Back

ⓘ সৈন্য বাহিনীর বিশেষ ক্ষমতা আইন, ১৯৫৮




                                     

ⓘ সৈন্য বাহিনীর বিশেষ ক্ষমতা আইন, ১৯৫৮

সৈন্য বাহিনীর বিশেষ ক্ষমতা আইন, ১৯৫৮ Act) হচ্ছে ভারতীয় সংসদের আইন যেটি ১৯৫৮ সালের ১১ সেপ্টেম্বর পাস হয়। এটির মাত্র ছয়টি ধারা ভারতীয় সামরিক বাহিনীকে বিরক্তি উৎপাদনকারী এলাকায় আইন প্রয়োগের অনুমোদন দেয়।

                                     

1. উদ্দেশ্য ও প্রয়োগ

ভারতের উত্তর-পূর্বের ৭ রাজ্য - অরুণাচল, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, মণিপুর, মেঘালয়, অসম ও ত্রিপুরার বিচ্ছিন্নতাবাদী আন্দোলন দমন করতে গঠিত হয় । গত শতকের আশির দশকে পঞ্জাবে খলিস্তান আন্দোলন এবং পরে ৯০ দশকে জম্মু ও কাশ্মীরে এই আইন প্রয়োগ করা হয়। তখন থেকে সেখানেও এই আইন বলবৎ রয়েছে।

                                     

2. ক্ষমতা

এই আইন অনুযায়ী, সেনাবাহিনী যে কোন সন্দেহভাজন ব্যক্তিকে গুলি করতে পারবে। বিনা ওয়ারেন্টে গ্রেফতার করতে পারবে। বিনা ওয়ারেন্টে যে কোন জায়গায়, যে কারও বাড়িতে তল্লাশি চালাতে পারবে। কোথাও জঙ্গিদের ঘাঁটি রয়েছে বলে সন্দেহ হলে, তা নির্দ্বিধায় উড়িয়ে দিতে পারবে। রাস্তায় কোনও যানবাহনের সন্দেহজনক গতিবিধি লক্ষ করলে, তা থামিয়ে তৎক্ষণাৎ তল্লাশি চালানো যাবে। এবং সর্বোপরি এই আইনানুযায়ী, সংশ্লিষ্ট সেনা আধিকারিকের বিরুদ্ধে কোনও তদন্ত বা আইনি পদক্ষেপ করা যাবে না।

                                     

3. সমালোচনা

আইনটি দায়িত্বশীলদের কাছ থেকে অনবরত সমালোচনার সম্মুখীন হয়েছে এই বলে যে, আইন প্রয়োগকারী এলাকায় মানবাধিকার লঙ্ঘিত হয়েছে, সেসব জায়গায় হত্যা, অত্যাচার, নিষ্ঠুরতা, অপহরণ, হারিয়ে যাওয়া ইত্যাদি ঘটনায় আইন প্রয়োগকারী বাহিনী জড়িত থেকেছে।

                                     

4. বহিঃসংযোগ

  • Armed Forces Act to go from Imphal - rediff.com article dated 12 August 2004
  • Coverage on website of South Asia Human Rights Documentation Centre
  • Presentation on Armed Forces Special Powers Act, 1958 by Major General Nilendra Kumar, Director, Amity Law School Noida