Back

ⓘ অলিম্পিয়াস




অলিম্পিয়াস
                                     

ⓘ অলিম্পিয়াস

অলিম্পিয়াস ৩৭৫–৩১৬ খ্রিস্টপূর্বাব্দ) ম্যাসিডনের আর্গিয়াদ রাজবংশের রাজা দ্বিতীয় ফিলিপের চতুর্থ রাণী এবং মহান আলেকজান্ডারের মাতা ছিলেন।

                                     

1. প্রথম জীবন

অলিম্পিয়াস এপাইরাসের রাজা প্রথম নিওপ্তলেমাসের কন্যা ও প্রথম আলেকজান্ডারের ভগিনী ছিলেন। প্লুতার্ক তার এথিকা নামক গ্রন্থে উল্লেখ করেছেন যে, অলিম্পিয়াসের আসল নাম ছিল পলিক্সেনা এবং দ্বিতীয় ফিলিপের সঙ্গে বিবাহের পূর্বে তিনি নিজের নাম পরিবর্তন করে মার্তালে রাখেন।

                                     

2. বৈবাহিক জীবন

৩৬০ খ্রিস্টপূর্বাব্দে প্রথম নিওপ্তলেমাসের মৃত্যু হলে তার ভাই আরিব্বাস এপাইরাসের সিংহাসএন আরোহণ করেন। ৩৫৮ খ্রিস্টপূর্বাব্দে তিনি ম্যাসিডনের নতুন রাজা দ্বিতীয় ফিলিপের সঙ্গে চুক্তি সম্পাদন করে ম্যাসিডনের সঙ্গে এপাইরাসের মধ্যে পারস্পরিক মৈত্রী স্থাপন করেন। ৩৫৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দে পলিক্সেনার সঙ্গে দ্বিতীয় ফিলিপের বিবাহের ফলে এই মৈত্রী আরো মজবুত হয়।

সম্ভবতঃ ৩৫৬ খ্রিস্টপূর্বাব্দে প্রাচীন অলিম্পিক গেমসে দ্বিতীয় ফিলিপের অশ্বের জয়ের পরে তিনি নিজের নাম রাখেন অলিম্পিয়াস । এই বছরই অলিম্পিয়াসের পুত্র তৃতীয় আলেকজান্ডারের জন্ম হয়। গ্রিক জীবনীকার প্লুতার্কের রচনানুসারে, ফিলিপের সঙ্গে বিবাহের দিনে অলিম্পিয়াসের গর্ভে বজ্রপাত হয়। বিবাহের কয়েকদিন পর ফিলিপ একটি স্বপ্নে দেখেন যে, অলিম্পিয়াসের যোনিদ্বার সিংহের ছাপযুক্ত একটি শীলমোহর দ্বারা বন্ধ অবস্থায় রয়েছে। প্লুতার্ক এই সমস্ত অলৌকিক ঘটনার বেশ কিছু ব্যাখ্যা দেন এই ভাবে যে, অলিম্পিয়াস বিবাহের পূর্ব হতেই গর্ভবতী ছিলেন এবং আলেকজান্ডার জিউসের সন্তান ছিলেন। যদিও ঐতিহাসিক ইতিহাসবেত্তাদের মতে, উচ্চাকাঙ্খী অলিম্পিয়াস আলেকজান্ডারের ঐশ্বরিক পিতৃত্বের কাহিনী প্রচলিত করেন। ফিলিপের ঔরসে অলিম্পিয়াসের গর্ভে ক্লিওপাত্রা নামক এক কন্যাসন্তানের জন্ম হয়।

ফিলিপের বহুগামিতা ও অলিম্পিয়াসের সন্দেহপ্রবণতার কারণে তাদের বৈবাহিক জীবন সুখকর ছিল না। এই সম্পর্ক আরো জটিল হয় যখন, ফিলিপ তার সেনাপতি আত্তালোসের ভ্রাতুষ্পুত্রী ক্লিওপাত্রা ইউরিদিকেকে বিবাহ করেন।ক্লিওপাত্রার যে কোন সন্তান পিতা-মাতা উভয় দিক থেকেই ম্যাসিডোনিয় হওয়ায় এই বিবাহের ফলে সিংহাসনের উত্তরাধিকারী হিসেবে আলেকজান্ডারের অবস্থান কিছুটা অসুরক্ষিত হয়ে পড়ে, কারণ আলেকজান্ডার পিতার দিক থেকে ম্যাসিডোনিয় হলেও মাতার দিক থেকে এপাইরাসীয় ছিলেন। বিবাহের সময় মদ্যপ অবস্থায় আত্তালোস ফিলিপ ও ক্লিওপাত্রা ইউরিদিকের মিলনের ফলে একজন বৈধ উত্তরাধিকারীর কথা উল্লেখ করলে দৃশ্যতঃ ক্ষুব্ধ আলেকজান্ডার তার মাথায় পানপাত্র ছুঁড়ে মারেন, কিন্তু মদ্যপ ফিলিপ আত্তালোসের পক্ষ গ্রহণ করলে আলেকজান্ডার দোদোনা শহরে তার মাতুল প্রথম আলেকজান্ডারের নিকট অলিম্পিয়াসকে রেখে স্বেচ্ছানির্বাসিত হন।

ফিলিপ প্রথম আলেকজান্ডারের সঙ্গে নিজ কন্যা ক্লিওপাত্রার কথা ঘোষণা করেন। বিবাহের দিন ফিলিপ তার দেহরক্ষীবাহিনীর প্রধান পাউসানিয়াসের দ্বারা খুন হন। খুনের অন্যতম ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে অলিম্পিয়াসের ভূমিকা সন্দেহের উর্দ্ধে নয়।

                                     

3. ফিলিপের মৃত্যুপর

ফিলিপের মৃত্যুপর অলিম্পিয়াস আলেকজান্ডারের শাসনকে কন্টকমুক্ত করতে ক্লিওপাত্রা ইউরিদিকের দুই সন্তান ইউরোপা ও কারানোসকে হত্যা করান, যার ফলে ক্লিওপাত্রা ইউরিদিকে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হন। আলেকজান্ডারের সামরিক অভিযানের সময় অলিম্পিয়াস ম্যাসিডনে রাজনৈতিকভাবে গুরত্বপূর্ণ হয়ে ওঠেন এবং রাজপ্রতিনিধি আন্তিপাত্রোসকে বিবিধ সমস্যার সম্মুখীন করেন। ৩৩০ খ্রিস্টপূর্বাব্দে তিনি এপাইরাসের নতুন রাজা প্রথম আইয়াকিদেসের রাজপ্রতিনিধি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

                                     

4. আলেকজান্ডারের মৃত্যুপর

৩২৩ খ্রিস্টপূর্বাব্দে আলেকজান্ডারের মৃত্যুপর রাজপ্রতিনিধি পেরদিক্কাস তার রাজনৈতিক অবস্থান শক্তিশালী করার উদ্দেশ্যে আন্তিপাত্রোসের কন্যা নিকাইয়াকে বিবাহ করার সিদ্ধান্ত নেন। কিন্তু অলিম্পিয়াস নিজ কন্যা ক্লিওপাত্রার সঙ্গে তার বিবাহ দিতে চান। নিকাইয়ার সাথে বিবাহ হলে রাজপ্রতিনিধি হিসেবে তার অবস্থান শক্তিশালী হলেও ক্লিওপাত্রার সঙ্গে বিবাহ হলে সরাসরি রাজপরিবারে অন্তর্ভুক্ত হয়ে সিংহাসনের দাবীদার হওয়ার সম্ভাবনার কথা মাথায় রেখে পেরদিক্কাস রাজী হয়ে যান। এই ঘটনায় দৃশ্যতঃ ক্ষুব্ধ আন্তিপাত্রোস ম্যাসিডন যাত্রা করে পেরদিক্কাসকে পরাজিত করে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দেন। এছাড়া আলেকজান্ডারের মৃত্যুপর অলিম্পিয়াস তার প্রথম পুত্রবধূ রুকসানার পক্ষ অবলম্বন করে রুকসানার সন্তানকে আলেকজান্ডারের উত্তরাধিকার হিসেবে দেখতে চেয়েছিলেন, যদিও সেনাপতিদের নিজেদের মধ্যকার বিরাজমান দ্বন্দের কারণে পরবর্তিতে তাদের করুণ পরিণতির সম্মুখীন হতে হয়েছিল।

৩১৯ খ্রিষ্টাব্দে পলিপেরখন ম্যাসিডনের রাজপ্রতিনিঢি হিসেবে দায়িত্ব নিলে কাসান্দ্রোস তৃতীয় ফিলিপকে রাজা হিসেবে ঘোষণা করে ম্যাসিডন থেকে পলিপেরখনকে বিতাড়িত করেন। ৩১৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দে অলিম্পিয়াস পলিপেরখনের পক্ষ নিলে উভয়ের যৌথ বাহিনী ম্যাসিডন থেকে কাসান্দ্রোসকে বিতাড়িত করে।



                                     

5. মৃত্যু

যুদ্ধে জয়লাভেপর ৩১৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দের অক্টোবর মাসে অলিম্পিয়াস তৃতীয় ফিলিপ ও তার পত্নী ইউরিদিকেকে বন্দী ও হত্যা করান। এছাড়া তার দ্বারা কাসান্দ্রোসের ভাই ও শতাধিক সমর্থকও খুন হন। কাসান্দ্রোস পিদনা শহরটি অবরোধ করে অলিম্পিয়াসকে হত্যা না করার শর্তে আত্মসমর্পণে বাধ্য করেন। অলিম্পিয়াসের বন্দীত্বেপর কাসান্দ্রোস তাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন, কিন্তু সৈনিকেরা মহান আলেকজান্ডারের মাতাকে হত্যা করতে রাজি ছিল না। অবশেষে অলিম্পিয়াসের আদেশের ফলে নিহতদের পরিবার তাকে পাথর ছুঁড়ে হত্যা করেন।

                                     

6. আরো পড়ুন

  • Waterfield, Robin ২০১১। Dividing the Spoils: The War for Alexander the Great’s Empire । New York: Oxford University Press। পৃষ্ঠা 273 pages.। আইএসবিএন 9780199647002।
  • Plutarch, Alexander, Parallel Lives, online at Perseus Project.
                                     

7. বহিঃসংযোগ

  • "Olympias"। Online Encyclopedia । অক্টোবর ৩১, ২০০৬ তারিখে মূল থেকে আর্কাইভ করা । সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩০, ২০০৬ ।
  • "Olympias"। Livius. Articles on Ancient History । সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩০, ২০০৬ ।
  • "Olympias Macedonian leader"। Encyclopædia Britannica Eleventh Edition । সংগ্রহের তারিখ জুলাই ৩১, ২০০৬ ।
                                     
  • ত র ব শ কয ক বছর ধর দ ব প অবস থ ন কর র ভ ন র ব ইজ ন ট ইন বহ র গত অল ম প য স স স ল ত এস আক রমণক র দ র উৎখ ত করত আস ন ক ন ত ব যর থ হন এর পরপরই

Users also searched:

...