Back

ⓘ সাঈদ উদ্দীন আহমেদ




                                     

ⓘ সাঈদ উদ্দীন আহমেদ

১৯৫০ সালে সাইদ উদ্দিন আহমেদ রাজশাহী মুসলিম হাইস্কুল থেকে এএসসি পাস করেন। বাহান্নর ভাষা আন্দোলনের সময় তিনি রাজশাহী কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র ছিলেন। তখন ভাষা আন্দোলনে রাজশাহীর সর্বস্তরের পেশাজীবী ছাত্র-জনতা অংশ নেয়। ভাষার জন্য যাঁরা একত্র হয়েছিলেন, সাঈদ উদ্দীন আহমেদ তাদের অন্যতম। ভাষা শহীদদের স্মরণে রাজশাহী কলেজ চত্বরে দেশের প্রথম শহীদ মিনারটি নির্মিত হয়েছিল। ভাষা আন্দোলনে রাজশাহীর সক্রিয় সেনাদের অকাট্য দাবি, দেশের প্রথম শহীদ মিনার ছিলো এটিই। এই শহীদ মিনার নির্মাণেও অবদান ছিলো ভাষা সংগ্রামী সাঈদ উদ্দীন আহমেদের। ওই শহীদ মিনারটি নির্মাণেপর তার গায়ে বিদ্রোহী কবিতার দুটি লাইন লিখে দিয়েছিলেন তিনি।

                                     

1. কর্মজীবন

সাইদ উদ্দিন আহমদ আইনজীবী হিসেবে কাজ শুরু করলেও সাংবাদিক হিসেবেও কাজ করেন। তিনি রাজশাহী প্রেসক্লাবের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন । তিনি ইত্তেফাক, সংবাদ, ডেইলি পিপল, ডেইলি মর্নিং পোস্ট ও অবজারভারসহ বেশ কয়েকটি সংবাদপত্রে কাজ করেছেন।

                                     

2. মৃত্যু

ভাষা সংগ্রামী সাঈদ উদ্দীন আহমেদ ২০১৪ খ্রিষ্টাব্দের ২৮শে ফেব্রুয়ারি শুক্রবার রাত ৩টার দিকে বার্ধক্যজনিত কারণে নানা রোগে আক্রান্ত হয়ে চিরবিদায় নেন। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৮৪ বছর। ১ মার্চ শনিবার বাদ যোহর রাজশাহী মহানগরীর বড় মসজিদ প্রাঙ্গণে তাকে হেতম খাঁ কবরস্থানে সমাধিস্থ করা হয়।