Back

ⓘ গোপালচন্দ্র মুখোপাধ্যায়




গোপালচন্দ্র মুখোপাধ্যায়
                                     

ⓘ গোপালচন্দ্র মুখোপাধ্যায়

গোপালচন্দ্র মুখোপাধ্যায়, জনপ্রিয়ভাবে গোপাল পাঁঠা নামে পরিচিত, ইনি একজন ভারতীয় ব্যবসায়ী যিনি ১৯৪৬ সালে বৃহত্তর কলকাতা হত্যাকান্ডের সময় মুসলিম লীগের আক্রমণ থেকে হিন্দুদের রক্ষা করার জন্য সশস্ত্র ভারতীয় জাতীয় বাহিনী গড়ে তোলার জন্য পরিচিত ছিলেন ।

                                     

1. প্রাথমিক জীবন এবং কর্মজীবন

গোপাল কলকাতার বউবাজারের মালাঙ্গা লেনের একটি বাঙালি হিন্দু পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি বিপ্লবী অনুকূলচন্দ্র মুখোপাধ্যায়ের ভাগ্নে ছিলেন। শৈশবকালে, তিনি ডাক নাম পাঁঠা অর্জন করেন, কারণ তার পরিবার কলেজ স্ট্রিটের একটি মাংসের দোকান চালাতো। যখন তিনি বড় হন, তিনি মাংসের দোকান চালানোর দায়িত্ব গ্রহণ করেছিলেন। তার ব্যবসার একটি অংশ হিসাবে, তার নিয়মিতভাবে মুসলিম ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগ ছিল। ঐতিহাসিক সন্দীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মতে, গোপাল মুসলমানদের বিরুদ্ধে কোনও তিক্ততা প্রকাশ করেননি।

                                     

2. শেষ জীবন

১৯৪৬-এর ১৬ আগস্ট পাকিস্তান তৈরির স্বার্থে মুসলিম লীগ ঘোষিত প্রত্যক্ষ সংগ্রাম দিবস -এ কলকাতা হত্যাকাণ্ডের সময় গোপাল ও তাঁঁর ভারতীয় জাতীয় বাহিনী কে উদ্ধারকারী ও নায়ক হিসেবে অভিহিত করেন অনেকে। তারপর শেষ জীবনকালে, গোপাল সামাজিক কর্মী হয়ে ওঠেন এবং ন্যাশনাল রিলিফ সেন্টাফর ডেসটিটিউটস্ নামে একটি দাতব্য সংস্থা চালান। তিনি তার এলাকায় একটি কালীপূজা শুরু করেন। কলকাতায় প্রতি বছর পূজা উদযাপনকালে, বহু মানুষ তার দ্বারা শুরু করা বিখ্যাত পূজা পরিদর্শনে আসেন। ২০১৪ সালে, হিন্দু সংহতি গোপাল পাঁঠার শতবর্ষ স্মরণ করে।