Back

ⓘ বাগমতী প্রদেশ




বাগমতী প্রদেশ
                                     

ⓘ বাগমতী প্রদেশ

বাগমতী প্রদেশ নেপালের নতুন সংবিধান অনুসারে গঠিত সাতটি প্রদেশের অন্যতম। ২০১৫ সালের ২০ সেপ্টেম্বর এই প্রদেশ গঠিত হয়। নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডু এই প্রদেশেই অবস্থিত। বাগমতী প্রদেশের উত্তরে চীনের তিব্বত স্বায়ত্তশাসিত অঞ্চল, পূর্বে প্রদেশ নং ১, পশ্চিমে গণ্ডকী প্রদেশ এবং দক্ষিণে প্রদেশ নং ২ ও ভারতের বিহার রাজ্য অবস্থিত। ২০১৮ সালের ১৭ জানুয়ারি মন্ত্রীসভার বৈঠকে হেটৌডাকে প্রদেশের অস্থায়ী রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করা হয়। ২০২০ সালের জানুয়ারিতে সংখ্যাগরিষ্ঠের ভোটে প্রদেশ নং ৩ এর নামকরণ করা হয় বাগমতী প্রদেশ ।

                                     

1. ভূ-প্রকৃতি ও জলবায়ু

এই প্রদেশের ভূ-প্রকৃতি পার্বত্য অঞ্চলময়। সুউচ্চ গৌরীশঙ্কর, লাংতাং, জুগাল ও গণেশ পর্বত এ প্রদেশে অবস্থিত। প্রদেশের আয়তন ২০,৩০০ বর্গ কিলোমিটার, যা নেপালের মোট আয়তনের প্রায় ১৪%। সমুদ্রপৃষ্ঠ থেকে ভূমির উচ্চতা পর্ণমোচী, সরলবর্গীয় বন ও আলপাইন বনের জন্য সহায়ক। সমুদ্র-পৃষ্ঠ থেকে উচ্চতার উপরে তাপমাত্রা নির্ভর করে। সাধারণত গ্রীষ্মকালে বৃষ্টিপাত হয়।

                                     

2. সরকার ও প্রশাসন

নেপালের নতুন সংবিধান অনুসারে প্রদেশ নং ৩ এর প্রধান প্রশাসনিক কর্মকর্তা হলেন গভর্নর, প্রদেশ সরকারের প্রধান হলেন মুখ্যমন্ত্রী এবং প্রদেশের বিচার বিভাগের প্রধান হলেন পাটন উচ্চ আদালতের প্রধান বিচারপতি। প্রদেশ নং ৩ এর বর্তমান গভর্নর অনুরাধা কৈরালা, মুখ্যমন্ত্রী ডোরমনি পৌডেল এবং পাটন উচ্চ আদালতের প্রধান বিচারপতি হলেন টেক বাহাদুর মোকতান প্রদেশ নং ৩ এর প্রদেশ সভার আসন সংখ্যা ১১০টি। কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি সভার ৩৫ জন সদস্য এই প্রদেশ থেকে নির্বাচিত হন।

অন্যান্য প্রদেশের মতো, প্রদেশ নং ৩ এর প্রদেশ সভা এক কক্ষবিশিষ্ট। প্রতিটি প্রদেশ সভার মেয়াদ পাঁচ বছর। প্রদেশ সভার অস্থায়ী কার্যালয় হেটৌডার আঞ্চলিক শিক্ষা অধিদপ্তরে অবস্থিত।

                                     

3. প্রশাসনিক বিভাগসমূহ

প্রদেশ নং ৩ এ মোট তেরোটি জেলা রয়েছে। প্রতিটি জেলার প্রশাসনিক দায়িত্ব পালন করেন জেলা সমন্বয় সমিতির প্রধান ও জেলা প্রশাসন কর্মকর্তা। প্রতিটি জেলাকে আবার নগর ও গ্রামপালিকায় বিভক্ত করা হয়েছে। প্রদেশ নং ৩-এ একটি মহানগর, একটি উপ-মহানগর, ৪১টি নগর ও ৭৪ টি গ্রামপালিকা রয়েছে।

প্রদেশ নং ৩ এর জেলাসমূহ হলো:

  • রসুয়া জেলা
  • ভক্তপুর জেলা
  • সিন্ধুপালচোক জেলা
  • চিতবন জেলা
  • রামেছাপ জেলা
  • মকবানপুর জেলা
  • কাভ্রেপলাঞ্চোক জেলা
  • দোলখা জেলা
  • কাঠমান্ডু জেলা
  • নুয়াকোট জেলা
  • ধাদিঙ জেলা
  • ললিতপুর জেলা
  • সিন্ধুলী জেলা
                                     

4. জনসংখ্যার উপাত্ত

প্রদেশ নং ৩ জনসংখ্যার দিক থেকে নেপালের সর্ববৃহৎ প্রদেশ। নেওয়ার, তামাং, শেরপা, থারু, চেপাং, জিরেল, ব্রাহ্মণ, ছেত্রী প্রভৃতি বৈচিত্র‍্যময় সংস্কৃতির জাতিসত্তার মানুষ এখানে বাস করে। ২০১৭ সালের প্রতিনিধি সভা ও প্রদেশ সভা নির্বাচনে এই প্রদেশ থেকে সর্বাধিক সংখ্যক ভোটার অংশ নেয়।

সাধারণত জেলার বা শহরের নামানুসারে প্রদেশের অধিবাসীদের বিশেষায়িত করা হয়। তবে সমগ্র প্রদেশকে নির্দেশ করতে নেপালমন্ডলী নামটি ব্যবহৃত হয়।