Back

ⓘ লর্ড ডিস্কোগ্রাফি




লর্ড ডিস্কোগ্রাফি
                                     

ⓘ লর্ড ডিস্কোগ্রাফি

নিউজিল্যান্ডের সঙ্গীতশিল্পী এবং সঙ্গীত-রচয়িতা লর্ড এখন পর্যন্ত দুইটি স্টুডিও অ্যালবাম, তিনটি ইপি, আটটি একক এবং সাতটি মিউজিক ভিডিও প্রকাশ করেছেন। ১৩ বছর বয়সে ইনিভার্সাল মিউজিক গ্রুপের সাথে চুক্তিবদ্ধ হন এবং গান লেখা শুরু করেন। নভেম্বর ২০১২-তে ১৬ বছর বয়সে, তিনি সাউন্ড ক্লাউডের মাধ্যমে স্বপ্রকাশিত ইপি দ্য লাভ ক্লাব মুক্তি দেন। ২০১৩ সালের মার্চে এই ইপিটি বিক্রির জন্য ইউনিভার্সাল মিউজিক গ্রুপের মাধ্যমে প্রকাশিত হয়; ঐ ইপির একটি গান রয়্যালস ২০১৩ সালের শুরুর দিকে নিউজিল্যান্ডে হিট পায়। এর পরের বছর গানটি ইউএস বিলবোর্ড হট-১০০ সহ বিভিন্ন আন্তর্জাতিক চার্টে জায়গা করে নেয়। লর্ড হলেন ইউএস বিলবোর্ড হট-১০০ এ প্রথম স্থান দখলকারী নিউজিল্যান্ডের প্রথম সোলো শিল্পী।

২০১৩ সালে লর্ড তার প্রথম স্টুডিও অ্যালবাম পিওর হিরোয়িন মুক্তি দেন, যাতে রয়্যালস ও সংযুক্ত ছিল। নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ান চার্টে এটি প্রথম স্থান অধিকার করে এবং অনেকগুলো দেশে সার্টিফিকেশন অর্জন করে। ঐ অ্যালবামের দ্বিতীয় গান হিসেবে টেনিস কোর্ট প্রকাশিত হয়, যা নিউজিল্যান্ড সিঙ্গেলস চার্টে শীর্ষস্থান অর্জন করে। ঐ অ্যালবামের তৃতীয় একক টিম নিউজিল্যান্ড, কানাডা এবং যুক্তরাষ্ট্রে টপ টেন হিটের মর্যাদা লাভ করে। নো বেটার এবং গ্লোরি অ্যান্ড গ্লোর যথাক্রমে অ্যালবামের চতুর্থ ও পঞ্চম একক হিসেবে মুক্তি পায়। ২০১৪ সালের সেপ্টেম্বরে লর্ড সাউন্ডট্রাক অ্যালবাম থেকে মুল একক হিসেবে দ্য হাঙ্গার গেম: মকিংজে-১ চলচচ্চিত্রের জন্য ইয়েলো ফ্লিকার বিট গানটি প্রকাশ করেন। ২০১৪ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত লর্ড যুক্তরাষ্ট্রে ৬.৮ মিলিয়ন ট্র্যাক, এবং নভেম্বর ২০১৪ অনুযায়ী বিশ্বব্যপী ১৭ মিলিয়ন গান বিক্রি করেন।