Back

ⓘ পাট অধিদপ্তর (বাংলাদেশ)




                                     

ⓘ পাট অধিদপ্তর (বাংলাদেশ)

পাট অধিদপ্তর হলো বাংলাদেশ বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন একটি সরকারী নিয়ন্ত্রক সংস্থা। বাংলাদেশে পাট শিল্পের বিকাশ ও প্রসারের জন্য জন্য সংস্থাটি কাজ করে।

অধিদপ্তর পাট ভিত্তিক পণ্য উৎপাদনের অগ্রগতি ও বৈচিত্রতা অর্জনে সারা দেশে অসংখ্য গবেষণা প্রতিষ্ঠান ও বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সহযোগিতামূলক কাজ করে ।

                                     

1. ইতিহাস

বস্ত্র মন্ত্রণালয় ও পাট মন্ত্রণালয়ের একীভূত হওয়ার পরে ১৯৭৮ সালে একটি পরিদপ্তর গঠিত হয়। যদিও ১৯৫৩ সালে তৎকালীন আকিস্তান সরকার জুট বোর্ড গঠন করে। বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়াপর ১৯৭৩ সালের এপ্রিল মাসে জুট বোর্ড বিলুপ্ত করে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অধীনে পাট বিভাগ সৃষ্টি করা হয়। এরর ১৯৭৬ সালে পৃথক পাট মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠা করা হয়। এর সংযুক্ত দপ্তর হিসেবে পাট পরিদপ্তর সৃষ্টি করা হয়। ১৯৭৮ সালে পাট ও পাটপণ্য পরিদর্শন পরিদপ্তর নামে অপর একটি পরিদপ্তর সৃষ্টি করা হয়। এর উদ্দেশ্য ছিলো কাঁচাপাট ও পাটজাত পণ্যের মান নিয়ন্ত্রণ করা। বিশ্ব ব্যাংকের সুপারিশে এটি তৈরী করা হয়। ১৯৯২ সালে পাট পরিদপ্তর এবং পাট ও পাটপণ্য পরিদর্শন পরিদপ্তর একীভূত করে পাট অধিদপ্তর গঠিত হয়। সাবেক পরিদপ্তর দুটির মোট জনবলের সংখ্যা ছিল ৭৯৩ জন। নবগঠিত পাট অধিদপ্তরের জনবল নির্ধারণ করা হয় ৪৯৪ জন। সমগ্র বাংলাদেশে পাট অধিদপ্তরের ১৮ টি আঞ্চলিক অফিস রয়েছে। এরমধ্যে ঢাকা, চট্টগ্রাম ও খুলনায় অবস্থিত ৩টি পাটপণ্য পরীক্ষাগার। এছাড়া দেশে ৪৩ টি মুখ্য পরিদর্শকের কার্যালয় ও ৭৯ টি পরিদর্শকের কার্যালয় স্থাপন করা হয়েছে।

                                     

2. কৌশলগত উদ্দেশ্যসমূহ

  • পাটখাতে বিনিয়োগের সুযোগ সম্প্রসারণ
  • পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন, মান নিয়ন্ত্রণ, অভ্যন্তরীণ ব্যবহার বৃদ্ধি ও আন্তর্জাতিক বাজার সম্প্রসারণে সহযোগিতা প্রদান;
  • প্রশিক্ষণের মাধ্যমে মানবসম্পদ উন্নয়ন
  • দক্ষ ও প্রয়োজনীয় জনবল তৈরীর নিমিত্ত সাংগঠনিক কাঠামো সুসংগঠিতকরণ
  • পাট ও পাটজাত পণ্যের ব্যবসায়ে সহযোগিতা প্রদানের নিমিত্ত আইন ও বিধিমালা প্রয়োগ জোরদারকরণ
                                     

3. অধিদপ্তরের দায়িত্ব ও কার্যাবলী

  • পাট ও পাটপণ্য উৎপাদন, বাজারজাতকরণ, রপ্তানি ও রপ্তানি আয়ের যাবতীয় তথ্যাদি সংগ্রহ ও সমন্বিত প্রতিবেদন প্রস্তুতকরণ;
  • পাটকলসমুহে উৎপাদন পর্যায়ে পণ্য মান নিয়ন্ত্রণ,পণ্যের মান নিশ্চতকরণ এবং পরামর্শ ও সহায়তা প্রদান;
  • উন্নত প্রযুক্তিনির্ভর পাট ও পাটবীজ উৎপাদন এবং সম্প্রসারণ ” শীর্ষক প্রকল্প বাস্তবায়ন।
  • পাট আইন-২০১৭ প্রয়োগ ও বাস্তবায়ন;
  • পাট ও পাটজাত পণ্যের ব্যবসার লাইসেন্স প্রদান ও নবায়ন;
  • পাট চাষের জন্য ভূমি ব্যবহার পরিকল্পনা ;
  • পাট ব্যবসায়ের অনিয়ম ও অসাধুতা রোধ;
  • পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার আইন-২০১০ এবং পণ্যে পাটজাত মোড়কের বাধ্যতামূলক ব্যবহার বিধিমালা-২০১৩ এর প্রয়োগ ও বাস্তবায়ন;
  • স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক বাজার চাহিদার সাথে সঙ্গতি রেখে পাট ও পাটজাত পণ্যের উৎপাদন বৃদ্ধি ;
  • পাট ও পাটজাত দ্রব্যের মান নিয়ন্ত্রণ এবং
  • বহুমুখী পাটজাত পণ্যের গবেষণা, উদ্ভাবন ;
  • পাট চাষের উন্নয়ন, প্রসার, গবেষণা ;
  • পাটজাত পণ্যের ব্যবহার বৃদ্ধি, বাজার সম্প্রসারণে প্রয়োজনীয় প্রণোদনা Ges পুরস্কার cÖ`vb বিষয়ে কার্যক্রম গ্রহণ;
  • পাট চাষীদের প্রয়োজনীয় তথ্য সরবরাহ ;