Back

ⓘ ২০১৪ শার্শা গণধর্ষণ




                                     

ⓘ ২০১৪ শার্শা গণধর্ষণ

২০১৪ সালের ২১ অক্টোবর রাত ৮টার দিকে যশোর শহরের বাসিন্দা এক তিন সন্তানের জননী ৩৫ তার ছোট মামাতো ভাইয়ের সঙ্গে মোটরসাইকলে করে যশোর থেকে শার্শা উপজেলার ভবানীপুরে এক খালাতো বোনের বাড়ি যাচ্ছিলেন। তাদের মোটরসাইকেলটি নাভারণ-সাতক্ষীরা সড়কের কুচেমোড়ায় পৌঁছালে আট-দশজন দুর্বৃত্ত দড়ি টানিয়ে রাস্তা আটকায়। পরে তাদের ধরে মাঠের মধ্যে নিয়ে একজনের সঙ্গে অন্যজনকে পিঠমোড়া করে বাঁধে। দুজনেরই মুখ ও চোখ বেঁধে দেয় দুর্বৃত্তরা। ওই অবস্থায় একে একে সাতজন ঐ নারীকে গণধর্ষণ করে। দুর্বৃত্তরা মোটরসাইকেল ও তাদের সঙ্গে থাকা স্বর্ণালংকারও নিয়ে যায়। রাত দুটো পর্যন্ত ঐ নারীর ওপর নির্যাতন চালানোপর দুর্বৃত্তরা তাদের মাঠের মধ্যে ফেলে রেখে চলে যায়। পরে তার মামাতো ভাই অতিকষ্টে বাঁধন খুলে ঐ নারীকে নাভারণের একটি ক্লিনিকে নিয়ে যান। আজ দুপুরে তাকে নাভারণ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখান থেকে তাকে যশোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।