Back

ⓘ সোনালী বানর




সোনালী বানর
                                     

ⓘ সোনালী বানর

সোনালী বানর হচ্ছে একটি আদিম জগতের বানর যা পশ্চিম অাসাম, ভারতবর্ষের কিছু অংশ, ভুটানের কালো পর্ব্বতের পাদদেশের আশপাশে দেখতে পাওয়া যায়। এটা ভারতের সবথেকে একটা বিপন্ন প্রজাতি। হিমালয়ের অধিবাসীদের দ্বারা পবিত্র মনে করা, সোনালী বানর সর্বপ্রথম একজন পরিবেশ বিজ্ঞানী এডওয়ার্ড প্রিটচারডের মাধ্যমে ১৯৫০ সালে পশ্চিমা বিশ্বের নিজরে আসে। ভুটানের কিছু অংশে, এই প্রাণীটি মুখপোড়া হনুমান T. pileatus এর সাথে সংকরায়িত হয়েছে।

                                     

1. দৈহিক বিবরণ

একটি প্রাপ্ত বয়স্ক সোনালী বানরের দেহের বর্ণ সোণালী; ধার এবং বুকের রং কালচে বর্ণের; এদের অপ্রাপ্ত বয়স্ক এবং নারী সোনালী বানরের দেহের বর্ণ হালকা, রূপালি সাদা থেকে ধূসর বর্ণের হয়ে থাকে। সোনালী বানরের মুখের রং কালো এবং একটি দীর্ঘ লেজ যার দৈর্ঘ্য প্রায় ৫০ সেমি ১৯.৬৯ ইঞ্চি পর্যন্ত হয়ে থাকে।

                                     

2. বিস্তৃতি

সোনালী বানরের বিস্তৃত অঞ্চল খুবই সীমিত৷ ভারতের দক্ষিণে ব্রহ্মপুত্র নদের প্রায় ৬০ বর্গ মাইল জুড়ে, পূর্বে মানাহ নদী, পশ্চিমে সোনকোষ নদী, আসামের সবত্র এবং উত্তরে ভুটান এর কালো পর্বত, এবং গৌণ অঞ্চল, ত্রিপুরা রাজ্যের দক্ষিণ-দক্ষিণপূর্বাঞ্চলের ২০০ মাইল পর্যন্ত অল্প পরিমাণে এই প্রাণীটির বিচরণস্হল।