Back

ⓘ বিজ্ঞাপন মেইল




বিজ্ঞাপন মেইল
                                     

ⓘ বিজ্ঞাপন মেইল

বিজ্ঞাপন মেইল, জাঙ্ক মেইল, মেইলশট অথবা অ্যাডমেইল নামেও পরিচিত), হল ডাক মেইল ব্যবস্থার মাধ্যমে প্রাপকদের নিকট বিজ্ঞাপন উপাদান পৌঁছিয়ে দেয়া। বিজ্ঞাপন মেইল বিলি করা অনেক ডাক সেবার জন্য একটি বৃহৎ এবং ক্রমবর্ধমান সেবা রূপে গড়ে উঠছে, এবং ডাইরেক্ট মেইল মার্কেটিং ডাইরেক্ট মার্কেটিং শিল্পে একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হয়ে উঠছে। কিছু প্রতিষ্ঠান বিজ্ঞাপন মেইল গ্রহণ করার জন্য লোকজনদের মনোনিত করতে সাহায্য করার চেষ্টা করছে, বিভিন্ন ক্ষেত্রে এটি উদ্দেশ্যমূলক খারাপ পরিবেশগত প্রভাবজনিত উদ্বেগ সৃষ্টি করে।

বিজ্ঞাপন মেইলের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন বিজ্ঞপ্তি, প্লাস্টিক মেইলার, কুপন খাম টাকা প্রেরণ, মূল্যবান জিনিস, ক্যাটালগ, সিডি, পূর্ব অনুমোদিত ক্রেডিট কার্ড অ্যাপ্লিকেশন, এবং অন্যান্য বাণিজ্যিক পণ্যদ্রব্য উপাদান বাসাবাড়ি এবং ব্যবসায় পৌঁছে দেয়া হয়। এটি হয়তো পূর্বে নির্বাচিত ব্যক্তির ঠিকানায় অথবা ঠিকানাবিহীন ক্ষেত্রে প্রতিবেশী থেকে প্রতিবেশীর মাধ্যমে তা পৌঁছে দেয়া হয়।

                                     

1. ডাক সেবা

বড় আয়তনের মেইলের অনুমতির ক্ষেত্রে ডাক ব্যবস্থা ক্রেতাদের স্বল্প মূল্যে দেয়ার প্রস্তাব দেয়। ঐসব মূল্যের জন্য যোগ্যতা অর্জন করতে বিপণনকারীদের অবশ্যই মেইলটি নির্দিষ্ট ভাবে বিন্যাস এবং বাছাই করতে হবে -যেটি ডাক সেবার প্রয়োজনীয় কাজের পরিমাণ কমায়।

বিজ্ঞাপন মেইলে আয় একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং ক্রমবর্ধমান কিছু ডাক সেবার বাজেটের অংশকে প্রতিনিধিত্ব করে এবং এটি একটি সেবা যেটি তাদের দ্বারা সক্রিয়ভাবে বিপণনকৃত হয়। গতবছরের তুলনায় ২০০৪ সালে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বিজ্ঞাপন মেইলে আয় $৯৬.৬ বিলিয়ন থেকে কমে $৮০.৯ বিলিয়ন ডলারে নেমে আসে। বোস্টন কনসাল্টিং গ্রুপের গবেষণায় অনুমান করা হয় যে ২০২০ সালে যুক্তরাষ্ট্রে বিজ্ঞাপনজনিত ব্যয়ের সামগ্রিক অংশ ১১% থেকে বেড়ে ১২% হবে। ২০০৫ সালে কানাডায় ঠিকানাযুক্ত এবং ঠিকানাবিহীন বিজ্ঞাপন মেইল কানাডার ডাক ব্যবস্থার ২০% রাজস্ব বৃদ্ধির জন্য দায়ী ছিল এবং তা এখনও বাড়ছে । ডাক সেবা মেইল,অ্যাডমেইল এবং ডাইরেক্ট মেইলকে গ্রহণ করে যেখানে মূল্যহানিকর জাঙ্ক মেইলকে বর্জন এবং প্রতিবাদ করা হয়।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ডাক সেবা এভরি ডোর ডাইরেক্ট মেইল নামে সরাসরি মেইল সেবা পরিচালনা করে, যেটি বাণিজ্যকে লক্ষ্য করে, নির্দিষ্ট পরিবারে ঠিকানা জানার প্রয়োজনীয়তা ছাড়াই নকশা, ছাপানো এবং মেইল করার সুবিধা প্রদান করে।

বিভিন্ন উন্নত দেশে বিজ্ঞাপন মেইল একটি গুরুত্বপূর্ণ এবং ক্রমবর্ধমান মোট মেইলের পরিমাণকে প্রতিনিধিত্ব করে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ১৯৮০ সালে সকল মেইলের ২৯% এবং ২০০৩ সালে ৪৩% আদর্শ মেইল বিজ্ঞাপনের অন্তর্ভুক্ত ছিল।

                                     

2. সরাসরি মেইল বিপণন

ডাইরেক্ট বা সরাসরি মেইল হল সরাসরি বিপণন-এর একটি সাধারণ রূপ, এবং মুনাফা ব্যবসা, দাতব্য এবং অন্যান্য অ-লাভজনক, রাজনৈতিক প্রচারণা এবং অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের জন্য নিযুক্ত করা হতে পারে। সরাসরি মেইল বলতে বোঝায় বহু বৈচিত্রের মার্কেটিং উপকরণ যেমন: পুস্তিকা, তালিকা, পোস্টকার্ড, নিউজ লেটার এবং বিক্রয় পত্র।

                                     

2.1. সরাসরি মেইল বিপণন যাদের কে লক্ষ্য করে করা হয়

বিজ্ঞাপণদাতারা প্রায়শই ডাইরেক্ট মেইল প্রেরণ চর্চাকে পরিমার্জন করে টার্গেটেড মেইলিং এ পরিণত করে, কোন মেইলটি প্রেরণ করা হবে তা পরবর্তী ডাটাবেস বিশ্লেষণের মাধ্যমে খুব সম্ভবত সুনিশ্চিতভাবে সাড়া দিতে পারে এমন প্রাপকদের বিবেচনা করা হয়। এটি মেইলিং জগতের সীমারেখা শুধুমাত্র খুব সম্ভবত দর্শকদের মধ্যে রাখার মাধ্যমে মেইল প্রদানকারীদের খরচ কমিয়ে আনে। উদাহরণস্বরূপ একজন ব্যক্তি যিনি গলফের প্রতি আগ্রহ প্রদর্শন করেন তিনি হয়তোবা গলফ সম্পর্কিত পণ্য, অথবা মালামাল এবং সেবা যেটি গলফারদের জন্য যথাযথ তার ডাইরেক্ট মেইল পেতে পারেন। এই ডাটাবেস বিশ্লেষণের ব্যবহার হল এক ধরনের ডাটাবেস মার্কেটিং। বিকল্পরূপে ঠিকানাবিহীন সরাসরি মেইল সম্ভবত প্রতিবেশী থেকে প্রতিবেশী ব্যবস্থার মাধ্যমে পৌঁছানো যেতে পারে। এককভাবে অথবা প্রতিবেশীর মাধ্যমে যেটিই হোক না কেন, প্রাপকদের জনতাত্ত্বিক পরিচয় মিল করার চেষ্টায় সবচেয়ে মিল পাওয়া ঐ ধরনের ক্রেতাদের সরাসরি মেইল বিপণন এর মাধ্যমে প্রাপকদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হতে দেয়। স্বতন্ত্রভাবে লক্ষ্যবস্তু করা সরাসরি মেইল পূর্ববর্তী লেনদেন এবং জমাকৃত তথ্যের মতন করা হতে পারে। উদাহরণস্বরূপ একটি প্রস্তাবে সকল পুরুষ প্রাপকদের প্রস্তাবের আবরণটিতে একজন পুরুষের ছবির সাথে একটি ব্যক্তিগতকৃত প্যাকেজ পেতে পারে অন্যদিকে সকল মহিলা প্রাপকরা একজন মহিলার ছবি পেতে পারে।

প্রায়ই বিজ্ঞাপনদাতারা পত্রের সাথে একটি জনসন বক্স অন্তর্ভুক্ত করে থাকে। পত্রটিতে আরও পড়ার জন্য এই সব জিনিস লক্ষ্যবস্তুকৃত ভোক্তাদের জন্য পাঠানো হয়।



                                     

2.2. সরাসরি মেইল বিপণন কার্যকারী খরচ

অপেশাদারীদের নিকট ডাইরেক্ট মেইল অযথা মনে হতে পারে। মাধ্যমটি তবুও অন্যতম, সবচেয়ে ব্যয়-কার্যকর হতে পারে। ডাটাবেস টার্গেটিং মেইল প্রদানকারীর জন্য একটি কার্যকর মূল্য, সৃষ্টিশীল এবং কৌশলের তালিকার সাথে মিলিত হয়ে অপচয় কমিয়ে দিতে পারে এবং সর্বাপেক্ষা লাভজনক ফলাফল প্রদর্শন করতে পারে। পরীক্ষাকরণ বৈচিত্র্যপূর্ণ উপায়ে সম্পন্ন করা যায় যেমন নতুন মেইলিং বনাম নিয়ন্ত্রণের এ/বি স্পিল্ট পরীক্ষণ, "Nth" নাম নির্বাচনের মাধ্যমে পরীক্ষার তালিকাকরণ।

                                     

2.3. সরাসরি মেইল বিপণন রাজনৈতিক ব্যবহার

সব নির্বাচকমন্ডলীদের থেকে ভোট পাওয়া এবং নির্দিষ্ট ভোটারদের দলকে লক্ষবস্তুতে পরিণত করা যারা এখনো কোন প্রার্থীকে ভোট দিবে তা নিশ্চিত হয়নি তাদের বার্তা প্রদান এবং প্রচারণার তহবিল যোগানোর আবেদন করার জন্য রাজনৈতিক প্রচারণায় বারবার ডাইরেক্ট মেইল ব্যবহার করা হয়।

কিছু প্রতিষ্ঠান এবং একক ব্যক্তিরা তাদের ডাইরেক্ট মেইল ব্যবস্থায় দক্ষ হওয়ার জন্য পরিচিতি পান, যাদের মধ্যে অন্যতম হল আমেরিকার ফ্রি কনগ্রেস ফাউন্ডেশন ১৯৭০, রেসপন্স ডাইনামিক, ইনক.১৯৮০, ন্যাশনাল কনগ্রেশিওনাল ক্লাব এবং রিচার্ড ভিগুরি। রাজনৈতিক প্রচারণায় ইন্টারনেটের আবির্ভাবের ফলে, ডাইরেক্ট মেইল অনেক প্রচারণা পরিচালন যন্ত্রপাতির মধ্যে একটি হয়ে উঠেছে, এবং এখনো একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা হিসেবে পালন করছে।

                                     

2.4. সরাসরি মেইল বিপণন অ-লাভজনক

ধর্মীয় অলাভ-জনক কোম্পানিসমূহ বিজ্ঞাপনের সংগতিপূর্ণ গঠন হিসেবে সরাসরি মেইল বিপণন ব্যবহার করে থাকে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এটির আধুনিক গঠনে সরাসরি মেইল ব্যবস্থার চাঁদা সংগ্রহ করা শুরু হয় দ্বিতীয় বিশ্ব যুদ্ধের পরে, যখন ন্যাশনাল ইস্টার সিল সোসাইটির মতো জাতীয় দাতব্য সংস্থা তাদের চাঁদা সংগ্রহ কার্যক্রম বিস্তীর্ণ করার উপায় খুঁজছিল।

১৯৬০ সালে জিপ কোডের আবির্ভাব এবং পরবর্তীতে কম্পিউটার ব্যবস্থার ফলে সরাসরি মেইলের চাঁদা সংগ্রহের কার্যক্রম বৃদ্ধি পেতে শুরু করে। জিপ কোডের পূর্বে সরাসরি মেইলের চাঁদা সংগ্রহের জন্য যথাযথ প্রাপকদের নিকট উপস্থিত হওয়া ছিল কঠিন এবং কম্পিউটারের পূর্বে সমর্থকদের সংগ্রহ এবং প্রতিপালন করা ছিল ক্লান্তিকর এবং ব্যয়বহুল। ১৯৭০ সালের দিকে যখন কম্পিউটার উত্তরোত্তর সাশ্রয়ী মূল্যের হতে থাকে তখন সরাসরি মেইলের তহবিল সংগ্রহের ব্যবহার আরও ব্যাপকভাবে বিস্তার লাভ করতে থাকে। এটি খুব দ্রুত বেশিরভাগ আমেরিকানরা যা শিখেছে এবং দাতব্যর পছন্দের প্রথম আর্থিক সমর্থন হিসেবে প্রদান করে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অলাভজনক অংশের অনিয়মতান্ত্রিক বৃদ্ধি ১৯৮০ এর সময়ে চার গুণ এবং আবারও ১৯৯০ এবং প্রাক ২০০০ সালে দ্বিগুণ হয় এবং তা সরাসরি মেইল ব্যবহারে বড় রকমের সম্প্রসারণ ঘটায় ফলে তা তৈরি করা এবং বজায় রাখার জন্য দেশজুড়ে দাতা এবং সদস্যতা তালিকা বৃদ্ধি পেতে থাকে। বর্তমানে সরাসরি মেইলের চাঁদা সংগ্রহকরণে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ১.৬ মিলিয়ন অলাভজনক সংস্থা বছরে কমপক্ষে $২৫০ বিলিয়ন ডলার অবদান রাখে।

সরাসরি মেইল চাঁদা সংগ্রহকরণের নিজস্ব অনন্য অপভাষা রয়েছে, এটির বেশিরভাগই শিল্পকলা এবং সৃষ্টির বিজ্ঞান, উৎপাদন এবং সঠিক সময়ে সঠিক তালিকা সঠিক আবেদনকারীকে ডাক প্রেরণ এবং ফলাফল নিরুপণ করা সম্পর্কিত।

সাম্প্রতিক বছরে ইলেকট্রনিক যোগাযোগ মাধ্যম আরও ব্যাপকভাবে অলাভজনকদের মধ্যে ব্যবহৃত হচ্ছে। অনলাইন, ইমেইল এবং সামাজিক মাধ্যম ক্যাম্পেইন সমবেতভাবে ডিজিটাল তহবিল সংগ্রকরণ হিসেবে নির্দেশ করে এবং তা সরাসরি মেইলের চাঁদা সংগ্রহকরণের সাথে সমন্বিতভাবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। অলাভজনক সংস্থা সরাসরি মেইল প্রচারণার জন্য বিভিন্ন সংস্থাদের একই সূতোয় বাঁধতে ইমেইল এবং সামাজিক মাধ্যমের পোস্টের দ্বারা একই ধরনের ম্যাসেজিং এবং ভিজ্যুয়াল ব্যবহার করে। কিন্তু ডিজিটাল তহবিল সংগ্রহ বেশির ভাগ অলাভজনকদের মধ্যে এতটা বৃদ্ধি পায়নি যার দ্বারা সরাসরি মেইলকে প্রতিস্থাপন করা যাবে। ২০১২ সালে ডিজিটাল তহবিল সংগ্রহ মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের দাতব্য অনুদানের ৭ শতাংশ বৃদ্ধির জন্য দায়ী।

এই ধরনের বিপণন কৌশলের ব্যবহার যুক্তরাজ্যের দাতব্য সংস্থাদের মধ্যে উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাচ্ছে। ২০০৩ সালে £২৩৯ মিলিয়ন পাউন্ড অর্থ সরাসরি মেইল বিজ্ঞাপন প্রচারণায় ব্রিটিশ দাতব্য সংস্থাদের দ্বারা খরচ করা হয়েছিল।



                                     

2.5. সরাসরি মেইল বিপণন বর্তমান প্রাসঙ্গিকতা

সরাসরি মেইল বিপণন ব্যবস্থা অনেক প্রাক্তন এবং বর্তমান সমর্থনকারীদের সুবিবেচনার মধ্যে রয়েছে। সরাসরি মেইল বিপণন ব্যবস্থা ব্যবহারের বিরুদ্ধে করা তর্ক বিতর্ক যার মধ্যে সম্ভাব্য পরিবেশগত প্রভাব এবং ভোক্তাদের মধ্যে মনোভাব পরিবর্তন অন্তর্ভুক্ত রয়েছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ঠিকানা আদর্শায়িত করার সাধারণ অনুশীলন স্থানীয় পরিচয় ত্যাগের মাধ্যমে বিজ্ঞাপন মেইলের উদ্দেশ্যকে পরাজিত করা যেতে পারে, এইভাবে বহু প্রাপকদের অধিকার হস্তান্তরীত হবে। সরাসরি মেইল সম্পর্কে আরও তর্ক বিতর্ক করে বলা হয় এটি কম মূল্যের নয়। প্রস্তাব করা হয় যে সামাজিক মাধ্যম খুব শীঘ্রই সরাসরি মেইল ব্যবস্থাকে পুনঃস্থাপিত করে বিপণন যোগাযোগে পছন্দসই পদ্ধতির সূচনা করবে। ২০১১ সালে সরাসরি মেইল ব্যবস্থার অনুসারীরা বিশ্বাস করে সরাসরি মেইল বিপণন ব্যবস্থার ভবিষ্যৎ আছে। রিপোর্ট করা হয় যে ট্রিবিউন কোম্পানি এবং আরআর ডোনেলির মতো বড় বড় প্রকাশকরা সরাসরি মেইল বিভাগে ক্রমবর্ধিত হচ্ছে। অলাভজনক সংস্থাগুলো সরাসরি মেইল ব্যবস্থার ব্যবহার চালিয়ে যাওয়ার জন্য ইউপিএস হারে ভর্তুকি দিচ্ছে।

                                     

2.6. সরাসরি মেইল বিপণন বিজনেস-টু-বিজনেস মেইলিং B2B

যখন ব্যক্তিবিশেষকে টার্গেট করার বদলে অন্যান্য ব্যবসায় তা করা হয় তখন তাকে সরাসরি মেইল বিজনেস-টু-বিজনেস মেইলিং নামে অবহিত করা হয়। ঐতিহ্যগতভাবে এই কাজটি দুইভাবে সম্পন্ন হয়: সরাসরি বিক্রি হিসেবে, যেখানে বিক্রয়কারীব্যক্তি বা খুচরো দোকানের ব্যবহারকে বাধা দেয়া হয়, অথবা জোরপূর্বক বিক্রয়ের আদেশ দেয়ার উপায় হিসেবে। উদাহরণস্বরূপ: প্রাচীন পদ্ধতিটি আদর্শভাবে ব্যবহৃহত যে পণ্যগুলো সহজে বিক্রি করা যেত তা প্রত্যাশানুযায়ী ছিল ফলে কোন প্রমাণের প্রয়োজন ছিল না। পরবর্তী পদ্ধতিটি বড় নিদর্শনপত্রযোগ্য পণ্যে ব্যবহৃহত এবং এর জন্য প্রমাণের প্রয়োজন ছিল।

সরাসরি মেইলিং এর একটি পদ্ধতিতে ব্যবহৃত বিটুবি" বিল-মি” নামে পরিচিত। এই সরাসরি মেইল বিপণন প্রস্তাবে, বিক্রেতা অর্থ প্রদানের পূর্বে পণ্যটি পাঠায় এবং পরবর্তীকালে এর চালানটি পাঠায়।

                                     

3. অপটিং আউট

বিভিন্ন সংস্থা লোকজনদের অপট-আউট সেবা প্রদান করে থাকে যারা তাদের উদ্দেশ্যে দেয়া বিজ্ঞাপন মেইল পাওয়া কমাতে বা নির্মূল করতে ইচ্ছুক। যুক্তরাজ্যের মেইলিং প্রেফারেন্স সার্ভিস লোকজনদের হাতে অর্পিত ডাকের পোস্ট করা থেকে নিজেদের অপসারণ করার জন্য তাদের সাথে নিবন্ধন করার সুযোগ দেয়। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বিভিন্ন অলাভজনক সংস্থা এই ধরনের সুযোগ সুবিধা প্রদান করে থাকে, যেমন ৪১পাউন্ডস.অর্গ, এছাড়াও টনিক মেইলস্টপারের পূর্বে গ্রিনডাইমস নামে পরিচিত ছিল মতো ব্যক্তিমালিকানাধীন প্রতিষ্ঠানও এ ধরনের সুবিধা দেয়। জাঙ্ক মেইলের সমালোচনামূলক বিভিন্ন ওয়েবসাইট লোকজনদের জাঙ্ক মেইলের পরিমাণ কমানোর জন্য পথ দেখায়, উদাহরণস্বরূপ সেন্টাফর এ আমেরিকান ড্রিম।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চ আদালতের রায়ের রয়ান বনাম পোস্ট অফিস ডিপার্টমেন্ট, ৩৯৭ ইউ.এস ৭২৮ ১৯৭৯) প্রতিক্রিয়া দেখিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ডাক সেবা নিষেধক আদেশ লাভের আবেদন করার ক্ষমতা প্রদান করে, যেটি লোকজনদের বেসরকারী সংস্থাদের হতে পাঠানো ডাক বন্ধ করার ক্ষমতা দেয় এবং এ ধরনের প্রতিষ্ঠানের ডাক তালিকা হতে ভোক্তাদের তথ্য মুছে ফেলার জন্য দাবি করার সুযোগ দেয়া হয়।

কানাডায় বহুল প্রচারিত রেড ডট ক্যাম্পেইন বিজ্ঞাপন মেইল কমানোর উদ্দেশ্যে প্রয়োজনীয় পরামর্শ প্রদান করে। ক্যাম্পেইনটি কানাডা ডাক বিজ্ঞাপন নীতির" কোন জাঙ্কমেইল নয়” চিহ্নকে সম্মান সহকারে গুরুত্ত্ব দেয় পাশাপাশি কানাডা ডাক কর্তৃক অনুমোদন ব্যতিত কোন নীতিকে তারা উৎসাহিত করে না।" রেড ডট” নামটি কানাডা ডাকের ব্যবহৃত অভ্যন্তরীণ চিহ্নিতকারীকে বোঝায় যেটি সেইসব পরিবারকে নির্দেশ করে যারা বেনামী বিজ্ঞাপন মেইল পেতে ইচ্ছুক নয়।

যুক্তরাজ্যের রয়েল মেইলও অপট-আউট সেবা প্রদান করে থাকে, যদিও এটি লোকজনদের চরম নিষ্ঠুরতা সহকারে সতর্ক করে যে বেনামী সরকারি ডাক বিজ্ঞাপন থেকে আলাদা করা যাবে না এবং যারা নির্বাচিত পত্র বেছে নেয় তাদের পূর্বেরটিও গ্রহণ করা বন্ধ উচিত।

                                     

4. পরিবেশগত প্রভাব

উপরে উল্লেখিত বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান এছাড়াও এনভায়রণমেন্টাল গ্রুপ সরাসরি মেইল দ্বারা উৎপন্ন পরিবেশগত প্রভাব সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে পরিবেশ রক্ষা সংস্থা অনুমান করে যে ৪৪% জাঙ্ক মেইল খোলা অথবা পড়ার আগেই বাতিল করা হয়, যা প্রতি বছর চার মিলিয়টন কাগজ বর্জ্যের সমান, যার ৩২% পরবর্তীকালে পুনর্ব্যবহারের জন্য উদ্ধার করা হয়. । এছাড়াও ওহায়ো অফিস অব কমপ্লায়্যান্স অ্যাসিসটেন্স এন্ড পলূশন প্রিভেনশন OCAPP অনুমান করে যে প্রতিদিনের জাঙ্ক মেইল দিয়ে ২৫০,০০০ টি বাড়িতে রান্নার জ্বালানী যোগানো যাবে ৭০,০০০,০০০,০০০,০০০/৩ ব্রিটিশ থার্মাল ইউনিটbtus শক্তি অথবা ২৮,৮৭০,০০০,০০০/২৩ কিলোওয়াট আওয়ার শক্তি) ।

যুক্তরাজ্যের ডিপার্টমেন্ট ফর এনভায়রণমেন্ট, ফুড এন্ড রুরাল অ্যাফেয়ারস অনুমান করে যে সরাসরি মেইল এবং প্রচার প্রচারণা ২০০২ সালে ৫০০,০০০ থেকে ৬০০,০০০ টন কাগজ অপচয়ের জন্য দায়ী যার ১৩% পুনর্ব্যবহার করা হয়েছিল। দেশটির সরকার এবং সরাসরি বিপণন সংস্থা মিলিতভাবে সরাসরি মেইল শিল্পের বর্জ্যসমূহ পুনর্ব্যবহারের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে একমত পোষণ করে, ২০০৯ সালে ৫৫% এ উন্নিত করার লক্ষ্য নেয়, যদিও সংস্থাটির সর্বশেষ অনুমানে বলা হয় যে এই হারে শিল্পটি শীগ্রই ধসে পড়বে।

একটি গবেষণা অনুযায়ী যুক্তরাষ্ট্রের গড় ভোক্তা দ্বারা বছরে প্রায় ৪৭.৬ কিলোগ্রাম ১০৫ পাউন্ড বিজ্ঞাপন মেইল গ্রহণ করে যা থেকে কার্বন নির্গমন ঘটে। বিজ্ঞাপন মেইল থেকে সম্ভবত ৩৬.৬ বর্গ মিটার ৩৯৬ বর্গ ফুট প্রাকৃতিক আবাসস্থল ধ্বংস হচ্ছে। মাইক বার্নার লি অনুমান করেন যে প্রতিদিন পাঁচটি পত্র পাওয়া এবং প্রতি সপ্তাহে দুইটি ক্যাটালগ ছাপানোতে প্রতি বছর ৪৮০ কিলোগ্রাম ১,০৬০ পাউন্ড কার্বন নির্গমন ঘটে।



                                     

5. গোপনীয়তার বিষয়

প্রাপকরা হয়তো বিজ্ঞাপন মেইলকে গোপনীয়তাজনিত সমস্যা বলে ধারণা করতে পারেন, কারণ এটি তৈরি করতে প্রয়োজন ব্যাপক সংগ্রহ এবং তথ্যের ব্যবহার এবং মেইল প্রাপ্তির রসিদ বাড়িতে অনধিকারপ্রবেশ করাতে পারে। অনেক প্রকাশ্য মতামত জরিপে পাওয়া গেছে যে আমেরিকানরা বিজ্ঞাপন মেইলকে অনধিকারমূলক বলে মনে করেন, যেমন ২০০৩ সালের জুনে পিউ ইন্টারনেট এবং আমেরিকান লাইফ প্রজেক্টের গবেষণায় ১৯% আমেরিকানরা ডাক সেবা কর্তৃক পাঠানো জাঙ্ক মেইলকে খুবই বড় অনধিকারপ্রবেশ এবং ৩৩% বড় অনধিকারপ্রবেশ বলে মনে করেন। ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়ার গবেষকরা সম্প্রতি জেনেছেন যে ৫জনের মধ্যে ৪ জন আমেরিকানরা ডু-নট-মেইল আইনকে সমর্থন করেন, যেটি বিদ্যমান ডু-নট-কল টেলিমার্কেটিং রেজিস্ট্রির মতোই।

                                     

6. বহিঃসংযোগ

  • Privacy Rights Clearinghouse Fact Sheet explaining Junk Mail--where it comes from and what can be done to reduce the amount of it
  • Direct Marketing Association DMA Junk Mail Opt-Out
  • Modes of Delivery and Customer Engagement with Advertising Mail United States Postal Service
  • Stop junk mail, stop catalogs with 41pounds.org