Back

ⓘ বিষয়শ্রেণী:দক্ষিণ আমেরিকা




                                               

আরাওয়াক

আরাওয়াক রা হল দক্ষিণ আমেরিকার এক আদিবাসী সম্প্রদায়। তারা মূলত দক্ষিণ আমেরিকার উত্তর উপকূল ও ক্যারিবীয় অঞ্চলে বসবাস করত। তবে আরাওয়াক শব্দটি সুনির্দিষ্ট ভাবে কোনও একটি বিশেষ আদিবাসী গোষ্ঠীকে বোঝায় না। শব্দটি দ্বারা বিভিন্ন সময় ক্যারিবীয় নানা জাতি, তাইনো ও লোকোনো জাতির মানুষকে অভিহিত করা হয়েছে। কিন্তু এরা সবাই সাধারণভাবে আরাওয়াক ভাষায় বা তার সাথে সম্পর্কযুক্ত কোনও ভাষায় কথা বলত। তা থেকেই এদের এই নাম। শব্দটি দ্বারা বর্তমানে বৃহত্তর অর্থে দক্ষিণ আমেরিকার আদিনাসীদের এক বিরাট জনগোষ্ঠীকেও চিহ্নিত করা হয়ে থাকে, যারা সবাই আরাওয়াক ভাষাগোষ্ঠীরই কোনও না কোনও ভাষায় কথা বলে থাকে ও একটি সাধা ...

                                               

গাউচো

গাউচো দক্ষিণ আমেরিকার বিশেষ কিছু অঞ্চলে বসবাসকারী অধিবাসীদের সাধারণ নাম। মহাদেশটির পাম্পাস, গ্রান চাকো ও পাতাগোনিয়ান তৃণভূমিতে এরা ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। আর্জেন্টিনার কিছু অংশ, ব্রাজিলের দক্ষিণে রিও গ্রান্দে দো সুল, উরুগুয়ে, প্যারাগুয়ে, দক্ষিণ ও পূর্ব বলিভিয়া এবং দক্ষিণ চিলিতে এদের বসবাস। এছাড়া ব্রাজিলের রিও গ্রান্দে দো সুল অঞ্চলে বসবাসকারী অধিবাসীদের জাতিগতভাবে গাউচো নামে ডাকা হয়। উত্তর আমেরিকার কাউবয় স্প্যানিশ ভাকেরো আর দক্ষিণ আমেরিকার গাউচো একই বস্তু। এছাড়া চিলির উয়াসো huaso, কিউবার গুয়াখিরো guajiro, ভেনিজুয়েলা আর কলম্বিয়ার ইয়ানেরো llanero বা মেক্সিকোর চাররো -এর charro সাথ ...

                                               

তিকিনা প্রণালী

তিকিনা প্রণালী হল দক্ষিণ আমেরিকার তিতিকাকা হ্রদের উত্তরের বড় অংশ লাগো গ্রান্দে ও দক্ষিণের ছোট অংশ লাগো পেকেনিয়ো র মধ্যবর্তী সঙ্কীর্ণ একটি জলপথ। স্থানে স্থানে এটি এতটাই সঙ্কীর্ণ যে মাত্র ৮০০ মিটার চওড়া। তবে প্রণালীটি যথেষ্ট গভীর। এর সর্বনিম্ন গভীরতা হল ২১ মিটার। এটি দেশ হিসেবে বলিভিয়ার অঙ্গ। এর দুই পারে সান পেদ্রো ও সান পাবলো শহর দুটি অবস্থিত। প্রশাসনিকভাবে এই প্রণালী বলিভিয়ার লা পাজ বিভাগের অন্তর্গত মানকো কাপাক প্রদেশের সান পেদ্রো পুরসভার অধীন। বলিভিয়ার রাজধানী লা পাজ থেকে কোপাকাবানা উপদ্বীপে যাওয়ার বাস্তবে সরাসরি কোনও রাস্তা নেই। দক্ষিণের হ্রদটি পুরো ঘুরে যাওয়ার একটি রাস্তা হওয়া ...

                                               

দক্ষিণ আমেরিকার ভাষা

উপনিবেশবাদের কারণে স্পেনীয় ভাষা এবং পর্তুগিজ ভাষা বর্তমানে দক্ষিণ আমেরিকার দুইটি প্রধান ভাষা। তবে সারা মহাদেশ জুড়ে ১ কোটিরও বেশি লোক স্থানীয় আদিবাসী আমেরিকান ভাষাগুলিতে কথা বলেন। ভাষাগুলির বেশির ভাগই গহীন জঙ্গলে স্বল্প সংখ্যক সদস্যবিশিষ্ট বিভিন্ন গোত্রের মধ্যে প্রচলিত। এগুলির মধ্যে খুব কম সংখ্যক ভাষাই পূর্ণাঙ্গভাবে বর্ণিত হয়েছে। অনেকগুলি ভাষা বিলুপ্তির পথে। কারিব, আরাওয়াক ও টুপি দক্ষিণ আমেরিকার তিনটি প্রধান ভাষাপরিবার। কারিব ভাষাগুলি আমাজন নদীর উত্তরের অঞ্চলটির মূলত পূর্ব অংশে প্রচলিত। আরাওয়াক ভাষাগুলি আমাজনের উত্তর-পশ্চিমে ও দক্ষিণে প্রচলিত; এগুলি এককালে ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জেও প্রচ ...

                                               

মোচে নদী

মোচে নদী হল উত্তর-পশ্চিম পেরুর একটি নদী। এর দৈর্ঘ্য ১০২ কিলোমিটার। আন্দিজ পর্বতের ৩৯৮৮ মিটার উচ্চতায় কিরুভিলচা গ্রামের কাছে লাগুয়ানা গ্রন্দে হ্রদ থেকে এর উৎপত্তি। এরপর পশ্চিমবাহী এই নদী পেরুর দেপাতমেন্তো দে লা লিবারতাদ বা লা লিবারতাদ অঞ্চলের মধ্য দিয়ে প্রবাহিত হয়ে প্রশান্ত মহাসাগরে গিয়ে পড়েছে। বর্ষাকালে এই নদী প্রতি সেকেন্ডে ৫৫৬.৮ ঘনমিটার পর্যন্ত জল বহন করে থাকে বলে দেখা গেছে। তবে শুখা মরশুমে এই নদীর খাত মোটামুটি শুকনোই থাকে। ফলে মোচে নদীর সারা বছরের গড় জল বহনের পরিমাপ মাত্র ৯.৫৩ ঘনমিটার প্রতি সেকেন্ড। এই নদীর উপত্যকা সাধারণভাবে মোচে উপত্যকা নামে পরিচিত।

                                               

লোকোনো

লোকোনো বা আরাওয়াকরা হল আরাওয়াক গোত্রের এক জাতি। এরা দক্ষিণ আমেরিকা মহাদেশের উত্তর উপকূল অঞ্চলে এখনও বাস করে। তাদের মোট জনসংখ্যা এখন প্রায় ১০,০০০। বর্তমানে এরা মূলত ভেনিজুয়েলা, সুরিনাম, গায়ানা ও ফরাসি গায়ানার সমুদ্র ও নদী উপকূল সংলগ্ন অঞ্চলে বাস করে। এদের ভাষা হল আরাওয়াক ভাষা । এদের এই ভাষার নাম থেকেই আজ নৃ-বিজ্ঞানে বহুল ব্যবহৃত আরাওয়াক ভাষাগোষ্ঠী ও আরাওয়াক গোত্র নামদুটির সৃষ্টি।