Back

ⓘ দিয়ারিওস দে মোতোসিক্লেতা




                                     

ⓘ দিয়ারিওস দে মোতোসিক্লেতা

দিয়ারিওস দে মোতোসিক্লেতা লাতিন আমেরিকার বিপ্লবী নেতা চে গেভারার লেখা একটি বই।

১৯৫২ সালে এর্নেস্তো গেভারা তখনো তিনি "চে" নামটি নেন নি ছিলেন শিক্ষানবীশ চিকিৎসক। তিনি ও তাঁর বন্ধু আলবের্তো গ্রানাদো লা পেদারোসা একটি মোটরসাইকেল নিয়ে বেরিয়ে পড়েন আর্জেন্টিনার বুয়েনোস আইরেস থেকে। তাঁদের উদ্দেশ্য ছিল লাতিন আমেরিকা ঘুরে দেখা। আর্জেন্টিনা-র আটলান্টিক উপকূল ধরে আন্দেস পর্বতমালা পার হয়ে চিলি, সেখান থেকে পেরু, কলম্বিয়া ও শেষে ভেনেজুয়েলার কারাকাস নগরীতে পৌঁছান। এক বছরের অধিক সময় তারা পরিভ্রমণ করেন লাতিন আমেরিকার আনাচে কানাচে। প্রায় ১২,০০০ মাইল পথ পাড়ি দেন। চরম দারিদ্র্যের মধ্যে বেঁচে থাকা কৃষকদের দেখে তিনি অভিভূত হন। এই ভ্রমণের অভিজ্ঞতা সঞ্চিত করা দিনলিপিতে তিনি লেখেন, মানব সত্ত্বার ঐক্য ও সংহতির সর্বোচ্চ রূপটি এসকল একাকী ও বেপরোয়া মানুষদের মাঝে জেগে উঠেছে "। এই ভ্রমণের মাধ্যমে এর্নেস্তো গেভারা লাতিন আমেরিকার সাধারণ মানুষের দারিদ্র্য ও দুঃখ-কষ্ট নিজ চোখে দেখতে পান এবং তার বিপ্লবী রাজনৈতিক চেতনা ধীরে ধীরে জেগে উঠতে থাকে। তার এই দিনলিপিমূলক গ্রন্থ পরবর্তীতে নিউ ইয়র্ক টাইমস -এর বেস্ট সেলার তালিকায় স্থান পায় এবং পরে একই নামে The Motorcycle Diaries চলচ্চিত্র বের হয় যা পুরস্কৃত হয়েছিল। এই অভিযানে তার সাথী ছিলেন আলবের্তো গ্রানাদো, যিনি ছিলেন চের বন্ধু ও পেশায় কুষ্ঠরোগ বিশেষজ্ঞ।

                                     

1. চলচ্চিত্রায়ন

মোটর সাইকেল ডায়েরিজ ২০০৪ সালে একটি চলচ্চিত্রে রূপায়িত হয়। মেক্সিকোর প্রতিভাবান অভিনেতা গেল গার্সিয়া বের্নাল গেভারা-র চরিত্রে ও রোদ্রিগো দে লা সের্না আলবের্তোর চরিত্রে অভিনয় করেন।

                                     

2. প্রাক অভিযান

১৯৪৮ সাল থেকে শুরু করা গেভারার চিকিৎসা বিষয়ক পড়ালেখা করার সময় তিনি লাতিন আমেরিকার বিভিন্ন দেশ ভ্রমণে দীর্ঘ সময় ব্যয় করেছেন। ১৯৫০ সালে তিনি প্রথম সমুদ্র ভ্রমণের উদ্যোগ নেন। তিনি সাধারণ একটি সাইকেল নিয়ে আর্জেন্টিনার উত্তরাঞ্চলের প্রায় ৪৫০০০কি.মি ২৮০০০মাইল এলাকা ভ্রমণ করেন। এ ভ্রমণকালে তিনি সেইসব এলাকার মানুষের চরম দরিদ্রতা, দারিদ্র এবং তাদের বিভিন্ন রোগের বিশেষ করে কুষ্ঠ রোগ পর্যবেক্ষণ করেন। তারপর তিনি সান ফ্রান্সিসকোতে তার বন্ধু আলবের্তো গ্রানাদোর কাছে যান, তারা উভয়েই সেখানে কুষ্ঠ রোগ নিরাময় কেন্দ্রে ছুটে যান।

এই ভ্রমণের ফলে তিনি ঐ অঞ্চলের মানুষের দুঃখ দুর্দশা কষ্ট বিপুল ভাবে পর্যবেক্ষন করতে পেরে ছিলেন। যার ফলস্বরূপ তার মধ্যে বিপ্লব চেতনার সঞ্চার হয়েছিল এবং মানুষের মুক্তির কথা তাকে ভাবিয়ে তুলেছিল।

                                     

3. তথ্যসূত্র

  • On the Trail of the Young Che Guevara
  • Letter from the Americas; Che Today? More Easy Rider Than Revolutionary by Larry Rohter, The New York Times, May 26, 2004