Back

ⓘ বিষয়শ্রেণী:সুন্নি মুসলিম রাজবংশ




                                               

ইখশিদি রাজবংশ

ইখশিদি রাজবংশ ৯৩৫ থেকে ৯৬৯ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত মিশর শাসন করে। আব্বাসীয় খলিফা কর্তৃক মুহাম্মদ ইবনে তুগজ আল ইখশিদ নামে একজন তুর্কি দাস সৈনিক গভর্নর নিযুক্ত হয়েছিলেন। রাজবংশ আরবি পদবি" ওয়ালি” ব্যবহার করত যার মাধ্যমে আব্বাসীয়দের পক্ষের শাসক নির্দেশ করা হত। ৯৬৯ সালে ফাতেমীয় সেনাবাহিনী ফুসতাত দখল করে নিলে ইখশিদিদের পতন ঘটে।

                                               

তুলুনি রাজবংশ

তুলুনি রাজবংশ মুসলিম মিশরের প্রথম স্বাধীন রাজবংশ। এই রাজবংশ ৮৬৮ থেকে শুরু করে ৯০৫ সাল পর্যন্ত মিশর ও সিরিয়ার অনেক অংশ শাসন করেছিল। এসময় আব্বাসীয়রা তুলুনি শাসনকে নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আসে। ৯ম শতাব্দীতে আব্বাসীয়দের মধ্যকার অভ্যন্তরীণ সংঘাত সাম্রাজ্যের বিভিন্ন অংশের নিয়ন্ত্রণ দুর্বল করে তোলে এবং ৮৬৮ সালে তুর্কি বংশোদ্ভূ অফিসার আহমেদ ইবনে তুলুন নিজেকে মিশরের স্বাধীন গভর্নর হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেন। কেন্দ্রীয় আব্বাসীয় সরকারের কাছ থেকে তিনি মৌখিক স্বায়ত্তশাসনও লাভঁ করেছিলেন। তিনি ও তার উত্তরসুরিদের সময় তুলুনিদের শাসন অঞ্চলে জর্ডান অববাহিকা, হেজাজ, সাইপ্রাস ও ক্রিটের অন্তর্ভুক্তি হয়। আ ...

                                               

বুরি রাজবংশ

তুগতেকিন ছিলেন প্রথম বুরি শাসক। দামেস্কের সেলজুক শাসক দুকাকের অধীনস্থ হিসেবে তিনি কাজ শুরু করেছিলেন। ১১০৪ খ্রিষ্টাব্দে দুকাকের মৃত্যুপর তুগতেকিন শহরের ক্ষমতা নিজের হাতে নেন। তুগতেকিনের পুত্র তাজ আল-মুলুক বুরির নামানুসারে রাজবংশের নামকরণ হয়েছে। বুরিরা আব্বাসীয় খিলাফতের জন্য উপঢৌকন পাঠায় এবং খিলাফতের তরফ থেকে স্বীকৃতি পায়। খিলাফত কর্তৃক আমিরাতের ব্যাপারে হস্তক্ষেপ করা হত না। ১১৫৪ খ্রিষ্টাব্দ পর্যন্ত বুরিরা শহর শাসন করেছে। এসময় আলেপ্পোর জেনগি শাসন নুরউদ্দিন জেনগি শহর দখল করেন। মার্জ‌ আল-সাফফার যুদ্ধে বুরিরা ক্রুসেডারদের কাছে পরাজিত হয়। তবে দ্বিতীয় ক্রুসেডের সময় দামেস্ক রক্ষা করতে সক্ষ ...

                                               

খাজা আবদুল্লাহ আনসারি

আবু ইসমাইল আবদুল্লাহ আল-হেরাভি আল-আনসারি বা হেরাতের আবদুল্লাহ আনসারি বা খাজা আবদুল্লাহ আনসারি যিনি পীর-ই হেরাত "হেরাতের শায়খ" নামে পরিচিত, তিনি একজন মুসলিম সুফি সাধক ছিলেন।