Back

ⓘ ২০১৯-২০ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর




২০১৯-২০ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর
                                     

ⓘ ২০১৯-২০ বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের পাকিস্তান সফর

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল দুইটি টেস্ট ক্রিকেট এবং তিনটি টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক খেলার জন্য পাকিস্তান সফর করে, যা জানুয়ারি থেকে ফেব্রুয়ারি ২০২০-এ অনুষ্ঠিত হয়। এ সিরিজের টেস্ট খেলাগুলো নতুনভাবে শুরু হতে যাওয়া টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের অংশ হিসাবে গণ্য করা হবে।

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল পাকিস্তান সফর করছে না এমন বিষয়ের উপর উভয় দলের মধ্যে দীর্ঘ আলোচনাপর ১৪ জানুয়ারী ২০২০ তারিখে উভয় বোর্ডের সম্মতিতে সফরটি চূড়ান্ত করা হয়। সফর সূচীটি তিনটি পর্বে বিভক্ত করা হয়, যার টুয়েন্টি২০ আন্তর্জাতিক টি২০আই খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হবে জানুয়ারীতে লাহোরে, এর পর রাওয়ালপিন্ডিতে ফেব্রুয়ারির শুরুর দিকে অনুষ্ঠিত হবে প্রথম টেস্ট। অতপর বাংলাদেশ দল পুনরায় পাকিস্তানে ফিরবে এপ্রিলে, সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ও একমাত্র একদিনের আন্তর্জাতিক খেলতে, যেখানে সবগুলো খেলাই নির্ধারিত রয়েছে করাচীতে। মূলত ওডিআই খেলাটি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল আইসিসির পূর্ব নির্ধারিত সফরসূচীতে ছিল না।

টি২০আই সিরিজের তৃতীয় খেলাটি বৃষ্টি বিঘ্নিত হলে পাকিস্তান ২-০তে সিরিজে জয় পায়। পাকিস্তান টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচটি ১টি ইনিংস ব্যবধানে জিতে ১-০ তে সিরিজে লীড নেয়।

                                     

1. পটভূমি

২০১৯ এর নভেম্বরে, শ্রীলক্ষার সাথে নিজেদের ঘরের মাঠে টেস্ট খেলার আয়োজক হিসাবে অনুমতি চুক্তি পাওয়ার পর, পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড পিসিবি অনুরোধ জানায় যে, এই সিরিজটিও পাকিস্তানে খেলা হোক। যদিও কোন কোন খেলোয়াড় পাকিস্তানে তিন সপ্তাহের সফরের সম্মতি প্রদান করেছে। ডিসেম্বর ২০১৯ এ, পিসিবি প্রস্তাব রাখে, একটি মাত্র টেস্ট ম্যাচ হলেও দিন/রাতের সূচীতে করাচীতে অনুষ্ঠিত হোক। অতঃপর, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি প্রস্তাব করে যে, তারা টি২০আই সিরিজটি পাকিস্তানে খেলবে, এবং টেস্ট ম্যাচগুলোর জন্য নিরপেক্ষ ভেনুর প্রস্তাব করে। সফর সূচী ঘোষণার পূর্বে বিসিবি সরকারী পর্যায়ে নিরাপত্তা পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনের অপেক্ষায় আছে।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান এহসান মানি বিবৃতিতে বলেন যে, ভবিষ্যতে পাকিস্তান কোন নিরপেক্ষ মাঠে তাদের খেলাগুলো খেলতে চায় না। ১৪ ডিসেম্বর ২০১৯ তারিখে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেন, তিনি আশাবাদী ছিলেন যে, পাকিস্তান সফরে দল প্রয়োজনীয় নিরাপত্তা সহায়তা পাবে। অতঃপর, ১৮ ডিসেম্বর পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সিইও ওয়াসিম খান বলেন যে, বাংলাদেশ এখনো পাকিস্তানে টেস্ট খেলাগুলো খেলতে দ্বিধান্বিত, তারা শুধু টি২০আই ম্যাচগুলো খেলতে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। পাকিস্তান টেস্ট দলের অধিনায়ক আজহার আলী বলেন, "না আসার কোন অজুহাত দেখছি না", দলীয় কোচ মিসবাহ-উল-হক বিসিবির এ ধরনের দেরীকে "বড় ধরণের বিচারহীনতা" হিসাবে দেখছেন। শ্রীলঙ্কার বিপরীতে পাকিস্তানের মাটিতে সফলভাবে সমাপ্ত হওয়া টেস্ট ম্যাচগুলোকে এহসান মানি, ভবিষ্যতে বাংলাদেশ কিংবা অন্য যেকোন দেশের জন্য খেলার অনুকূল অবস্থান তৈরী করেছে বলে উল্লেখ করেন। বিসিবি কেবল টি২০আই সিরিজটি পাকিস্তানে খেলার সিদ্ধান্তে অনড়, এরপরেই তারা টেস্ট ম্যাচগুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবে।

৭ জানুয়ারি ২০২০ থেকে পাকিস্তান সফরের বিষয়ে বিসিবি তাদের খেলোয়াড়দের মতামত গ্রহণ করতে শুরু করে, এবং ১২ জানুয়ারি বিসিবির বোর্ড মিটিংয়েপর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আশা করা হচ্ছে। পরের দিন পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড পিসিবি জানুয়ারি ও ফেব্রুয়ারিতে ২টি টেস্ট খেলা অনুষ্ঠিত করার বিসিবির প্রস্তাবকে পুনঃবিবেচনা করে। পিসিবিও টি২০আই ম্যাচগুলো পরে ২০২০ আইসিসি টি২০ বিশ্বকাপ এর আগে খেলতে প্রস্তাব করে। বিসিবির বোর্ড মিটিংয়ের পর, বিসিবি নিশ্চিত করে যে, তাদের সরকার পাকিস্তান সফরে সম্মত আছে। মধ্য এশিয়ার ঝঞ্জাটকে নজরে রেখে তারা ব্যক্ত করে যে, এটি হবে একটি সংক্ষিপ্ত সফর শুধুমাত্র টি২০আই ম্যাচের জন্য। নাজমুল হাসান ঘোষণা করে যে, তিনি ১৩ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল আইসিসির চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহর এর সাথে সাক্ষাৎ করে টেস্ট ম্যাচ না খেলার বিষয়ে আলোচনা করতে দুবাই সফরে যাচ্ছেন। আইসিসির মিটিংয়েপর পরই বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করতে এহসান মানিও নাজমুল হাসানের সাথে সাক্ষাত করেন। পরের দিন উভয় বোর্ড তিনভাগে সফর সূচীটি সমাপ্ত করতে সম্মত হয়, যার শুরু হবে টি২০আই সিরিজের ৩টি খেলা দিয়ে। অতঃপর, বাংলাদেশ টি২০আই দলের উইকেট-রক্ষক মুশফিকুর রহিম জানায় যে, টি২০আই খেলতে পাকিস্তান সফরে তিনি দলের সাথে যাচ্ছেন না। সিরিজের জন্য কোচিং সদস্যদের ৫ জনও পাকিস্তান সফরে যাচ্ছেন না এমনটা বিসিবি নিশ্চিত করে। বিসিবি তাদের টি২০আই স্কোয়াড ঘোষণা করে ১৮ জানুয়ারী ২০২০, এবং পিসিবি খেলা পরিচালনা কর্মকর্তাদের নিয়োগ নিশ্চিত করে তিনদিন পর।

                                     

2.1. প্রথম পর্ব টি২০আই সিরিজের সারাংশ

বাংলাদেশ ক্রিকেট দল তাদের টি২০আই সিরিজের তিনটি ম্যাচ খেলতে পাকিস্তানে পৌছে ২২ জানুয়ারি ২০২০ তারিখে। এর আগে দলটি সর্বশেষ পাকিস্তান সফর করেছিল ২০০৮ এর এপ্রিলে। সিরিজের প্রথম ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয় ২৪ জানুয়ারি ২০২০, যেখানে পাকিস্তানের বাবর আজম প্রথমবারের মতো দেশের মাঠে টি২০আই ক্রিকেটে পাকিস্তান দলের অধিনায়কত্ব করেন। আহসান আলী ও হারিস রউফ উভয়েই পাকিস্তান দলের হয়ে টি২০আই ক্রিকেটে আত্মপ্রকাশ করে, যেখানে তাদের দলটি ঘরের মাঠে ৫ উইকেটে বিজয়ী হয়। এই জয়ের মধ্য দিয়েই ক্রিকেটের এই সংস্করণে পাকিস্তানের ছয় ম্যাচে ধারাবাহিক পরাজয়ের সমাপ্তি ঘটে। ২য় টি২০আই ম্যাচটি খেলা হয় পরবর্তী দিনে, যেখানে দেখা যায় বাবর আজম ও মোহাম্মদ হাফিজ এর অপরাজিত ১৩১ রানের জুটিতে পাকিস্তান ৯ উইকেটের জয় পায়। ফলে পাকিস্তান দল তিন ম্যাচ সিরিজে অপ্রতিরোধ্য জয়ের লীড নেয় এবং ২০১৮ সালের নভেম্বরে ৩-০ তে নিউজিল্যান্ডকে পরাজিত করাপর এটিই হচ্ছে তাদের প্রথম টি২০আই সিরিজ জয়। সিরিজের তৃতীয় ও শেষ ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে কোন বল মঠে না গড়িয়েই পরিত্যাক্ত হয়, ফলে পাকিস্তান ২-০তে সিরিজ জিতে নেয়। অক্টোবরে শ্রীলঙ্কার সাথে সিরিজ পরাজয়, ও নভেম্বরে অস্ট্রেলিয়া সফরের একটি সিরিজ পরাজয়ের পরও ২-০ ব্যবধানের এ জয় তাদেরকে আইসিসি টি২০আই চ্যাম্পিয়নশীপ র‍্যাংকিংয়ে প্রথম স্থানেই রাখে।

পাকিস্তান দলের অধিনায়ক বাবর আজম তার দলের বোলারদের উচ্চসিত প্রশংসা করে বলেন যে,"উভয় ম্যাচেই আমাদের বোলিং ছিল বেশ চমৎকার, যা বাংলাদেশ দলকে নিম্ন স্কোরে আটকে রাখতে আমাদেরকে সহায়তা করেছে।" বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ উভয় ম্যাচে পরাজিত হওয়ায় অসন্তুষ্ট হয়েছেন, তদুপরি পাকিস্তানের বোলারদের প্রশংসা করেছেন, "দ্বিতীয় ম্যাচটি তারা অতি সহজে জিতেছে, কারণ তাদের ভাল বোলিং সাইড রয়েছে। একই দিনের শেষের দিকে বাংলাদেশ দল পাকিস্তান ছেড়ে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে পাড়ি জমায়, এবং ১ম টেস্ট খেলার জন্য ৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ফিরে আসার জন্য নির্ধারিত রয়েছে।

                                     

3.1. দ্বিতীয় পর্ব প্রথম টেস্টের সারাংশ

On 1 February 2020, Pakistan named their squad for the Test match in Rawalpindi. Bilal Asif and Faheem Ashraf were recalled to the team, with Kashif Bhatti and Usman Shinwari being left out. Later the same day, Bangladesh also confirmed their squad for the first Test. Mustafizur Rahman was omitted from Bangladeshs squad due to poor performance, with Tamim Iqbal being recalled, after missing the series against India following the birth of his child. A day after the squads were named, Tamim Iqbal scored a triple century in the 2019–20 Bangladesh Cricket League, finishing with 334 not out, the highest score in first-class cricket by a Bangladeshi batsman. The Bangladesh team arrived in Rawalpindi on 5 February 2020. Bangladesh last played a Test match in Pakistan in September 2003. The same day, the ICC appointed the match officials for the first Test, with Nigel Llong and Chris Gaffaney named as the on-field umpires.

Pakistan won the toss and elected to field. Saif Hassan made his Test match debut for Bangladesh, but was dismissed for a duck. Bangladesh were dismissed for 233 runs late on day one, with Mohammad Mithun top-scoring with 66 runs and Pakistans Shaheen Afridi taking four wickets. In reply, Shan Masood and Babar Azam each scored centuries for the hosts. Pakistan finished day two with a lead of 109 runs, before bad light ended play early. Pakistan were bowled out just after lunch on day three for 445 runs, giving them a lead of 212. At the age of 16 years and 359 days, Pakistans Naseem Shah became the youngest bowler to take a hat-trick in Test cricket. He dismissed Najmul Hossain Shanto, Taijul Islam and Mahmudullah in successive deliveries in the 41st over of Bangladeshs second innings. Bangladesh ended day three on 126 for the loss of six wickets, 86 runs behind Pakistans first innings total. Bangladesh were bowled out before lunch on the fourth day, losing the match by an innings and 44 runs, with Yasir Shah and Naseem Shah taking four wickets each. Naseem Shah was named as the player of the match, with five wickets in the game, including a hat-trick.

Post-match, Pakistans captain Azhar Ali praised his fast bowlers saying that "the current Pakistani Test team should be led by its fast bowlers". He also praised wicket-keepers Mohammad Rizwan use of the review system, saying that they were proud of our reviews, after not being too good with them in the past. He also gave credit to the home pitches, and their higher scoring rate compare to playing in the UAE, saying that "the more runs you have under your belt, the higher your confidence is". In contrast, Bangladeshs captain Mominul Haque reflected on the teams poor batting, especially the low total made in the first innings on a flat wicket. He went on to say that the team should take inspiration from the Bangladesh under-19 team, who won the 2020 Under-19 Cricket World Cup the previous day. He said that the U19 team had "really fought back on the ground and we should learn from them".



                                     

4.1. তৃতীয় পর্ব তৃতীয় পর্বের সারাংশ

সফরের পূর্বে, বাংলাদেশ দলের মুশফিকুর রহিম পাকিস্তান সফরে তার পরিবার দুশ্চিন্তাগ্রস্থ হয়ে পড়ে, বিধায় পাকিস্তান সফরে সে যাচ্ছে না বলে জানায়। যদিও বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান, তাকে সফরে যুক্ত হতে আশা করছিলেন এবং তার সফরের অসম্মতি নিয়ে তিনি সমালোচনা করেন। নাজমুল হাসান বলেন যে, সে মুশফিক শেষ পর্বের করাচী সফরের জন্য চুক্তিবদ্ধ, কিন্তু এও যুক্ত করেন যে, "আমরা কাউকে জোর করে নিয়ে যেতে পারি না, আমার মনে হয় তার যাওয়া উচিত" ২০২০ এর ফেব্রুয়ারির শেষের দিকেও মুশফিক তার সিদ্ধান্তে অটল থাকেন, এবং বলেন, এটা পরিষ্কারভাবে জানিয়ে দেয়া হয়েছে যে সে যাচ্ছে না, এবং সে পাকিস্তানে যাবে না। ২০২০ এর মার্চে জিম্বাবুয়ে সিরিজের শেষ ও চূড়ান্ত ম্যাচের জন্য মুশফিককে বিশ্রামে পাঠানো হয়।

২০২০ এর ফেব্রুয়ারিতে সফররত জিম্বাবুয়েকে একমাত্র টেস্ট ম্যাচে একটি ইনিংস ও ১০৬ রানের ব্যবধানে পরাজিত করে। বাংলাদেশ টেস্ট দলের অধিনায়ক মমিনুল হক বলেন যে, এ জয়টি আমাদেরকে পাকিস্তানের সাথে খেলতে যাওয়া টেস্ট ম্যাচে অনুপ্রেরণা দেবে ও দলের জন্য সহায়ক হবে। ৪ মার্চ ২০২০ তারিখে পিসিবি বাংলাদেশকে টেস্টের জন্য অনুশীলনের অধিক সময় প্রদান করতে একমাত্র ওডিআই খেলাটিকে নির্ধারিত তারিখের দুদিন আগে সরিয়ে ৩ এপ্রিল ২০২০ এর পরিবর্তে ১ এপ্রিল ২০২০ এ নিয়ে আসে।

                                     
  • ব ল দ শ ক র ক ট র এব ব ল দ শ জ ত য দল র ত ন ফরম যট ত ন ব ল দ শ জ ত য দল র অধ ন য ক ছ ল ন স প ট ম বর থ ক রহ ম জ ত য দল র অধ ন য ক ন র ব চ ত
  • অস ট র ল য ক র ক ট দল র ভ রত সফর এ প ন একদ বস য ত ত ন র ন র দ রন ত ইন স খ ল ন অস ট র ল য র জয আস এই ম য চ - অস ট র ল য ক র ক ট দল র ভ রত
  • ম হ র ফ শ র লঙ ক ন ট স ট ক র ক ট রদ র ত ল ক - শ র লঙ ক ক র ক ট দল র ব ল দ শ সফর শ র লঙ ক ন একদ ন র আন তর জ ত ক ক র ক ট রদ র ত ল ক ইএসপ এনক র কইনফ ত
  • এল ক য জন মগ রহণক র অস ট র ল য আন তর জ ত ক ক র ক ট র অস ট র ল য ক র ক ট দল র অন যতম সদস য ত ন - এর দশক র ম ঝ ম ঝ সময ক ল থ ক অস ট র ল য র
  • ক র ক ট ব শ বক প ফ ফ কনফ ড র শন স ক প ন উজ ল য ন ড ক র ক ট দল র ই ল য ন ড সফর India to play Pakistan in Champions Trophy CricInfo ESPN
  • ন বল ত র ক ছ আস স ল ধ ন ত র ব যক ত গত ম ওড আইয প ক স ত ন জ ত য ক র ক ট দল র ব পক ষ র ন কর ন, য ভ রত য ক র ক ট উইক ট - রক ষকদ র মধ য
  • এল ক য জন মগ রহণক র জ ম ব ব য য আন তর জ ত ক ক র ক ট র জ ম ব ব য ক র ক ট দল র অন যতম সদস য ত ন স ল থ ক জ ম ব ব য র পক ষ আন তর জ ত ক ক র ক ট
  • জন মগ রহণক র ট স ট ক র ক ট রদ র ত ল ক ই ল য ন ড ক র ক ট দল র আয রল য ন ড সফর ক র ক ট প রব শদ ব র ইএসপ এনক র কইনফ ত ইয ন মর গ য ন ই র জ ক র ক টআর ক ইভ

Users also searched:

...