Back

ⓘ মাদারীপুর পৌরসভা




মাদারীপুর পৌরসভা
                                     

ⓘ মাদারীপুর পৌরসভা

মাদারিপুর জেলার কেন্দ্রে মাদারিপুর পৌরসভার অবস্থান। ঢাকা বিভাগ থেকে এ পৌরসভার দূরত্ব ৮৯ কিলোমিটার। এ পৌরসভার উত্তরে রাস্তি ও পাঁচখোলা, দক্ষিণে ঝাউদি ও ঘটমাঝি, পূর্বে ঝাউদি ও খোয়াজপুর এবং পশ্চিমে পেয়ারপুর ইউনিয়ন অবস্থিত।

ভৌগলিক অবস্থানঃ ২৩.০০’ থেকে ২০.৩০’ উত্তর অক্ষাংশ এবং ৮৯.৫৬’ থেকে ৯০.২১’ পূর্ব দ্রাঘিমাংশ।

                                     

1. প্রতিষ্ঠাকাল

১৮৭৫ খ্রিষ্টাব্দের এপ্রিল মাসে কলিকাতা মিউনিসিপ্যালিটির নিয়ন্ত্রণাধীন মাদারিপুর মিউনিসিপ্যাল কমিটি স্থাপিত হয়। যা পরবর্তীতে মাদারিপুর পৌরসভা নামে আখ্যায়িত করা হয়। তৎকালিন মাদারিপুর মহকুমা প্রশাসক জে.বি. স্টুয়ার্ড এর সভাপতিত্বে ১৮৭৫ খ্রিষ্টাব্দের ২৬শে জুন মিউনিসিপ্যালিটির প্রথম সভা অনুষ্ঠিত হয়।

                                     

2. প্রশাসনিক এলাকা

মাদারিপুর পৌরসভার প্রশাসনিক কার্যক্রম মাদারিপুর সদর উপজেলার আওতাধীন। এটি জাতীয় সংসদের ২১৯নং নির্বাচনী এলাকা মাদারীপুর-২ এর অংশ।

এ পৌরসভায় ৯টি ওয়ার্ড, ৩৪টি মহল্লা রয়েছে। এ পৌরসভার আওতাধীন গ্রাম/এলাকাসমূহ হল:

  • ঘটমাঝি,
  • তরমগুরিয়া,
  • শকুনী,
  • খাকদী,
  • রুপরিয়া,
  • মোবারকদি,
  • পানিছত্র,
  • মাদারিপুর,
  • পেয়ারপুর,
  • চর খাকদী,
  • থানতলী,
  • লক্ষ্মীগঞ্জ,
  • কুকরাইল,
  • কুমারখালী।
  • হরি কুমারিয়া,
  • গৈদী,
  • চরমুগুরিয়া,
  • পাকদী,
  • সৈদারবালী,
  • চর মদনরায়,
  • কুলপদ্দী,
                                     

3. শিক্ষা ব্যবস্থা

মাদারিপুর পৌরসভার সাক্ষরতার হার ৭১.৪০%। এ পৌরসভায় ৩টি কলেজ, ১টি আলিম মাদ্রাসাসহ ৪টি মাদ্রাসা, ২টি কারিগরি স্কুল এন্ড কলেজ, ৭টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ২টি কওমী মাদ্রাসা, ২৭টি প্রাথমিক বিদ্যালয়, ১টি এবতেদায়ী মাদ্রাসা, ৩টি কিন্ডারগার্টেন ও ৩টি নূরানী কিন্ডারগার্টেন রয়েছে।

                                     

4. যোগাযোগ ব্যবস্থা

মাদারিপুর পৌরসভায় যোগাযোগের প্রধান সড়ক ঢাকা-মাদারিপুর মহাসড়ক। যে কোন যানবাহনে যোগাযোগ করা যায়। এছাড়া মোট রাস্তা কাঁচা ২১.৯২ কি.মি., ডব্লিউবিএম ৫.১৫ কি.মি., সিসি/আরসিসি ২৫.৫০ কি.মি., সলিং ২৮.২০ কি.মি., এইচ বি বি ৮.২৫কি.মি. এবং কার্পেটিং ৬৮.৮০ কি.মি.। ব্রীজ ১৭টি এবং কালভার্ট ১০৪টি। মাদারিপুর লঞ্চ ঘাট থেকে নৌ পথে ভ্রমণ পিয়াসুদের জন্য ঢাকা মহানগরীতে নির্বিঘ্নে খুব সহজে আসা-যাওয়া করা যায়।

                                     

5. স্বাস্থ্য

মাদারিপুর পৌরসভায় ১৮৭৬ সাল হতে ডিসপেনসারী আকারে তৈরী হয়ে বর্তমানে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট সরকারি হাসপাতাল হিসেবে পরিচালিত হচ্ছে। ইতিমধ্যে এই হাসপাতাল ২৫০ শয্যায় উন্নীত করনের কাজ শুরু হয়েছে। ১০টি বেসরকারি হাসপাতাল এবং ১৩টি স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কেন্দ্র, ১টি ডায়াবেটিক হাসপাতাল, ১টি যক্ষ্মা হাসপাতাল রয়েছে।

                                     

6. চিত্তাকর্ষক স্থান

  • নারায়ণ মন্দির- পানিছত্র,
  • কুলপদ্দি জমিদার বাড়ি ও আবহাওয়া অফিস
  • চরমুগরিয়া ইকো পার্ক প্রাচীন বন্দর ও বানরের অভয়ারন্য
  • আড়িয়াল খাঁ নদী
  • শাহ মাদার দরগাহ শরীফ,
  • মাদারিপুর শকুনি দীঘি,
                                     

7. পত্র-পত্রিকা ও সাময়িকী

দৈনিক: সুবর্ণগ্রাম ১৯৯৮, প্রান্ত ২০০১, মাদারীপুর নিউজ ২০০৬, বিশ্লেষণ ২০০৯;

সাপ্তাহিক: সুপ্রভাত ১৯৯১, শাহ মাদার ১৯৯৩, শরীয়তউল্লাহ ১৯৯৬, আজকাল ১৯৯৯, গণসচেতনতা ২০০৬, সুবার্তা ২০০৭;

মাসিক: যুগচেতনা ১৯৯১, পোস্টার ১৯৯১, শান্তি সাময়িকী ১৯৯২, জাবল-ই-নূর ২০০৫;

সাহিত্য পত্রিকা: কথন, সন্দীপন, কিশলয়, বৈশাখী, ঊষা, ক্যানভাস, বর্ণমালা, নবপ্রভাত;

অবলুপ্ত: দৈনিক দিগন্ত ১৯৬০, সাপ্তাহিক জননী বাংলা ১৯৭২, সাপ্তাহিক মাদারীপুর বার্তা ১৯৮৬, সাপ্তাহিক আড়িয়াল খাঁ ১৯৮৯, পাক্ষিক বালারঞ্জিকা ১৮৬৩।

                                     

8. কৃতী ব্যক্তিত্ব

  • লিখন মাহমুদ - স্বেচ্ছাসেবী সংগঠক, গবেষক;
  • রুহুল আমীন - ইউএনও; জনপ্রশাসন পদক ২০১৯ প্রাপ্ত।
  • আবদুল মান্নান শিকদার - ভাষা সৈনিক; প্রাক্তন এমপি ও প্রতিমন্ত্রী;
  • বাসুদেব দাশগুপ্ত ১৯৩৮-২০০৫ - হাংরি আন্দোলন এর বিশিষ্ট ঔপন্যাসিক;
  • দ্বারকানাথ বারুরী ১৯০৬ -৮৫খ্রি. - যুক্ত বঙ্গের ও পূর্ব পাকিস্তান মন্ত্রী, পাকিস্তান কন্সটিটিউশন কমিশনের সদস্য১৯৬০;
  • এ.টি.এম. কামালুজ্জামান - সাংস্কৃতিক সংগঠক;
  • এসকান্দার আলী খান ১৯০১-৮৩খ্রি. - বিশিষ্ট আইনজীবি ও রাজনীতিবিদ; এমএলএ;
  • মুন্সী মোজাহারুল হক ১৮৯৮-১৯৭৯খ্রি. - রাজনীতিবিদ ও মাদারিপুরের প্রথম লঞ্চ ব্যাবসায়ী;
  • ডাঃ গোলাম মওলা ১৯২০ -৬৭খ্রি. - ভাষা সৈনিক, এমএলএ, এমএনএ, একুশে পদক২০১০ প্রাপ্ত; বিশিষ্ট চিকিৎসক;
  • মোহাম্মদ নিজামউদ্দিন আহমেদ ১৯৬০- - এডমিরাল, বাংলাদেশ নৌবাহিনীর প্রধান ২০১৫-২০১৯;
  • আ. ফ. ম. বাহাউদ্দিন নাছিম ১৯৬১ - রাজনীতিবিদ ও কৃষিবিদ; প্রাক্তন এমপি;
  • শাজাহান খান ১৯৫২- - রাজনীতিবিদ; এমপি; প্রাক্তন মন্ত্রী;
  • আভা আলম ১৯৪৭-৭৬খ্রি. - সঙ্গীত শিল্পী; মরনোত্তর একুশে পদক১৯৭৮ স্বর্ণপদক প্রাপ্ত;
  • অসীম সাহা ১৯৪৯- - কবি ও ঔপন্যাসিক; বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার ২০১২ প্রাপ্ত; একুশে পদক ২০১৯ প্রাপ্ত;
  • বাশার মাহমুদ ১৯৫২- - কবি, সাহিত্যিক, নাট্যকার, সাংবাদিক, গবেষক;
  • মহিত খান - সঙ্গীত শিল্পী;
  • আলিমুদ্দিন আহম্মদ, খান সাহেব ১৮৯০ -১৯৫৭খ্রি. - মোক্তার ও বিশিষ্ট রাজনীতিবিদ;