Back

ⓘ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ




                                     

ⓘ বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ

বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ বাংলাদেশে অনুষ্ঠিত নিয়মিত পেশাদার ফুটবল লীগ এবং বাংলাদেশে পেশাদার ফুটবল লীগের দ্বিতীয় স্তর। বাংলাদেশের ফুটবল লীগসমূহের স্তরবিন্যাসে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ-এর পরে এই লীগের অবস্থান। প্রিমিয়ার লীগের মত এই লীগও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন-এর পেশাদার লীগ কমিটি দ্বারা পরিচালিত হয়। বাংলাদেশে পেশাদার ফুটবলের পরিধি বৃদ্ধি, কাঠামো উন্নয়ন ও নতুন নতুন ক্লাবকে পেশাদার ফুটবল দল গঠনে আগ্রহী করার লক্ষ্যে বাফুফে ২০১২ সালে এই লীগ চালু করে।

                                     

1. ইতিহাস

বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন বাফুফে ২০০৭ সালে দেশের প্রথম পেশাদার ফুটবল লীগ চালু করে। ২০০৭-২০১০ পর্যন্ত দেশের একমাত্র পেশাদার লীগে অবনমনের নিয়ম না থাকায় নতুন ক্লাবের আগমন হচ্ছিল না; লীগটির মান নিম্নমুখী হচ্ছিল। এ পরিস্থিতিতে ২০১১ সালে পেশাদার ফুটবল লীগের দ্বিতীয় স্তর আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় বাফুফে। ফলাফল সরূপ মার্চ, ২০১২ হতে প্রিমিয়ার লীগের সাথে সাত দল নিয়ে ২য় স্তরের এই পেশাদার লীগ প্রথম বারের মত চালু করা হয়। কক্স সিটি স্পোর্টিং ক্লাব প্রথম মৌসুমে চ্যাম্পিয়ন হয়। বাফুফের অন্তর্ভুক্তিমুলক নীতির কারণে পরবর্তী মৌসুম গুলিতে দলের সংখ্যা বাড়তে থাকে। সর্বশেষ ২০১৮-১৯ মৌসুমে এগারোটি দল অংশগ্রহণ করে।

২০১২ মৌসুমে শুধু চ্যাম্পিয়ন দলকে বিপিএল-এ উন্নীত হওয়ার সুযোগ রাখা হয়, পরবর্তী মৌসুম হতে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স-আপ দলকে বিপিএল-এ উন্নীত হওয়ার নিয়ম করা হয়। ২০১২ ও ২০১৫ মৌসুমে কোন দল অবনমিত হয়নি, বাদবাকী মৌসুমগুলিতে পয়েন্ট তালিকার সর্বশেষ এক বা দুই দলকে নিচের স্তরের লীগে অবনমনের নিয়ম চালু রয়েছে। বাফুফে-এর অন্তর্ভুক্তিমুলক নীতির কারণে অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা এখনো নির্দিষ্ট নয়। মৌসুমভেদে ২০১৯ পর্যন্ত বিসিএল-এ অংশগ্রহণকারী দলের সংখ্যা, বিপিএল-এ উন্নীত দলের সংখ্যা, অবনমিত দলের সংখ্যা নিম্নরূপঃ

*২০১৫ মৌসুমে দশটি দল অংশ নেয়ার কথা থাকলেও শেষ পর্যন্ত আটটি দল অংশ নেয়। যাত্রাবাড়ী ও বাসাবো তরুণ সংঘ লীগ থেকে নাম প্রত্যাহার করে নেয়।

                                     

2. সম্প্রচার ও টেলিভিশন স্বত্ব

মে, ২০১৯ হতে আইএসপি-কে বাফুফে বিপিএল, বিসিএল সহ ঘরোয়া প্রতিযোগিতার স্বত্ব প্রদান করে, সে অনুযায়ী আইএসপি-এর সম্প্রচার সহযোগী বাংলা টিভি বিপিএল-এর খেলা সম্প্রচার শুরু করলেও অদ্যাবধি বিসিএল-এর খেলা সম্প্রচার করেনি। ২০১৯ সালের পূর্ব মৌসুমের খেলাও অদ্যাবধি কোন টেলিভিশন চ্যানেল অথবা ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া প্রতিষ্ঠান সরাসরি সম্প্রচার করেনি। ২০১৯ সাল হতে বিসিএল-এর সকল ম্যাচ মাইকুজু নামক একটি অনলাইন স্ট্রিমিং সেবা প্রদানকারী প্লাটফর্মে সরাসরি সম্প্রচার করা হচ্ছে।

                                     
  • ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ - এর ম আসর ল গট শ র হয ফ ব র য র থ ক য খ ন ট দল অ শগ রহণ কর ম
  • ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ব ল দ শ র প শ দ র ফ টবল ল গ র দ ব ত য সর ব চ চ আসর ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ব স এল - এর অষ টম ম স ম এই ম স ম
  • ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ প ষ টপ ষকত জন ত ক রণ ম ন স ট র ফ র জ ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ন ম ও পর চ ত ব ল দ শ র প শ দ র ফ টবল ল গ র দ ব ত য
  • ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ প ষ টপ ষকত জন ত ক রণ প র ম য র ব য ক ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ন ম পর চ ত ফ ব র য র ত র খ শ র হয
  • ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ প ষ টপ ষকত জন ত ক রণ প র ম য র ব য ক ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ন ম পর চ ত ফ ব র য র ত র খ শ র হয
  • ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ প ষ টপ ষকত জন ত ক রণ ম র স ল ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ন ম ও পর চ ত ব ল দ শ র প শ দ র ফ টবল ল গ র দ ব ত য
  • ম র স ল ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ - এর ষষ ঠ আসর ল গট শ র হয আগস ট থ ক য খ ন ট দল অ শগ রহণ কর ফ ন
  • ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ ব স এল ব ল দ শ প শ দ র ফ টবল ল গ র দ ব ত য স তর র প রথম ম স ম য ম র চ, ত শ র হয উদ ব ধন ল গ ট দল ড বল - ল গ
  • অন ষ ঠ ত হয গত আসর থ ক ফর শগঞ জ স প র ট ক ল ব র অবনমন হয এব চ য ম প য নশ প ল গ থ ক উত তর ব র ধ র উঠ আস গত আসর র চ য ম প য ন ছ ল শ খ জ ম ল ধ নমন ড
  • আর মব গ ক র ড স ঘ র ল গ অবনমন হয ছ ল ফল ত দ র পর বর ত ব ল দ শ চ য ম প য নশ প ল গ - এর চ য ম প য ন স চট টগ র ম আব হন ও য স থ ন থ ক উত তর ব র ধ র ক