজ করেন। তিনি কলকাতাভিত্তিক অভিনয় সম্মিলিত বেহালা প্রকল্প প্রোমিথিউস - ২০১৬ সালে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। তিনি ভারতের রাজনৈতিক ও আন্দোলনভিত্তিক নাট্যকে পুনরুজ্জীবিত করার জন্য নিবেদিতপ্রাণ।

                                     

1. জীবনী

অধিকারীর জন্ম পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের তমলুকে, তিনি তিন ভাই-বোনের মধ্যে সবচেয়ে ছোট। তিনি পশ্চিমবঙ্গের মেদিনীপুর কলেজ থেকে ইংরেজি সাহিত্যে স্নাতক করেছেন। ২০১২ সালে অধিকারী ভারতের কলকাতার রঙ্গ রূপ থিয়েটার দলের সাথে মিলে অভিনেতা এবং পেশাদার আলোকচিত্রী হিসাবে তার সৃজনশীল যাত্রা শুরু করেছিলেন। পরবর্তী পাঁচ বছরের মধ্যে তিনি বলিষ্ঠ অভিনেতা সুদীপ্ত চ্যাটার্জী, সীমা মুখোপাধ্যায় এবং বিক্রম আইয়ঙ্গারের অভিভাবকত্বে শারীরিক/বাচিক অভিনয়, দেহ সচেতনতা এবং কিনেস্থেটিক পেশী এবং জয়েন্টগুলির সংবেদনশীল অঙ্গগুলির মাধ্যমে শরীরের অংশগুলির অবস্থান এবং গতি সম্পর্কে একজন ব্যক্তির সচেতনতা সংক্রান্ত নিবিড় প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছিলেন। অধিকারী, সাবলীল অর্ক মুখোপাধ্যায়ের দক্ষ নির্দেশনায় তামিল মার্শাল আর্ট কালারিপায়াত্তু শিখেছিলেন।

২০১৬ সালে অধিকারী ভারতের দিল্লীতে মর্যাদাপূর্ণ ভারত রঙ মহোৎসব থিয়েটার উৎসবে সুদীপ্ত চ্যাটার্জী’র নির্দেশনায় রাজার মৃত্যু নাটকে অভিনেতা ও প্রযোজনা পরিচালক হিসাবে এবং দেবাশিস দত্তের পরিচালনায় রাজরক্ত নাটকে অংশগ্রহণ করেছিলেন। একই বছরে নাট্য অভিনেতা হিসাবে অধিকারী দুটি সমবর্তী এবং ব্যাপকভাবে প্রশংসিত বাংলা প্রযোজনায় বিরাট সাফল্য অর্জন করেছিলেন, প্রথমটি ছিল - আগশুদ্ধি ; আর্থার মিলারের নাটক দ্য ক্রুশিবল থেকে অভিযোজিত; সুদীপ্ত চ্যাটার্জী পরিচালিত এবং দ্বিতীয়টি ইঁদুর ও মানুষ জন স্টাইনবেকের উপন্যাস অব মাইস অ্যান্ড মেন থেকে অভিযোজিত; পরিচালনা করেছেন দেবাশিস বিশ্বাস। অধিকারীর ছোটু মান্ডির চরিত্র, যেটি আগশুদ্ধি র মুখ্য চরিত্র বিশেষ সমালোচকদের প্রশংসা পেয়েছিল। পরে, ২০১৮ সালে অধিকারী মৃত্যুসংবাদ পার্থ সারথী রাহা পরিচালিত মোহিত চট্টোপাধ্যায়ের একটি নাটক শীর্ষক একটি নাট্য প্রযোজনার শিরোনামে এসেছিলেন। "স্ট্রেঞ্জার" এর চিত্রায়নের জন্য উল্লেখযোগ্য প্রশংসা অর্জন করে অধিকারী এবং তার দল ২০১৯ সালে ২০তম ভারত রং মহোৎসবে অংশ নিয়ে মৃত্যুসংবাদ নিয়ে ভারতের মহীশূর ভ্রমণ করেছিলেন।

২০১৬ সালে অধিকারী তার নিজস্ব সংস্থা - বেহালা প্রোজেক্ট প্রোমিথিউস এর সহ-প্রতিষ্ঠা করেছিলেন - পেশাদার সহযোগী ইন্দুদীপা সিনহার সাথে। তাদের লক্ষ্য ছিল ভারতের রাজনৈতিক ও আন্দোলনভিত্তিক নাট্যমঞ্চে সৃজনশীল প্রকাশকে নতুন করে সংজ্ঞায়িত করা। ২০১৭ সালের প্রথম দিকে অধিকারী এবং তার সংস্থাটি তাদের শ্রেষ্ঠ রচনা কোড রেড এর প্রথম উপস্থাপনা করেছিলেন - একটি থিয়েটার এবং নৃত্য উপস্থাপনা, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতা শিশুতীর্থ থেকে অভিযোজিত, এটির নির্দেশক ছিলেন সিনহা। অধিকারী সমালোচকদের প্রশংসিত এই প্রযোজনায় উপস্থাপনা সদস্য, উৎপাদন ব্যবস্থাপক প্রডাকশন ম্যানেজার এবং সহকারী পরিচালক হিসাবে কাজ করেছিলেন। এই প্রযোজনাটি সারা দেশে ভ্রমণ করেছিল, ভোপালের অষ্টম থিয়েটার অলিম্পিকের অংশ হিসাবে ২০১৮ এবং বেঙ্গালুরুতে পঞ্চম সি.জি.কে. রাষ্ট্রীয় রঙ্গোৎসব ২০১৮ অনুষ্ঠানে।

পরিচালনায় অধিকারীর অভিষেক ঘটে ২০১৫ সালে, শর্ট অ্যান্ড সুইট থিয়েটার উৎসবে ওয়ান টু থ্রি শীর্ষক দশ মিনিটের নাটিকা দিয়ে।

২০১৬ সালে বুদ্ধদেব দাশগুপ্ত পরিচালিত, সমালোচকদের দ্বারা প্রশংসিত বাংলা চলচ্চিত্র টোপ - দ্য বেইট এ অভিনেতা হিসাবে অধিকারী রূপালী পর্দায় আসেন। এটি টরন্টো আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসব, ৬০তম বিএফআই লন্ডন চলচ্চিত্র উৎসব এবং ২১তম বুশান আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে গিয়েছিল। ২০১৭ সালে অধিকারী বাণিজ্যিক বাংলা চলচ্চিত্র জগতে আত্মপ্রকাশ করেছিলেন বিরসা দাশগুপ্তর ওয়ান চলচ্চিত্রে একটি সহায়ক চরিত্রে। অধিকারী স্বতন্ত্র বাংলা স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্রেও অভিনয় করেছেন, যার মধ্যে উল্লেখযোগ্য হল নিরুদ্দেশ/অ্যাড্রিফ্ট সপ্তর্ষি ভট্টাচার্য পরিচালিত এবং বাঁশি কৌশিক সেনগুপ্ত পরিচালিত। ২০১৮ সালে, নিরুদ্দেশ/অ্যাড্রিফ্ট, মুখ্য চরিত্রে অধিকারীকে নিয়ে, হায়দ্রাবাদ এর হায়দ্রাবাদ বেঙ্গলী ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এর অংশ হিসাবে, দিল্লিতে নবম জাগরণ ফিল্ম ফেস্টিভাল আয়োজিত ইন্ডিয়া শর্ট ফিল্ম প্রতিযোগিতায়, এবং জার্মানির বনে ট্যানেনবুশ হাউস আয়োজিত একটি আন্তর্জাতিক উপস্থাপনায় নির্বাচিত এবং প্রদর্শিত হয়েছিল। ২০১৯-এ, নিরুদ্দেশ/অ্যাড্রিফ্ট কলকাতার দ্বিতীয় দক্ষিণ এশিয়ান শর্ট ফিল্ম ফেস্টিভাল এর অংশ হিসাবে প্রদর্শিত হওয়ার জন্য নির্বাচিত হয়েছিল।

                                     

2. বহিঃসংযোগ

  • "Code Red to be staged in Kolkata after many months". The Times of India. Retrieved 2018-09-15.
  • "AAGSHUDDHI: A relevant readaptation of Miller’s 1953 classic". www.kaahon.com. Retrieved 2018-09-15.