Back

ⓘ কর্ণাটক




কর্ণাটক
                                     

ⓘ কর্ণাটক

কর্ণাটক হল দক্ষিণ পশ্চিম ভারতের একটি রাজ্য। ১৯৫৬ সালের ১ নভেম্বর রাজ্য পুনর্গঠন আইন বলে এই রাজ্য স্থাপিত হয়। রাজ্যটির আদি নাম ছিল মহীশূর রাজ্য । ১৯৭৩ সালে রাজ্যের নাম বদলে রাখা হয় কর্ণাটক ।

কর্ণাটকের পশ্চিমে আরব সাগর, উত্তর-পশ্চিমে গোয়া, উত্তরে মহারাষ্ট্র, পূর্বে অন্ধ্রপ্রদেশ, দক্ষিণ-পূর্বে তামিলনাড়ু এবং দক্ষিণ-পশ্চিমে কেরল অবস্থিত। রাজ্যের মোট আয়তন ১,৯১,৯৭৬ বর্গকিলোমিটার ৭৪,১২২ মা ২ ভারতের মোট ভৌগোলিক আয়তনের ৫.৮৩%। কর্ণাটক আয়তনের হিসেবে ভারতের অষ্টম বৃহত্তম এবং জনসংখ্যার হিসেবে ভারতের নবম বৃহত্তম রাজ্য। এই রাজ্যে ৩০টি জেলা রয়েছে। রাজ্যের সরকারি তথা সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষের ভাষা কন্নড়।

কর্ণাটক দুটি প্রধান নদী অববাহিকায় অবস্থিত। রাজ্যের উত্তরে রয়েছে কৃষ্ণা ও তার উপনদীগুলির । দক্ষিণে রয়েছে কাবেরী ও তার উপনদীগুলির অববাহিকা। এই নদীগুলি পূর্ববাহী। সব কটিই বঙ্গোপসাগরে পড়েছে।

                                     

1. নাম বুৎপত্তি

কর্ণাটক নামটির বুৎপত্তি বিষয়ে মতভেদ রয়েছে। সাধারণভাবে মনে করা হয় কর্ণাটক নামটি এসেছে কন্নড় কারু ও নাডু শব্দদুটি থেকে। এর অর্থ উচ্চ ভূমি । অন্য মতে, কারু নাড়ু শব্দটির প্রকৃত অর্থ কৃষ্ণ ভূমি ; কারণ কর্ণাটকের বায়ালুসীমে অঞ্চলে কালো কার্পাস মৃত্তিকা দেখা যায়। ব্রিটিশরা কৃষ্ণা নদীর দক্ষিণে দক্ষিণ ভারতের উভয় দিকেরই নাম দিয়েছিল কর্ণাটিক অঞ্চল।

                                     

2. ইতিহাস

কর্ণাটকের ইতিহাস অতি প্রাচীন। এখানে প্রাচীন প্রস্তর যুগের নানা নিদর্শন পাওয়া গিয়েছে। প্রাচীন ও মধ্যযুগীয় ভারতের একাধিক শক্তিশালী সাম্রাজ্যের কেন্দ্র ছিল এই রাজ্য। এই সব সাম্রাজ্যের দার্শনিক ও চারণকবিরা যে সামাজিক, ধর্মীয় ও সাহিত্যিক আন্দোলনের সূচনা করেন, তার অস্তিত্ব আজও রয়েছে। ভারতীয় শাস্ত্রীয় সংগীতের দুটি ধারাতেই কর্ণাটিক ও হিন্দুস্তানি কর্ণাটকের অবদান রয়েছে। কন্নড় ভাষার লেখকেরা ভারতে সর্বাধিক সংখ্যক জ্ঞানপীঠ পুরস্কার লাভ করেছেন। এই রাজ্যের রাজধানী বেঙ্গালুরু বর্তমান ভারতের একটি অগ্রণী বাণিজ্যিক ও প্রযুক্তি কেন্দ্র।

                                     

3. প্রশাসনিক বিভাগ

কর্ণাটকে ৩১ টি জেলা রয়েছে। প্রতিটি জেলা জেলা প্রশাসক জিলাদার দ্বারা পরিচালিত হয়। জেলাগুলি আরও উপ-জেলা তালুক মধ্যে বিভক্ত, যা উপ-কমিশনার তালুকদার দ্বারা পরিচালিত; উপ-বিভাগগুলি ব্লক তহসিল / হোবলি সমন্বয়ে গঠিত, যা ব্লক উন্নয়ন অফিসার তহসিলদার দ্বারা পরিচালিত, যা গ্রাম পরিষদ পঞ্চায়েত, নগর পৌরসভা পুরসভা, নগর পৌর কাউন্সিল নগরসভা এবং শহর পৌর কর্পোরেশন দ্বারা গঠিত মহানগর পালিকে।