Back

ⓘ বিপণন মিশ্রণ




                                     

ⓘ বিপণন মিশ্রণ

বিপণন মিশ্রণ হলো বিপণনের এমন কয়েকটি নিয়ন্ত্রণযোগ্য চলক বা হাতিয়ার, যেগুলোর বিভিন্ন অনুপাত ব্যবহার করে কোম্পানী তার লক্ষ্য-বাজারে সাড়া তৈরির প্রচেষ্টা চালায়। প্রচলিত পণ্য বাজারজাতকরণ ধারণায় বাজারজাতকরণ মিশ্রণ হচ্ছে চারটি: পণ্য, মূল্য, স্থান এবং প্রসার, যেগুলোকে একত্রে ইংরেজি আদ্যক্ষর মিলিয়ে সংক্ষেপে বলা হয় 4Ps।

                                     

1. পণ্য মিশ্রণ

পণ্য মিশ্রণ বলতে বোঝায় 4Ps, যার পণ্য হলো বস্তুগত পণ্য আর সেবার সংমিশ্রণ, যা কোনো কোম্পানী তার লক্ষ্য-বাজারে অর্পণ করে। মূল্য হলো সেই পরিমাণ অর্থ, যা একজন ক্রেতাকে পণ্যটি অর্জন করতে ব্যয় করতে হয়। স্থান বলতে বোঝায় কোম্পানীর এমন কর্মকান্ড, যা পণ্যকে লক্ষ্য-ক্রেতার কাছে সহজলভ্য করে তোলে। প্রসার হলো পণ্যের গুণাগুণ তুলে ধরে ক্রেতাকে পণ্যটি ক্রয়ে প্ররোচিত করার কার্যক্রম।

বিক্রেতার দৃষ্টিকোণ

বিক্রেতার দৃষ্টিকোণ থেকেই মূলত বাজারজাতকরণ মিশ্রণকে বেশি দেখা হয়ে থাকে এবং বেশি আলোচিতও হয়। আর তাই বাজারজাতকরণ মিশ্রণ বলতেই সাধারণত 4P-কেই বুঝিয়ে থাকে।

  • Promotion
  • P roduct
  • P lace
  • P rice

ক্রেতার দৃষ্টিকোণ

বিক্রেতার দৃষ্টিকোণ থেকে যেখানে বাজারজাতকরণ মিশ্রণকে 4P দিয়ে সূচিত করা হয়, সেখানে ক্রেতার দৃষ্টিকোণ থেকে বাজারজাতকরণ মিশ্রণ হলো 4Cs।

  • C onvenience
  • C ommunication
  • C ustomer cost
  • C ustomer solution

একজন প্রকৃত বাজারজাতকারীকে শুধুমাত্র বিক্রেতা বা শুধুমাত্র ক্রেতার দৃষ্টিকোণ থেকেই বিবেচনা করলে চলে না, বরং উভয় দৃষ্টিকোণই পাশাপাশি রেখে বিবেচনা করতে হয়।

                                     

2. সেবা মিশ্রণ

বাজারজাতকরণ পণ্য মিশ্রণ বলতে যেখানে 4Ps-কে বোঝায়, সেখানে সেবা মিশ্রণও ঐ চারটি Pর সাথে যোগ করে নিয়েছে আরো তিনটি P।

  • P lace বণ্টন
  • P romotion প্রসার
  • P rocess প্রক্রিয়া
  • P roduct পণ্য
  • P rice মূল্য
  • P eople জনগণ
  • P hysical evidence বস্তুগত প্রমাণ

সেবা বাজারজাতকরণ মিশ্রণে অতিরিক্ত যে তিনটি মিশ্রণ উপাদান যোগ হয়েছে তার মূল কারণ হলো সেবার বৈশিষ্ট্য। কেননা সেবা তার চারটি মূল বৈশিষ্ট্যের ভিত্তিতে পণ্যদ্রব্য থেকে আলাদা। এখানে পণ্যের ৪টি মিশ্রণ অন্তর্ভুক্ত হলেও সংজ্ঞাগত দিক দিয়ে মূলত এতদুভয়ের মধ্যে পার্থক্য আছে। সেবা মিশ্রণে পণ্য বলতে বোঝায় অদৃশ্য, অস্পৃশ্য, উপযোগিতাপূর্ণ সেবা-পণ্য-কে, যা বাজারজাতকরণের স্বার্থে দৃশ্যমান করার উদ্যোগ নেয়া হয়, মূল্য বলতে বোঝায় সেবা সম্মুখিনতায় সেবা সরবরাহকারী ও সেবাগ্রহীতার পারস্পরিক সংস্পর্শে যে মূল্য নির্ধারিত হয়, বণ্টন বলতে সরাসরি সেবাদাতা থেকে সেবাগ্রহীতা পর্যন্ত পৌঁছানোর কৌশলকে বোঝায়, প্রসার বলতে বোঝায় সেবার গুণাগুণ তুলে ধরে ক্রেতাকে সেবা গ্রহণে প্ররোচিত করা, জনগণ বলতে বোঝায় সংশ্লিষ্ট সকল পক্ষ, অর্থাৎ কোম্পানী, সেবাকর্মী এবং সেবাগ্রহীতা সকলেই সেবার মিশ্রণ, প্রক্রিয়া বলতে বোঝায় যে প্রক্রিয়ায়, যন্ত্রকৌশলে সেবা উপস্থাপিত হয় কিংবা সেবা ভোগ করা হয়, বস্তুগত প্রমাণ বলতে বোঝায় যে পরিবেশে সেবা সরবরাহ করা হয়, কিংবা ভোগ করা হয়