Back

ⓘ আচরণিক ভূগোল




                                     

ⓘ আচরণিক ভূগোল

আচরণিক ভূগোল হলো মানব ভূগোলের এমন একটি পদ্ধতির যা একটি পৃথক দৃষ্টিভঙ্গি ব্যবহার করে মানুষের আচরণ পরীক্ষা করে। আচরণিক ভূগোলবিদগণ স্থানিক যুক্তি, সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং আচরণের অন্তর্নিহিত জ্ঞানীয় প্রক্রিয়াগুলিতে মনোনিবেশ করেন। এছাড়াও, আচরণিক ভূগোহল মানব ভূগোলের এমন একটি ধারণা / দৃষ্টিভঙ্গি যা তাদের পরিবেশ সম্পর্কে প্রতিক্রিয়া এবং প্রতিক্রিয়া সম্পর্কে ব্যক্তির উপলব্ধি বা প্রতিক্রিয়ার সাথে জড়িত জ্ঞানীয় প্রক্রিয়াগুলি নির্ধারণ করার জন্য আচরণবাদের পদ্ধতি এবং অনুমানগুলিকে ব্যবহার করে।

আচরণিক ভূগোল হলো মানব বিজ্ঞানের সেই শাখা যা জ্ঞানীয় প্রক্রিয়াগুলির অধ্যয়নের সাথে আচরণবাদের মাধ্যমে তার পরিবেশের প্রতি প্রতিক্রিয়া পর্যালোনা করে।

                                     

1. সমস্যা

নামের কারণে এটি প্রায়শই আচরণবাদের সাথে যুক্ত বিষয় হিসাবে বিবেচিত হয়। কিছু আচরণিক ভূগোলবিদ বোধগম্যতার উপর জোর দেওয়ার কারণে তাদের সাথে আচরণগতবাদের স্পষ্টতই সংযোগ রয়েছে, তবে বেশিরভাগকেই জ্ঞানমুখী হিসাবে বিবেচনা করা যেতে পারে। প্রকৃতপক্ষে, মনে করা হয় যে, আচরণবাদ সম্পর্কিত আগ্রহ খুব সাম্প্রতিক এবং তা ক্রমবর্ধমান। এটি মানবের বিস্তৃত সজ্জার ক্ষেত্রে বিশেষভাবে সত্য। আচরণিক ভূগোলের শুরু এডওয়ার্ড সি টোলম্যানের "জ্ঞানীয় মানচিত্র"-এর ধারণার মতো প্রাথমিক আচরণবাদী কাজ থেকে। আরও জ্ঞান ভিত্তিক অধ্যয়নে, আচরণইক ভূগোলবিদগণ স্থানিক যুক্তি, সিদ্ধান্ত গ্রহণ এবং আচরণের অন্তর্নিহিত জ্ঞানীয় প্রক্রিয়াগুলিতে মনোনিবেশ করে থাকেন। আরও আচরণগত ভিত্তিক ভূগোলবিদগণ বস্তুবাদী এবং মৌলিক শেখার প্রক্রিয়াগুলির ভূমিকা এবং তারা কীভাবে সজ্জিত নিদর্শনগুলি বা এমনকি গোষ্ঠী পরিচয়কে প্রভাবিত করে তা নিয়ে গবেষণা করেন।

জ্ঞানীয় প্রক্রিয়াগুলির মধ্যে রয়েছে পরিবেশগত উপলব্ধি এবং জ্ঞানবৃত্তীয়, পথণ্বেষণ, জ্ঞানীয় মানচিত্রের বিনির্মাণ, স্থান সংযুক্তি, স্থান এবং স্থান সম্পর্কে মনোভাবের বিকাশ, কার্যের পরিবেশের অপূর্ণ জ্ঞানের উপর ভিত্তি করে সিদ্ধান্ত এবং আচরণ এবং অন্যান্য অসংখ্য বিষয় সমূহ। আচরণিক ভূগোলে গৃহীত পদ্ধতি মনোবিজ্ঞানের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে জড়িত, তবে অর্থনীতি, সমাজবিজ্ঞান, নৃবিজ্ঞান, পরিবহন পরিকল্পনা এবং অন্যান্য অনেকগুলি সহ অন্যান্য শাখার বিপুল পরিমাণের গবেষণা ফলাফলগুলির উপর ভিত্তি করে এর উপসংহারে পৌছানো হয়।

                                     

2. প্রকৃতির সামাজিক নির্মাণ

প্রকৃতি হলো সেই বিশ্ব যা আমাদের জীবনকে ঘিরে থাকা সমস্ত কিছু এবং প্রাকৃতিক বৈশিষ্ট্য নিয়ে নির্মিত। সামাজিক নির্মাণ হলো সেই প্রক্রিয়া যাতে আমাদের মনুষ্যভ্যন্তরে আমাদের চারপাশের বিশ্বকে সজ্জিত করে। প্লেটোর শ্রেণিবদ্ধকরণ সম্পর্কিত ক্লাসিক্যাল তত্ত্ব অনুসারে, মানুষ অভিজ্ঞতা এবং কল্পনার মাধ্যমে যা দেখেন তা দিয়েই তার বিভাগগুলি তৈরি করে। ফলে সামাজিক নির্মাণবাদ, ভাষা এবং শব্দার্থকে সম্ভব করে তোলা বৈশিষ্ট্য। যদি এই অভিজ্ঞতা এবং চিত্রগুলিকে বিভাগগুলিতে স্থাপন না করা হয়, তবে এটি সম্পর্কে ভাবার ক্ষেত্রে মানুষের ক্ষমতা সীমাবদ্ধ হয়ে যায়।

                                     
  • ম নব য ক ষ জ আচরণ ক স স ক ত ক উন নয ন অর থন ত ক স ব স থ য ঐত হ স ক র জন ত ক জনস খ য বসত আঞ চল ক নগর প র ক ত ক জ বভ গ ল Climatology Coastal Geodesy
  • ম নব য ক ষ জ আচরণ ক স স ক ত ক উন নয ন অর থন ত ক স ব স থ য ঐত হ স ক র জন ত ক জনস খ য বসত আঞ চল ক নগর প র ক ত ক জ বভ গ ল Climatology Coastal Geodesy
  • ম নব য ক ষ জ আচরণ ক স স ক ত ক উন নয ন অর থন ত ক স ব স থ য ঐত হ স ক র জন ত ক জনস খ য বসত আঞ চল ক নগর প র ক ত ক জ বভ গ ল Climatology Coastal Geodesy
  • ম নব য ক ষ জ আচরণ ক স স ক ত ক উন নয ন অর থন ত ক স ব স থ য ঐত হ স ক র জন ত ক জনস খ য বসত আঞ চল ক নগর প র ক ত ক জ বভ গ ল Climatology Coastal Geodesy
  • ম নব য ক ষ জ আচরণ ক স স ক ত ক উন নয ন অর থন ত ক স ব স থ য ঐত হ স ক র জন ত ক জনস খ য বসত আঞ চল ক নগর প র ক ত ক জ বভ গ ল Climatology Coastal Geodesy
  • ম নব য ক ষ জ আচরণ ক স স ক ত ক উন নয ন অর থন ত ক স ব স থ য ঐত হ স ক র জন ত ক জনস খ য বসত আঞ চল ক নগর প র ক ত ক জ বভ গ ল Climatology Coastal Geodesy
  • ম নব য ক ষ জ আচরণ ক স স ক ত ক উন নয ন অর থন ত ক স ব স থ য ঐত হ স ক র জন ত ক জনস খ য বসত আঞ চল ক নগর প র ক ত ক জ বভ গ ল Climatology Coastal Geodesy

Users also searched:

...
...
...