Back

ⓘ বিষয়শ্রেণী:দেশ অনুযায়ী পতাকা




                                               

আজারবাইজানের জাতীয় পতাকা

আজারবাইজানের জাতীয় পতাকায় তিনটি সমান আকারের অণুভূমিক ডোরা আছে, যাদের বর্ণ যথাক্রমে নীল, লাল, ও সবুজ । একটি সাদা বর্ণের নতুন চাঁদ, এবং ৮-কোনা একটি তারকা মাঝের লাল ডোরাটির উপরে অবস্থিত। ৮-কোনা তারকাটি তুর্কী জাতির ৮টি শাখাকে নির্দেশ করছে। নীল বর্ণের ডোরাটি তুর্কীদের প্রতীকি বর্ণ, সবুজ বর্ণটি ইসলাম ধর্মের প্রতীক, আর লাল বর্ণটি প্রগতিকে নির্দেশ করছে। এই পতাকাটি ১৯১০ এর দশকের শেষভাগে স্বাধীন আজারবাইজানে ব্যবহৃত হয়েছিল, তবে ১৯২০ সালে সোভিয়েত ইউনিয়ন আজারবাইজানকে দখল করাপর এর ব্যবহার বন্ধ হয়ে যায়। সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙ্গে যাওয়াপর আজারবাইজান স্বাধীন রাষ্ট্র হিসাবে আবার আত্ম প্রকাশ করে, এবং ১ ...

                                               

আফগানিস্তানের জাতীয় পতাকা

আফগানিস্তানের জাতীয় পতাকা সেখানকার অস্থায়ী সরকার দ্বারা ২০০২- ২০০৪ সালের মধ্যে নির্বাচিত হয়। এই পতাকাটি আফগানিস্তানে ১৯৩০ হতে. ১৯৭৩ সাল পর্যন্ত ব্যবহার করা হয়েছে। পার্থক্য হল এই পতাকার কোট অফ আর্মস বা প্রতীকের উপরে কলেমা শাহাদাত যোগ করা হয়েছে। বর্তমান পতাকাটি তিনটি উলম্ব ডোরা আছে, যাদের বর্ণ কালো, লাল, ও সবুজ। এই পতাকাটি গত ২০ বছরে আফগানিস্তানে চালু অধিকাংশ পতাকাতেই ব্যবহার করা হয়েছে। কেন্দ্রের প্রতীকটি emblem আফগানিস্তানের জাতীয় প্রতীক, যা মক্কা মুখী একটি মসজিদের ছবি। তালিবান-পূর্ব আফগানিস্তান ও উত্তরীয় জোটের পতাকা একই প্রতীক ব্যবহার করতো, তবে সবুজ, সাদা ও কালো বর্ণের উলম্ব ডোরা ব ...

                                               

আলজেরিয়ার জাতীয় পতাকা

আলজেরিয়ার জাতীয় পতাকা হল সবুজ ও সাদা রঙের দুই অংশে বিভক্ত একটি পতাকা যার কেন্দ্রে রাষ্ট্রের সংখ্যা গরিষ্ঠ মানুষের ধর্ম ইসলামের প্রতীক হিসেবে লাল চাঁদ ও তারা রয়েছে। ১৯৬২ সালের ৩ জুলাই এ পতাকাটি গৃহীত হয়।

                                               

ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় পতাকা

ইন্দোনেশিয়ার জাতীয় পতাকা ইন্দোনেশীয় ভাষায় সাং মেরাহ পুতিহ নামে পরিচিত। এটি ১৩শ শতকের মাজাপাহিৎ‌ সাম্রাজ্যের পতাকা অনুসারে তৈরি করা হয়েছে। ১৯৪৫ সালের আগস্ট ১৭ তারিখে ইন্দোনেশিয়ার স্বাধীনতা দিবসে এটি সর্বপ্রথম উত্তোলন করা হয়। পতাকাটির নকশাতে দুইটি অণুভূমিক ডোরা ব্যবহার করা হয়েছে, যার উপরেরটি লাল ও নিচেরটি সাদা। পোল্যান্ডের জাতীয় পতাকার সাথে এর মিল রয়েছে, এবং এটি মোনাকোর জাতীয় পতাকার অনুরূপ তবে অনুপাত আলাদা। এছাড়া সিঙ্গাপুরের পতাকাতেও একই রকম নকশা ব্যবহার করা হয়েছে। লাল বর্ণটি রক্ত ও আত্মত্যাগ, এবং সাদা বর্ণটি মানুষের আত্মাকে নির্দেশ করছে।

                                               

ইয়েমেনের জাতীয় পতাকা

ইয়েমেনের জাতীয় পতাকা মে ২২, ১৯৯০ তারিখ হতে প্রবর্তিত হয়। এই দিনে উত্তর ও দক্ষিণ ইয়েমেন একত্রিত হয়। পতাকার লাল, সাদা ও কালো বর্ণের ডোরাগুলি উত্তর ও দক্ষিণ ইয়েমেনের পতাকাতেও উপস্থিত ছিল। এই বর্ণগুলি নিখিল আরব একতার প্রতীক, যা মিশর, সিরিয়া, এবং ইরাকের জাতীয় পতাকায় রয়েছে। সরকারী বর্ণনা অনুসারে লাহল শহীদদের রক্ত এবং একতার প্রতীক; সাদা হল উজ্জ্বল ভবিষ্যতের প্রতীক, এবং কালো হলো অন্ধকার অতীতের প্রতীক।

                                               

ইরানের জাতীয় পতাকা

ইরানের বর্তমান জাতীয় পতাকা ১৯৮০ সালের জুলাই ২৯ তারিখে প্রবর্তন করা হয়। ইরানের ইসলামিক বিপ্লবের ভাবধারা এই পতাকায় প্রকাশ পেয়েছে। পতাকাটিতে তিনটি অণুভুমিক ডোরা আছে, উপরেরটি সবুজ, মাঝে সাদা এবং নিচে লাল। সাদা ডোরাটি শান্তি ও লালটি হল সাহসের প্রতীক। পতাকার কেন্দ্রস্থলে লাল বর্ণের একটি চিহ্ন আছে, যা আল্লাহর নামকে নির্দেশ করছে। এই চিহ্নটি চারটি তারকা ও একটি তরবারি দ্বারা অঙ্কিত। চারটি তারা আল্লাহ শব্দটিকে নির্দেশ করে, এবং কেন্দ্রের তরবারিটি আরবি তাশদীদ, এবং তরবারির শক্তিকে নির্দেশ করছে। এটি অনেকটা টিউলিপ ফুলের আকারের মতো, যা ইরানের জন্য জীবন দেয়া তরুণদের প্রতীক। এই চিহ্নটির নকশা হামিদ নাদিম ...

                                     

ⓘ দেশ অনুযায়ী পতাকা

  • ব ল দ শ র জ ত য পত ক গণপ রজ তন ত র ব ল দ শ র পত ক ব ধ ম ল অন য য জ ত য পত ক ম প র স ন র দ ষ ট ব বরণ ন ম নল খ ত: জ ত য পত ক গ ঢ সব জ রঙ র
  • জ ত য পত ক প রত য ক দ শ র ন জস ব প রত ক - স বর প, জ ত য অন ষ ঠ ন প রত ট দ শ র ম ন ষ স বতন ত র জ ত য পত ক ব যবহ র কর ন স ধ রণ ম ন ষ, ব দ য লয আদ লত
  • ক গ র স র প ঙ গ ল ভ ঙ ক ইয ক ত স বর জ পত ক র আদল ভ রত র আইন অন য য জ ত য পত ক খ দ ক পড ত র করত হয এট এক ব শ ষ ধরন র হস তচ ল ত ত ত অথব
  • বর ণ ব যবহ রক র প রথম দ শ ফর স র যখন স র য অধ ক র কর ন জ দ র ম য ন ড ট ব শ সন র খ তখন এর পত ক হ স ব ন ল রঙ র একট পত ক চ ল হয এর ক ন দ র
  • কস ভ প রজ তন ত র র পত ক ই ফ ব র য র স ল স র ব য র ক ছ থ ক স ব ধ নত ঘ ষণ র পরপরই কস ভ প রজ তন ত র র স ধ রণ সভ য গ হ ত হয পত ক ট একট
  • ম ধ যম র জতন ত র প ন প রত ষ ঠ ত হওয র পর স ল ক য ম ব ড য র জ ত য পত ক প নর বহ ল হয স ল হত ক য ম ব ড য পত ক র ম ঝ অ য কর ভ ট র চ ত র
  • ম ধ যম অস মর ক পত ক হ স ব ন র ব চ ত কর হয স ল র ই আগস ট জ প ন র জ ত য পত ক ও সঙ গ ত ব ষয ক আইন র ঘ ষণ ন - অন য য জ ত য পত ক হ স ব ন র ব চ ত
  • এট দ শ অন য য ত ল ক র একট ধ র ব হ ক প ত এই ত ল ক স ধ রণত স র বভ ম দ শসম হ র স থ সম পর ক ত ব ষয র অন তর ভ ক ত হয ছ তব স ম ত স ব ক ত প র প ত
  • উজব ক স ত ন র জ ত য পত ক নভ ম বর হত গ হ ত ও প রবর ত ত হয এই পত ক র ত ৎপর য সম পর ক ব শ কয কট ধ রণ চ ল আছ ট ত রক উজব ক স ত ন র
  • ব ক যট র অর থ হল নত ন চ দ ব শ ষ ট সব জ পত ক এছ ড ও এট ক প রচ ম - ই - স ত র আওর হ ল ল অর থ ৎ চ দ ও ত র খচ ত পত ক বল হয থ ক পত ক ট র খ ট র ব পর ত
আলবেনিয়ার জাতীয় পতাকা
                                               

আলবেনিয়ার জাতীয় পতাকা

আলবেনিয়ার জাতীয় পতাকা হল লাল বর্ণের, যার কেন্দ্রস্থলে একটি কালো বর্ণের দুই-মাথা ওয়ালা ঈগল পাখি রয়েছে। এটি ১৫শ শতকে উসমানীয় সাম্রাজ্যের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করা আলবেনীয় বিপ্লবী সিকান্দরবেগের পতাকা অনুসারে প্রণীত। সিকান্দরবেগের ঐ বিদ্রোহের ফলে ১৪৪৩ হতে ১৪৭৮ সাল পর্যন্ত আলবেনিয়া স্বাধীন ছিল। বর্তমান পতাকাটি এপ্রিল ৭, ১৯৯২ সালে প্রবর্তন করা হয়। কিন্তু পূর্বের আলবেনীয় সরকার, যেমন রাজতন্ত্রী আলবেনিয়া, ও যুদ্ধ পরবর্তী কমিউনিস্ট সরকারও প্রায় একই পতাকা ব্যবহার করতো ।

ইরাকের জাতীয় পতাকা
                                               

ইরাকের জাতীয় পতাকা

ইরাকের জাতীয় পতাকা ১৯২১ সাল হতে ৪ বার পরিবর্তিত হয়েছে। বর্তমানের পতাকাটি ১৯৯১ সাল হতে সাদ্দাম হোসেন সরকারের প্রবর্তিত পতাকার পরিবর্তিত সংস্করণ। ২০০৪ সালের এপ্রিল মাসে নতুন আরেকটি পতাকা প্রস্তাব করা হয়, কিন্তু সেটি প্রবর্তন করা হয় নাই। ২০০৪ সালের জুন ২৮ তারিখে যখন ইরাকের অন্তর্বর্তীকালীন সরকার ক্ষমতা গ্রহণ করে, তখন ১৯৯১ সালের পতাকার মত, কিন্তু প্রশস্ততর, এবং ভিন্ন ধাঁচের আরবি লিপিতে আল্লাহু আকবার লেখা পতাকা ব্যবহার করা হয়।

ইসরায়েলের জাতীয় পতাকা
                                               

ইসরায়েলের জাতীয় পতাকা

ইসরায়েলের জাতীয় পতাকা ১৯৪৮ সালের অক্টোবর ২৮ তারিখে প্রবর্তিত হয়। এর ৫ মাস পূর্বে ইসরায়েল স্বাধীনতা ঘোষণা করেছিল। পতাকাটিতে সাদা পটভূমিতে দুইটি আনুভূমিক নীল রেখার মাঝখানে নীল বর্ণের একটি দাউদের তারা চিহ্ন প্রদর্শিত হয়েছে। নীল বর্ণটি গাঢ় বর্ণের আকাশী নীল।

ওমানের জাতীয় পতাকা
                                               

ওমানের জাতীয় পতাকা

ওমানের জাতীয় পতাকা তিনটি অনুভুমিক অংশ, এবং একটি উলম্ব অংশ নিয়ে গঠিত। বামদিকের উলম্ব লাল অংশটির উপরের কোনায় রয়েছে ওমানের জাতীয় প্রতীক । সাদা অংশটি শান্তি ও সমৃদ্ধির প্রতীক, সবুজ অংশটি উর্বরতা ও সবুজ পর্বতমালা, এবং লাল অংশটি বিদেশি হানাদারদের বিরুদ্ধে জয়লাভের প্রতীক। পতাকার লাল বর্ণটি দেশের পূর্বের পতাকায় ব্যবহার করা হয়েছিল, যখন দেশটির নাম ছিল মাস্কাতের সুলতানাত ।

কাজাখস্তানের জাতীয় পতাকা
                                               

কাজাখস্তানের জাতীয় পতাকা

জালের মতো নকশাটি প্রাচীন খান শাসক এবং কাজাখ জনগোষ্ঠীর প্রতীক। আকাশী নীল পটভূমিটি তুর্কি বংশোদ্ভূত নাগরিকদের চিহ্ন। তাতার, মঙ্গোল, উইঘুর, ও অন্যান্য তুর্কি বংশোদ্ভূত জনগোষ্ঠীর মধ্যে নীল বর্ণটি আকাশ দেবতার প্রতীক। আধুনিক কালের ব্যাখ্যানুসারে অবশ্য নীল বর্ণটি কাজাখস্থানের বিস্তৃত আকাশ এবং মুক্তির প্রতীক। সোনালী ঈগল পাখিটি চেঙ্গিস খানের সাম্রাজ্যের প্রতীক। তিনি কাজাখস্থানের শাসক হিসাবে এরকম ঈগল খচিত একটি নীল বর্ণের পতাকা ব্যবহার করতেন।

কির্গিজস্তানের জাতীয় পতাকা
                                               

কির্গিজস্তানের জাতীয় পতাকা

কির্গিজস্তানের পতাকা নির্বাচিত হয়েছিল ১৯৯২ সালের ৩রা মার্চ। পতাকার লাল জমিনের উপর হলুদ সূর্যকে কেন্দ্র করে ৪০টি রশ্মি ৪০ কিরগিস্তানী আদিবাসীকে নির্দেশ করে। সম্মুখ দিকে রশ্মিগুলো ঘড়ির কাটার দিকে ঘূর্ণায়মান। মাঝের সূর্যটিকে বৃত্তাকারভাবে তিনটি করে মোট ছয়টি লাইন পরস্পর ছেদ করেছে, যা কিরগিস্তানী আবাসস্থল ইয়ুর্টকে নির্দেশ করে.

কুয়েতের জাতীয় পতাকা
                                               

কুয়েতের জাতীয় পতাকা

কুয়েতের জাতীয় পতাকা ১৯৬১ সালের সেপ্টেম্বর ৭ তারিখে প্রবর্তিত হয়। একই বছরের নভেম্বর ২৪ তারিখে এটি প্রথমবারের মতো উত্তোলিত হয়। পতাকার বর্ণ কবি সাফি আল দীন আল হালির লেখা একটি কবিতায় রয়েছে, যার ভাবানুবাদ হলো আর লাল, আমাদের অতীত কালো বর্ণটি আমাদের সংগ্রামের প্রতীক সবুজ রঙটি বসন্তে আমাদের বাড়ির জন্য সাদা বর্ণটি আমাদের কাজের জন্য পতাকা উত্তোলনের নিয়মাবলী হলো - উলম্বভাবে: সবুজ বর্ণের অংশটি পতাকার ডানদিকে থাকবে অনুভূমিকভাবে: সবুজ বর্ণের অংশটি উপরের দিকে থাকবে

চিলির জাতীয় পতাকা
                                               

চিলির জাতীয় পতাকা

চিলির জাতীয় পতাকা, একই উচ্চতার দুটি অসম অনুভূমিক ব্যান্ড নিয়ে গঠিত, নিচে লাল উপরে সাদা। সাদা অংশের বামে একটা নীল বর্গের মাঝে রয়েছে একটি সাদা পাঁচতারা। এটি ১৮ অক্টোবর ১৮১৭ গৃহিত হয়। চিলির পতাকা স্পেনে লা ইস্ট্রেলা সলিটারিয়া হিসাবে পরিচিত।

তুরস্কের জাতীয় পতাকা
                                               

তুরস্কের জাতীয় পতাকা

তুরস্কের জাতীয় পতাকাটিতে লাল পটভূমিকায় একটি সাদা নতুন চাঁদ, এবং তার সামনে একটি তারকা প্রদর্শিত হয়েছে। পতাকাটিকে তুর্কি ভাষায় বলা হয় Ay Yıldız বা al sancak । পতাকাটির নকশা প্রাচীন, এবং উসমানীয় সাম্রাজ্যের সময়ে ১৮৪৪ সাল হতে এটি ব্যবহৃত হয়ে আসছে। ১৯৩৬ সালের তুর্কি পতাকা আইনে পতাকার আকারের কিছু পরিবর্তন সাধিত হলেও মূল নকশা অক্ষুন্ন আছে। পতাকায় ব্যবহার করা লাল বর্ণটি হলো প্যান্টোন ১৮৬, বা আরজিবি ২২৭, ১০, ২৩.

নেপালের জাতীয় পতাকা
                                               

নেপালের জাতীয় পতাকা

নেপালের জাতীয় পতাকা বিশ্বের একমাত্র ত্রিভুজাকৃতির জাতীয় পতাকা। পতাকাটি দুটি একক ক্ষুদ্র পতাকার একটি সরলীকৃত সংমিশ্রণ, যা একটি দ্বৈত ক্ষুদ্র পকাকা হিসাবে পরিচিত। এটি পৃথিবীর একমাত্র অ-আয়তকার পতাকা। এর রক্তিম বর্ণ সাহসিকতা ও নেপালের জাতীয় ফুল রডোডেনড্রন ফুলের প্রতীক। নীল প্রান্ত শান্তির প্রতীক। ১৯৬২ সাল পর্যন্ত, পতাকার অর্ধ চন্দ্র ও সূর্য়্যের প্রতীকে মানুষের মুখ আংকিত থাকত। পরবর্তিতে পতাকা আধুনিকায়ন করতে তা বাদ দেয়া হয়।