Back

ⓘ ভের্নার কার্ল হাইজেনবের্গ




ভের্নার কার্ল হাইজেনবের্গ
                                     

ⓘ ভের্নার কার্ল হাইজেনবের্গ

ওয়ার্নার কার্ল হাইজেনবার্গ ছিলেন একজন জার্মান তাত্ত্বিক পদার্থবিদ এবং কোয়ান্টাম বলবিদ্যার উদ্ভাবক। ১৯২৫ সালে ম্যাক্স বর্ন ও পাসকুয়াল জর্ডানের সাথে মিলে হাইজেনবার্গ কোয়ান্টাম বলবিদ্যার ম্যাট্রিক্স ভিত্তিক ব্যাখ্যা প্রদান করেন। তিনি অনিশ্চয়তা নীতির জন্য বিখ্যাত, যা ১৯২৭ সালে প্রকাশিত হয়। কোয়ান্টাম বলবিদ্যার আবিষ্কারক হিসাবে এবং এর ব্যবহারিক প্রয়োগ হিসাবে হাইড্রোজেনের বহুরূপতা আবিষ্কারে অবদান রাখার জন্য হাইজেনবার্গকে ১৯৩২ সালে পদার্থবিদ্যায় নোবেল পুরস্কার দেয়া হয়।

জলবিদ‍্যূতের উত্তাল প্রবাহ, পারমাণবিক নিউক্লিয়াস, ফেরোম্যাগনেটিজম, কসমিক রে, এবং আণবিক কণা নিয়ে তাঁর কাজ অনস্বীকার্য। দ্বিতীয়য় বিশ্বযুদ্ধের সময় তিনি নাৎসি জার্মান পারমাণবিক অস্ত্র প্রকল্পের প্রধান বিজ্ঞানী ছিলেন।

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধেপর তিনি কেইসার উইলহেল্ম ইন্সটিটিউট ফর ফিসিক্স - এর ডিরেক্টর হিসেবে নিযুক্ত হন, যে সংস্থা পরবর্তীকালে ম‍্যাক্স প্ল‍্যাঙ্ক ইন্সটিটিউট ফর ফিসিক্স নামে পরিচিত হয়।

পরবর্তীকালে ১৯৬০-১৯৭০ তিনি ম‍্যাক্স প্ল‍্যাঙ্ক ইন্সটিটিউট ফর ফিসিক্স্ অ‍্যান্ড অ্যাস্ট্রোফিজিক্স এর ডিরেক্টর হন।

হাইজেনবার্গ্গ জার্মান রিসার্চ কাউন্সিলের সভাপতি ছিলেন, পারমাণবিক পদার্থবিজ্ঞান কমিশনের চেয়ারম্যান, পারমাণবিক পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান এবং আলেকজান্ডার ভন হ্যাম্বোল্ট ফাউন্ডেশনের সভাপতি ছিলেন। ~~~ উচ্ছ্বাস বসু

                                     

1. প্রাথমিক জীবন

হাইজেনবার্গের জন্ম জার্মানিতে। তিনি মিউনিখ বিশ্ববিদ্যালয়ে আর্নল্ড সামারফেল্ড ও ভিলহেল্ম ভিনের কাছে পদার্থবিজ্ঞান অধ্যয়ন করেন। এরপর তিনি গ্যোটিঙেন বিশ্ববিদ্যালয়ে ডাভিড হিলবের্ট ও ম্যাক্স বর্নের তত্ত্বাবধানে পড়াশোনা করেন।

                                     

2. কোয়ান্টাম পদার্থবিজ্ঞান

১৯২৪ সালে নিল্‌স বোরের সাথে তিনি কোয়ান্টাম বলবিজ্ঞানের উপর কাজ শুরু করেন, যা শেষ হয় ১৯২৬ সালে দুর্বোধ্য "মেট্রিক্স বলবিজ্ঞান"-এর প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে। পরবর্তীতে বিশেষত পল ডিরাক, ভোল্‌ফগাং পাউলি, প্রমুখের প্রচেষ্টায় কোয়ান্টাম বলবিজ্ঞানের স্পষ্টতর ব্যাখ্যা প্রতিষ্ঠিত হয়, যদিও তাত্ত্বিকভাবে নতুন এই বলবিজ্ঞান হাইজেনবের্গের মেট্রিক্স উপায়ের সমার্থক। অবশ্য হাইজেনবার্গ তার নিজস্ব তাত্ত্বিক কাঠামোর মধ্যেই অনিশ্চয়তা সূত্রটি প্রমাণ করেন।