Back

ⓘ মালিকা-ই-জাহান (আলাউদ্দিন খিলজির স্ত্রী)




                                     

ⓘ মালিকা-ই-জাহান (আলাউদ্দিন খিলজির স্ত্রী)

মালিকা-ই-জাহান ছিলেন দিল্লির সুলতান আলাউদ্দিন খিলজির প্রথম ও প্রধান স্ত্রী। তিনি ছিলেন আলাউদ্দিন খিলজির চাচা জালালউদ্দিন খিলজির মেয়ে, যিনি খিলজি সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।

                                     

1. পরিবার ও বংশ পরিচিতি

মালিকা-ই-জাহান ছিলেন খিলজি সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা সুলতান জালালউদ্দিন খিলজির মেয়ে। তার মায়ের উপাধিও ছিল মালিকা-ই-জাহান, যিনি জালালউদ্দিন খিলজির প্রধান স্ত্রী ছিলেন। তিনি ছিলেন উচ্চাকাঙ্ক্ষী নারী এবং জালালউদ্দিন খিলজির উপরে তার বিস্তর প্রভাব ছিল।

মালিকা-ই-জাহানের তিন ভাইয়ের নাম জানা যায়। তারা হলেন, খান-ই-খান, আরকালি খান ও কদর খান।

আলাউদ্দিন খিলজি সম্পর্কে তার চাচাতো ভাই হতেন। তিনি ছিলেন জালালউদ্দিন খিলজির বড় ভাই শাহাবুদ্দিন মাসুদের ছেলে। শাহবুদ্দিন মাসুদের মৃত্যু হলে জালালউদ্দিন খিলজির নিকট আলাউদ্দিন খিলজি বেড়ে ওঠেন। তার ছোট ভাই আলমাস বেগ তার মতই আলাউদ্দিন খিলজির এক মেয়েকে বিয়ে করেছিলেন।

                                     

2. বিবাহ

মালিকা-ই-জাহান দিল্লির বুকে খিলজি সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠার বহু পূর্বে আলাউদ্দিন খিলজির সাথে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। আলাউদ্দিন খিলজি বিয়েপর উপরের দিকে উঠতে থাকেন। জালালউদ্দিন খিলজি ১২৯০ সালে দিল্লির সিংহাসনে অধিষ্ঠিত হলে তিনি আমির-ই-তুজুগ পদে অধিষ্ঠিত হন। তাদের মধ্যকার বৈবাহিক জীবন সুখের ছিল না। মালিকা-ই-জাহান সুলতানের মেয়ে বলে গর্বপ্রকাশ করতেন। ফলশ্রুতিতে তার এবং তার স্বামীর মাঝে শীতল সম্পর্ক বিদ্যমান ছিল।

একদিন আলাউদ্দিন খিলজি ও তার দ্বিতীয় স্ত্রী মাহরু বাগানে হাঁটছিলেন। তখন মালিকা-ই-জাহান মাহরুকে আক্রমণ করেন। রাগের মাথায় আলাউদ্দিন খিলজি মালিকা-ই-জাহানকে প্রহার করেন। ঘটনাটি জালালউদ্দিন খিলজির কানে পৌঁছালেও তিনি আলাউদ্দিন খিলজির বিরুদ্ধে কোন ব্যবস্থা নেন নি।

আলাউদ্দিন খিলজির সাথে তার শাশুড়িরও শীতল সম্পর্ক ছিল। তিনি জালালউদ্দিন খিলজির কাছে অভিযোগ করেছিলেন যে, আলাউদ্দিন খিলজি খিলজি সাম্রাজ্যের দূরবর্তী প্রান্তে নিজস্ব স্বাধীন সাম্রাজ্য প্রতিষ্ঠা করতে চায়।

সুলতানের উপরে তার শাশুড়ির বিস্তর প্রভাব ছিল বলে আলাউদ্দিন খিলজি কখনো সুলতানের কাছে তার স্ত্রীর নামে অভিযোগ জানান নি। ১২৯৬ সালে জালালউদ্দিন খিলজিকে হত্যা করে আলাউদ্দিন খিলজি নিজেকে দিল্লির নতুন সুলতান বলে ঘোষণা করেন। মালিকা-ই-জাহান কখনো তার বাবাকে হত্যা করার জন্য আলাউদ্দিন খিলজিকে মাফ করেন নি।

                                     

3. জনপ্রিয় সংস্কৃতিতে

অদিতি রাও হায়দারী মালিকা-ই-জাহানের ভূমিকায় সঞ্জয় লীলা বনশালির চলচ্চিত্র পদ্মাবত ২০১৮ - এ অভিনয় করেছিলেন, যেখানে তার চরিত্রের নাম ছিল মেহেরুন্নিসা।