Back

ⓘ ব্ল্যাকফোর্ড ফার্মের পায়রার বাসা




ব্ল্যাকফোর্ড ফার্মের পায়রার বাসা
                                     

ⓘ ব্ল্যাকফোর্ড ফার্মের পায়রার বাসা

ব্ল্যাকফোর্ড ফার্মের পায়রার বাসা ইংল্যান্ডের কাউন্টি সমারসেটের অন্তর্গত এক্মুরের সেলওয়ার্থিতে অবস্থিত। এটি সম্ভবত ১১শ শতকে নির্মিত হয়েছিল। এটি একটি গ্রেড II* তালিকাভুক্ত দালান এবং পরিকল্পিত সৌধ।

বেলনাক্রিতির পাথরের এই পায়রার বাসার ছাদটি বেলনাক্রিতি। এটিতে ৩ শতাধিক পাখির খোপ রয়েছে। মন্টাকুট প্রায়রি অথবা লর্ড অব দ্যা ম্যানর সম্ভবত পায়রাগুলোকে খাবার দিয়ে পুষতেন। বর্তমানে ন্যাশনাল ট্রাস্ট এটির মালিক এবং এটি পার্শ্ববর্তী খামারের গুদাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

                                     

1. ইতিহাস

১৩৯৩ সালে স্থাপনাটির সবচেয়ে প্রাচীন লিখিত নথি পাওয়া যায় যদিও নির্মাণের সঠিক সময় এখনও অজ্ঞাত। এটি একটি প্রাসাদের সাথে সংযুক্ত ছিল যা পরবর্তীতে ১৮৭৫ সালে আগুনে পুড়ে যায়। প্রাসাদটি পূর্বে মন্টাকুট প্রায়রি বেনেডিক্ট অর্ডারের একটি ক্লুনিয়াচ প্রায়রি, যা ১০৭৮ থেকে ১১০২ এর মধ্যে তৈরি হয়েছিল এর মালিকানায় ছিল। যদিও এটা জানা যায় নি যে স্থাপনাটির নির্মাণ কাজ প্রায়রির অধীনে না লভেল পরিবারের, যারা পরবর্তীতে প্রাসাদের মালিক ছিলেন, অধীনে শুরু হয়েছিল। পায়রা এবং ঘুঘু খাদ্যের গুরুত্বপূর্ণ উৎস ছিল এবং ঐতিহাসিকভাবে এদের ডিম, মাংস স্কোয়াব এবং মলের জন্য পোষা হতো।

১৯৪৪ সালে স্থাপনাটি, যা হলনিকোট এস্টেট এর কিছু অংশ নিয়ে গঠিত, পরবর্তীতে স্যার রিচার্ড থমাস ডাইক আক্ল্যান্ড এর মাধ্যমে ন্যাশনাল ট্রাস্টকে দান করা হয়। ১৯৪৯ সালে এটিকে পরিকল্পিত সৌধ হিসেবে তালিকাভুক্ত করা হয় এবং ১৯৬৯ সালে গ্রেড II* তালিকাভুক্ত দালান হিসেবে মনোনীত করা হয়। ১৯৯৩ সালে স্থাপনাটিতে সংস্কারকাজ চালানো হয়। দালানটি পার্শ্ববর্তী খামারের কৃষক গুদাম হিসেবে ব্যবহার করেন।

                                     

2. স্থাপত্য

দালানটি ব্যালনাকার যার বহিঃব্যাস ২৩ ফুট ৬ ইঞ্চি ৭.১৬ মি এবং ঘরের ছাঁচ পর্যন্ত ১৫ ফুট ৪.৬ মি উঁচু। ৪ ফুট ১.২ মি ঘনত্বের দেয়াল ডেভোনীয়ো বেলেপাথর দিয়ে তৈরি। প্রবেশপথটিকে ১৯ শতকে সংস্কার করে ৬ ফুট ৩ ইঞ্চি ১.৯১ মি উঁচু এবং ৩ ফুট ৬ ইঞ্চি ১.০৭ মি প্রশস্ত, বর্তমান অবস্থায় নিয়ে আসা হয়েছে। পূর্বে পায়রার বাসা হিসেবে ব্যবহারের সময় সম্ভবত প্রবেশপথ এর চেয়ে অনেক ছোট ছিল।

দালানটিতে ৩ শতাধিক পাখির খোপ রয়েছে। এগুলো অসমভাবে ১১টি স্তরে বিন্যস্তভাবে রয়েছে। প্রতিটি খোপ দৈর্ঘ্যে প্রায় ১১ ইঞ্চি ২৮০ মিমি এবং প্রস্থে প্রায় ২০ ইঞ্চি ৫১০ মিমি কিন্তু ভিতরের আয়তনের চেয়ে খোপের প্রবেশপথ ছোট। সবচেয়ে নিচের খোপগুলো ভুমি হতে ২ ফুট ৬ ইঞ্চি ০.৭৬ মি উপরে। এর ফলে খোপগুলো মাটির আবর্জনা থেকে উপরে এবং ইঁদুরের যেগুলো ১৮শ শতকে ঐ এলাকায় প্রায় দেখা যেত নাগাল থেকে দূরে থাকত।

পায়রাদের প্রবেশের জন্য ছাদের মূল ছিদ্রটি সমতল পাথর দিয়ে ঢাকা ছিল, যা এখন কাচ দিয়ে ঢাকা আছে যাতে ভিতরের অংশ শুষ্ক থাকে। ছাদের ভিতরের অংশে খোপের বদলে ছোট ছিদ্র রয়েছে যাও সম্ভবত পায়রাগুলো ব্যবহার করত।

Users also searched:

...