Back

ⓘ স্যামুয়েল গোল্ডউইন জুনিয়র




                                     

ⓘ স্যামুয়েল গোল্ডউইন জুনিয়র

স্যামুয়েল জন গোল্ডউইন জুনিয়র ছিলেন একজন মার্কিন চলচ্চিত্র প্রযোজক। তিনি চলচ্চিত্র প্রযোজক স্যামুয়েল গোল্ডউইন এবং অভিনেত্রী ফ্রান্সেস হাওয়ার্ডের পুত্র। অভিনেতা টনি গোল্ডউইন ও স্টুডিও নির্বাহী জন গোল্ডউইন তার পুত্র। তিনি চলচ্চিত্র প্রযোজনা কোম্পানি ফরমোজা প্রডাকশন্স, দি স্যামুয়েল গোল্ডউইন কোম্পানি এবং স্যামুয়েল গোল্ডউইন ফিল্মস প্রতিষ্ঠাতা।

                                     

1. জীবনী

মৃত্যু

গোল্ডউইন ২০১৫ সালের ৯ই জানুয়ারি কনজেস্টিভ হার্ট ফেইলারে আক্রান্ত হয়ে ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসের সিডার্স-সিনাই মেডিক্যাল সেন্টারে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।

                                     

1.1. জীবনী কর্মজীবন

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীতে কাজ করাপর তিনি লন্ডনে মঞ্চ প্রযোজক হিসেবে এবং নিউ ইয়র্কের এডওয়ার্ড আর. মুরোর অধীনে সিবিএসে কাজ করেন। তিনি পরবর্তীতে তার পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে চলচ্চিত্র প্রযোজনা কোম্পানি ফরমোজা প্রডাকশন্স, দি স্যামুয়েল গোল্ডউইন কোম্পানি এবং স্যামুয়েল গোল্ডউইন ফিল্মস প্রতিষ্ঠা করেন।

                                     

1.2. জীবনী ব্যক্তিগত জীবন

১৯৫০ সালে গোল্ডউইন জেনিফার হাওয়ার্ডকে ১৯২৫-১৯৯৩ বিয়ে করেন। হাওয়ার্ড ছিলেন একজন অভিনেত্রী এবং প্রখ্যাত লেখক ও চিত্রনাট্যকার সিডনি হাওয়ার্ডের কন্যা। তাদের চার সন্তান জন্মগ্রহণ করে, তাদের মধ্যে রয়েছে স্টুডিও নির্বাহী জন, ফ্রান্সিস, অভিনেতা টনি ও ক্যাথরিন। ১৯৬৮ সালে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। গোল্ডউইন ১৯৬৯ সালে পেগি এলিয়টকে বিয়ে করেন। এই দম্পতির দুই সন্তান জন্মগ্রহণ করে, তারা হলেন পুত্র পিটার এবং কন্যা এলিজাবেথ। ২০০৫ সালে তাদের বিবাহবিচ্ছেদ হয়। ২০১০ সালে তিনি প্যাট্রিশিয়া স্ট্রনকে বিয়ে করেন।

                                     

1.3. জীবনী মৃত্যু

গোল্ডউইন ২০১৫ সালের ৯ই জানুয়ারি কনজেস্টিভ হার্ট ফেইলারে আক্রান্ত হয়ে ক্যালিফোর্নিয়ার লস অ্যাঞ্জেলেসের সিডার্স-সিনাই মেডিক্যাল সেন্টারে মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৮ বছর।