ⓘ Free online encyclopedia. Did you know? page 483




                                               

ভুটান সার্জেন্ট

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- ডানার উপরিতল: ডানার উপরিতল কালচে খয়েরি এবং উজ্জ্বল ও ফ্যাকাশে সাদা দাগ-ছোপ-রেখা যুক্ত। সামনের ডানায় সেল-এর লম্বা মুগুরের মতো দাগটি অবিচ্ছিন্ন। ডিসকাল অংশ ...

                                               

ভ্যারিগেটেড্‌ প্লুশব্লু

ভ্যারিগেটেড্‌ প্লুশব্লু) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের ধূসর বাদামী এবং উজ্জ্বল ধাতব নীল রঙের প্রজাপতি। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং ‘থেকলিনি’ উপগোত্রের সদস্য।

                                               

মিঞ্জি

মিঞ্জি) এক প্রজাতির মোটামুটি বড়, গাঢ় বাদামি ও আকাশী নীল রঙের প্রজাপতি।। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এবং সমগ্র দক্ষিণ পূর্ব এশিয়া মহাদেশ জুড়েই এর বিস্তার।

                                               

মেঘকুমারী

মেঘকুমারী) নিমফ্যালিডি গোত্র ও লিমেনিটিডিনি উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এক রাজকীয় প্রজাপতি। এটি আকারে বেশ বড় হয়। অত্যন্ত দ্রুত, সুন্দর ও রাজকীয়ভাবে উড়তে পারে। সাধারণত গাছের বেশ উঁচুতে অবস্থান করে। অনেক সময় ভেজা মাটিতে নেমে আসে। ডানা মেলে রোদ পোহ ...

                                               

মেঘা

ভারতে প্রাপ্ত মেঘা এর উপপ্রজাতি হল- Tanaecia lepidea Butler, 1868 – Himalayan Grey Count Tanaecia lepidea miyana Fruhstorfer, 1913 – Peninsular Grey Count Tanaecia lepidea sthavara Fruhstorfer, 1913 – Indo-Chinese Grey Count

                                               

মোউরাল

মোউরাল) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা কালো বর্ণের এবং ডানায় কালোর উপর সবুজ আবির ছেটানো এবং ডানায় উজ্জ্বল নীলচে সবুজ ধাতব রঙের পটি দেখা যায়। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

মোরাম

মোরাম এক প্রজাতির মাঝারি আকৃতির প্রজাপতি, যাদের মুল শরীরটা এবং ডানা তামাটে হলুদ বর্ণের এবং ডানার উভয় প্রান্তে কালো দাগ দেখা যায়। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

মৌল কংকা

ভারতে প্রাপ্ত মৌল কংকা এর উপপ্রজাতি হল- Delias hyparete indica Wallace, 1867 – Indian Painted Jezebel Delias hyparete ethire Doherty, 1886 – Kalinga Painted Jezebel

                                               

মৌলদাঁড়া

মৌলদাঁড়া) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের সোনালী হলুদ রঙের প্রজাপতি। তরাই অঞ্চল থেকে পাহাড়ে ১৩০০ মিটার অবধি নিচু ঢাল যুক্ত অঞ্চলে এদের উড়তে দেখা যায়। মার্চ থেকে ডিসেম্বর অবধি এদের দর্শন মেলে। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং চেরসনেসিয়া উপগোত্রের সদস্য।

                                               

রতন (প্রজাপতি)

রতন এর উপপ্রজাতিগুলো হলো: Catochrysops panormus rennellensis Howarth, 1962 – Rennell Island Catochrysops panormus pura Tite, 1959 – Solomon Islands not Rennell Island Catochrysops panormus caledonica Felder – Loyalty Islands Catochrysops panormus ...

                                               

রয়াল (প্রজাপতি)

রয়াল) এক প্রজাতির হলুদ-কালো প্রজাপতি। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এবং সমগ্র এশিয়া মহাদেশ জুড়েই এর বিস্তার। উন্মুক্ত তৃণক্ষেত্র এবং লতাগুল্মের জঙ্গলে বিশেষভাবে এদের দেখা পাওয়া যায়। এদের ওড়ার ছন্দ চঞ্চল এবং এদের সাধারণত মাটির কাছাকা ...

                                               

রায়সেনা

ভারতে প্রাপ্ত রায়সেনা এর উপপ্রজাতি হল- Delias belladonna lugens Jordan, 1925 – Lushai Hill Jezebel Delias belladonna horsfieldi Gray, 1831 – Himalayan Hill Jezebel Delias belladonna ithiela Butler, 1869 – Sikkim Hill Jezebel

                                               

রুপাপাতিয়া

রুপাপাতিয়া)এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা সাদাটে হলুদ, ফিকে কমলা এবং হাল্কা বাদামী বর্ণের মিশ্রণ থাকে। এদের পিছনের দুটি ডানাতেই দুটি করে মোট চারটি সরু কালো লেজ দেখা যায় এবং লেজ এর অগ্রপ্রান্ত সাদা ও গোড়ার দিক কমলা বর্ণের। এরা ...

                                               

রুলিখয়ের

রুলিখয়ের) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা গাঢ় চকোলেট রঙের এবং এদের উপরের ডানা ধাতব উজ্জ্বল নীলচে রঙ দেখা যায়। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং লাইসিনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

রূপসা

পুরুষ নমুনা সাথে বেশ কিছু মিল এবং বেশ অমিল চোখে পড়ে। পুরুষের সাথে অমিলগুলি নিম্নরূপঃ- সামনের ডানার উপরিপৃষ্ঠর এপিকাল, অর্দ্ধ কোস্টার মধ্যভাগ থেকে টর্নাস অবধি বিস্তৃতভাবে কালো অথবা কালচে নীল। এপিকাল অর্দ্ধের শীর্ষভাগ মধ্যভাগে কোস্টা থেকে সাবটার্ম ...

                                               

রেখ বাতাসি

ভারতে প্রাপ্ত রেখ বাতাসি এর উপপ্রজাতি হল- Phaedyma columella ophiana Moore, 1872 – Sikkim Short-banded Sailer Phaedyma columella binghami Fruhstorfer, 1905 – Nicobar Short-banded Sailer Phaedyma columella nilgirica Moore, 1888 – Dakhan Short-band ...

                                               

রেড কালিফ

রেড কালিফ) দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় প্রাপ্ত নিমফ্যালিডি পরিবার এবং মরফিনি অথবা অ্যামাথুসিডি উপগোত্র এবং এনিসপে বর্গের অন্তর্ভুক্ত প্রজাতি।

                                               

রেড-স্পট সটুথ

রেড-স্পট সটুথ এর কয়েকটি উপপ্রজাতি হল - Prioneris philonome clemanthe Doubleday, 1846 - Myanmarese Redspot Sawtooth. এদের ভারতে দেখতে পাওয়া যায়। Prioneris philonome themana Fruhstorfer, 1903; এদের ইন্দোনেশিয়া, মালেশিয়া ও তাইল্যান্ডে দেখতে পাও ...

                                               

রেশমবাজ

ভারতে প্রাপ্ত রেশমবাজ এর উপপ্রজাতি হল- Charaxes solon sulphureus Rothschild, 1900 – Sulphur Black Rajah Charaxes solon Fabricius, 1793 – Pale Black Rajah

                                               

লাইট স্ট্র এস

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- এই প্রজাতির বিবরণ দিতে গিয়ে জেমস উড-ম্যাসন James Wood-Mason ও লিওনেল ডি নাইসভিলে en:Lionel de Nicéville|Lionel de Nicéville" লিখেছেন যে এই প্রজাতির ডানার ...

                                               

লার্জ ফন

লার্জ ফন) দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় প্রাপ্ত নিমফ্যালিডি গোত্র এবং মরফিনে উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত প্রজাপতি প্রজাতি। Assama উপ-প্রজাতিটি বর্তমানে একটি সম্পূর্ণ ভিন্ন প্রজাতি হিসাবে গণ্য হয়।

                                               

লালচক্ষু

ভারত নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা, দ: পূর্ব এশিয়ার বিস্তীর্ণ অংশ এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

লালতিখড়া

লালতিখড়া) যার মূল শরীর খয়েরি-বাদামি বর্ণের এবং ডানা দুটি কমলাটে লাল এবং কালো ও সাদা বর্ণের ছোপ দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং চারাক্সিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

লেঞ্জা পাখুই

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- এদের ডানার মূল রং কালচে বাদামী এবং পিছনের ডানায় প্রান্তদেশে উজ্জ্বল কমলা দাগ যুক্ত। উদরদেশের ও ডানায় উজ্জ্বল কমলা দাগ বর্তমান। ডানার উপরিতল দাগ ছোপ যুক্ত ...

                                               

লেসার পাঞ্চ

লেসার পাঞ্চ) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা লালচে খয়েরি রঙের। এরা ‘রিওডিনিডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

শংখি কোকেয়ারা

শংখি কোকেয়ারা) রিওডিনিডি গোত্র ও নেমেওবিনি উপগোত্রের অন্তর্ভুক্ত ছোট আকারের প্রজাতি | এই প্রজাতি টেইলড জুডি প্রজাতির সাথে ভীষণ সাদৃশ্যযুক্ত, তবে টেইলড জুডি অপেক্ষা আকারে সামান্য ছোট |

                                               

সাঁগ্রা

ভারত নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা ও ইন্দোনেশিয়া এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

সাঁঝলা

সাঁঝলা) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা খয়েরী বাদামি বর্ণের প্রজাপতি। সাঁঝলা নিমফ্যালিডি পরিবারের এবং স্যাটায়ারিনি উপগোত্রর সদস্য

                                               

সাজিকাপাস

সাজিকাপাস) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা পিয়েরিডি পরিবার এবং পিয়েরিনি উপগোত্র এবং অ্যাপিয়াস বর্গের অন্তর্ভুক্ত প্রজাতি। এই প্রজাতি ভারতের বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুসারে তফ্‌সিল ২ এর তালিকার অন্তর্ভুক্ত।

                                               

সাজুন্তি

সাজুন্তি বৈজ্ঞানিক নাম: Talicada Nyseus এক প্রজাতির ছোট আকারের চমকপ্রদ প্রজাপতি, যা কালো ছিটযুক্ত বা কমলা ও কালো পাড় যুক্ত সাদা বর্ণের। এরা ‘লাইসিনিডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

সাত ডোরা (প্রজাপতি)

সাত ডোরা, বা রুরু এক প্রজাতির প্রজাপতি, যাদের দেহের রঙ কালচে খয়েরি এবং ডানায় উজ্জ্বল হলুদ রঙের নকশা দেখা যায়। লেবু জাতীয় গাছে বংশবৃদ্ধির কারণে এরা লেবুর প্রজাপতি নামেও পরিচিত। এরা ‘প্নিযাপিলিওডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

সাদা লোচন

সাদা লোচন) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের সদস্য। বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুসারে এই প্রজাতি তফ্‌সিল ২ এর তালিকার অন্তর্ভুক্ত।

                                               

সারিন

সারিন এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি, যাদের মুল শরীআর ডানা সাদা বর্ণের এবং তার ওপর কালো ছোপযুক্ত। এরা ‘পিয়েরিডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

সিকিমে প্রাপ্ত প্রজাপতিদের তালিকা

উপপ্রজাতি: Papilio polytes romulus Indian Common Mormon

                                               

সুরতি লালসং

সুরতি লালসং) যার মূল শরীর লালচে খয়েরি বর্ণের এবং ডানার পিছন দিকে সাদা রঙের পটি দেখা যায়। এরা মাঝারি আকৃতির প্রজাপতি। এরা রিওডিনিডি পরিবার এবং রিওডিনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

সুর্মা

সুর্মা)এক প্রজাতির মাঝারী আকারের বাদামী রঙের প্রজাপতি। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

সোনাবল্গা

সোনাবল্গা) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা সাদা বর্ণের, ডানা কালো এবং তার ওপর সবুজ রঙের নকশাযুক্ত। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

সোনাল

সোনাল এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি, যাদের মূল শরীরটা উজ্জ্বল হলুদ বর্ণের, ডানা কালো এবং তার উপর উজ্জ্বল হলুদ রঙের নকশাযুক্ত। এই প্রজাপতির সামনের ডানার উভয় পিঠ কুচকুচে কালো বর্ণের হয়, শিরার ধার বরাবর ধূসর আভা দেখা যায়। পিছনের ডানা উজ্জ্বল হল ...

                                               

স্ট্রাইপড রিংলেট

স্ট্রাইপড রিংলেট বা হোয়াইট স্ট্রাইপড রিংলেট) নিমফ্যালিডি গোত্র এবং স্যাটেরিনি উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত ব্রাশ-ফুটেড প্রজাতি।

                                               

স্ট্রিয়াটেড স্যাটার

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- এই প্রজাতির ডানার উপরিতলের রঙ ঘন কালচে বাদামি!উভয় ডানার উপরিতলে সোজা ও কোনাকুনি ভাবে একটি চওড়া সাদা ডিসকাল Discal বন্ধনী বিদ্যমান। উক্ত ডিসকাল বন্ধনীর সা ...

                                               

হরতনি

হরতনি) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি, যার ডানা হলুদ ও সাদার মিশ্রণ এবং চওড়া লাল কল্কা পাড়যুক্ত। এরা ‘পিয়েরিডি’ পরিবারের এবং পিয়েরিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

হরিনছড়া

হরিনছড়া এক প্রজাতির প্রজাপতি, যাদের মূল শরীর এবং ডানা বাঘ রঙের ও তাতে কালো ফুটকি এবং ছোপযুক্ত। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

হলুদ (প্রজাপতি)

হলুদ) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা ‘পিয়েরিডি’ গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এবং সমগ্র এশিয়া ও আফ্রিকা মহাদেশ জুড়েই এর বিস্তার। এদের সাধারণত মাটির কাছাকাছি উড়তে দেখা যায়। উন্মুক্ত তৃণক্ষেত্র এবং লতাগুল্মের জঙ্গলে বিশেষভাবে এদের দেখা পাওয়া যায়।

                                               

হলুদ কাইজার

হলুদ কাইজার) হলো হিমালয় ও ইন্দোচিন এলাকায় প্রাপ্ত এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং স্যাটিরিনি উপগোত্রের একটি প্রজাপতি প্রজাতি।

                                               

হলুদ গর্গন

হলুদ গর্গন) এক বড় আকারের উজ্জ্বল কমলা হলুদ বর্ণের প্রজাপতি। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রর সদস্য। এই সোয়ালোটেল প্রজাপতি প্রজাতিদের দক্ষিণ এশিয়া এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে দেখা যায়।

                                               

হলুদ চিতা

হলুদ চিতা Nymphalidae পরিবারভুক্ত গাঢ় হলুদ ও কালো রঙের প্রজাপতি। এই প্রজাপতির ডানার রং ও কারুকাজ চিতাবাঘের দেহের মতো বলে এদের চিতাবাঘ বা চিতাও বলে।

                                               

হলুদ টিনসেল

হলুদ টিনসেল ছোট আকারের এক প্রজাতির প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা হলদেটে বাদামী বর্ণের। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং থেকলিনি উপগোত্রের সদস্য। ঝালর ও হলুদ টিনসেল পরস্পর অনুরূপ প্রজাতি যাদের মধ্যে কেবল দাগ-ছোপের এবং বর্ণের সামান্য পার্থক্য রয়েছে।

                                               

হলুদ বাতাসি

ভারতে প্রাপ্ত হলুদ বাতাসি এর উপপ্রজাতি হল- Neptis ananta ochracea Evans, 1924 – East Himalayan Yellow Sailer Neptis ananta Moore, 1858 – West Himalayan Yellow Sailer

                                               

হিংগলবাজ

হিংগলবাজ) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের প্রজাপতি। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ গোত্রের এবং চারাক্সিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

হিমলকুচি (প্রজাপতি)

হিমলকুচি, যা নীল ডোরা বা নীল বাঘ হিসেবেও পরিচিত, এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ পরিবারের সদস্য এবং ডানায়িনি উপগোত্রের অন্তর্ভুক্ত। এদের ভারতে দেখতে পাওয়া যায় এবং এরা যূথচর পরিযায়ী আচরণ করে থাকে।