Back

ⓘ হ্যারি পটার প্রিকুয়েল




                                     

ⓘ হ্যারি পটার প্রিকুয়েল

হ্যারি পটার প্রিকুয়েহল জে. কে. রাউলিং এর লেখা ৮০০ শব্দের শিরোনামহীন একটি ছোটগল্প, যা একটি দাতব্য নিলাম অনুষ্ঠানের অংশ হিসেবে লিখিত হয়েছিল। ছোটগল্পটি মূলত অনানুষ্ঠানিকভাবেই হ্যারি পটার প্রিকুয়েল নামে পরিচিত হয়। নিলামশেষে এটি মোট £২৫,০০০ সংগ্রহ করে। এ গল্পে হ্যারি পটার সিরিজের ঘটনাবলির আগে সংঘটিত একটি ঘটনা বর্ণিত হয় যাতে সিরিয়াস ব্ল্যাক ও জেমস পটার মাগল পুলিশের সম্মুখীন হয়েছিল। ২০১৭ সালে এর পাণ্ডুলিপি চুরি হয়।

                                     

1. পটভূমি

১১ই জুন ২০০৮ সালে ওয়্যারস্টোনস "হোয়াটস ইয়োর স্টোরি?" নামে একটি দাতব্য অনুষ্ঠান আয়োজন করে। এতে নিলামে তোলার উদ্দেশ্যে রাউলিংসহ ১৩ জন লেখককে এ৫ কার্ডে গল্প লেখার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়। প্রাপ্ত আয় ইংলিশ পেন ও ডিসলেক্সিয়া অ্যাকশনের কাছে যায়। টোকিও-ভিত্তিক বিনিয়োগ-ব্যাংকিং পরামর্শকারী সংস্থা রেড-৩৩ এর সভাপতি হিরা ডিগপালের কাছে রাউলিংয়ের কার্ডটি £২৫,০০০ মূল্যে বিক্রি হয়। ১৩টি কার্ড বিক্রি করে সর্বমোট £৪৭,১৫০ তোলা হয়।

                                     

2. উৎপত্তি ও প্রকাশনার সংক্ষিপ্ত ইতিহাস

দুইজন মাগল পুলিশ একটি দ্রুতগামী মোটরবাইককে ধাওয়া করে এর আরোহী সিরিয়াস ব্ল্যাক ও জেমস পটারকে একটি কানাগলিতে কোণঠাসা করে ফেলে। পুলিশেরা এই জুটির মুখোমুখি হতেই তিনজন লোক ঝাড়ুলাঠিতে করে গলিতে উড়ে আসে। জেমস ও সিরিয়াস জাদুকরীভাবে পুলিশদের গাড়ি উঠিয়ে ফেলাতে ঝাড়ুলাঠিগুলোর সাথে এর সংঘর্ষ ঘটে এবং এদের যাত্রীরা অচেতন হয়ে পরে। পুলিশেরা ভয়ে একে অপরকে আঁকড়ে ধরতেই সিরিয়াস ও জেমস তাদের মোটরবাইকে ফিরে উড়ে চলে যায়।

রাউলিং তাঁর গল্পের কার্ডটির সমাপ্তি টানেন এই শব্দগুলোর মাধ্যমে, "যে প্রিকুয়েলটি নিয়ে আমি কাজ করছি না, তা থেকে - তবে এটি মজার ছিল!"

                                     

3. চুরি

২০১৭ সালের এপ্রিলে বার্মিংহামে একটি চুরির ঘটনায় প্রিকুয়েলটির পাণ্ডু‌লিপিও চুরি হয়। কেনার প্রস্তাব পেলেও যেন ভক্তরা এটা না কেনে এমন আহ্বান জানিয়ে ঘটনাটির সম্পর্কে টুইট করেন রাউলিং, এবং ওয়েস্ট মিডল্যান্ডস পুলিশ তথ্যের জন্য আবেদন জানায়।

চুরির শিকার ব্যক্তি কেবল হিরা নামে পরিচিত বিবিসিকে বলেন যে কাজটি ছিল "অমূল্য" এবং পুনরায় বৈধভাবে এটিকে বিক্রি করা হলে আরও ভালো উদ্দেশ্যের জন্য অর্থ তোলার সম্ভাবনা ছিল।

তিনি বলেন, "আমার মনে হয় না এটাকে যেই নিয়েছে বা চুরি করেছে অথবা এটিকে যে কিনতে পারে তারা মানুষের প্রতি এর উপকারি ভূমিকা অথবা এটি কী করতে পারে তা প্রকৃত অর্থে বুঝতে পারবে। যদি এটি ধ্বংস হয়ে যায় বা হারিয়ে যায়, এটি একটি বিরাট ক্ষতি।"