Back

ⓘ আযান




আযান
                                     

ⓘ আযান

আযান আরবি: أَذَان ‎‎ । পারিভাষিক অর্থ, শরী‘আত নির্ধারিত আরবী বাক্য সমূহের মাধ্যমে নির্ধারিত সময়ে উচ্চকণ্ঠে সালাতের আহবান করাকে ‘আযান’ বলা হয়। ১ম হিজরী সনে আযানের প্রচলন। হয়। ʾআযান শব্দের মূল অর্থ দাড়ায় أَذِنَ ডাকা,আহবান করা। যার মূল উদ্দেশ্য হল অবগত করানো। এই শব্দের আরেকটি বুৎপত্তিগত অর্থ হল ʾআজুন । أُذُن, যার অর্থ হল "শোনা"। কুরআনে মোট পাঁচ স্থানে আজুন শব্দটি এসেছে।

হযরত বেলাল রঃ ইসলামের ইতিহাসে প্রথম আযান দেন। মুহাম্মদ সঃ এর নির্দেশে তিনিই প্রথম মদিনার মসজিদে নববীতে আযান প্রদান করেন । উল্লেখ্য মুহাম্মদ সঃ মক্কায় আযান ও একামত ছাড়া নামাজ পড়েছেন।

                                     

1. আযানের কথা বা বাক্যসমূহ

ব্যতিক্রম আযান

ফযরের নামাজের আযানে একটু ব্যতিক্রম আছে। আর তা হলো এই যে, আযানের শেষভাগে "হাইয়া আলাল ফালাহ" দুই বার বলার পরে "আসসালাতু খাইরুম মিনান নাউম الصلوۃ خیر من النوم" বাক্যটি দুই বার বলতে হয়। এর পর যথারীতি "আল্লাহু আকবার", "আল্লাহু আকবার", "লা ইলাহা ইল্লাল্লাহ" বলে আজান শেষ হয়। এছাড়া ছানী আযান মসজিদের ভিতরে মিম্বরের নিকটে ও ইমামের সম্মুখে দেয়া হয়।