ⓘ Free online encyclopedia. Did you know? page 481




                                               

গ্রেট সুইফট

এই প্রজাতিকে ভারত, নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ, মায়ানমার এবং সিঙ্গাপুএর মান্ডাই অঞ্চলেও এদের দেখা মেলে। জানুয়ারি এবং আগস্ট থেকে নভেম্বর অবধি সাধারনত এদের দেখা যায়।

                                               

চইতক

চইতক যার শরীর এবং ডানা কালচে খয়েরি বর্ণের, ডানায় সবুজ ছিট ছিট দেখা যায়। এরা বড় আকারের প্রজাপতি এবং ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রের সদস্য। ক্ষিপ্র সতেজতা, বড়সড় আকার, ডানার উজ্জ্বল সবুজ ছিট প্রজাপতিটিকে আকর্ষণীয় করে তুলেছে।

                                               

চাঁদনরি

চাঁদনরি যার মূল শরীরটা এবং ডানা ধূসর খয়েরি রঙের। এদের ডানার উভয় প্রান্ত বরাবর চাঁদমালা আঁকা, এই কারণেএই প্রজাপতির চাঁদনরি নামকরণ। এরা ‘নিম্ফ্যালিডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

চাতুল

চাতুল) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা ময়লা সাদা বর্ণের এবং ডানার উপর খয়েরি আলপনা আঁকা থাকে। এদের তিনটি অসমান আকৃতির লেজ দেখা যায়। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং থেকলিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

চান্দা

চান্দা) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা কালো বর্ণের এবং ডানায় চাঁদের আকৃতির সাদা অথবা ফিকে হলুদ রঙের নকশা দেখা যায়। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

চার বুঁদি

শুষ্ক ঋতুরূপ আর্দ্র ঋতুরূপেরই মতন প্রায় একইরকম; তবে চক্ষুবিন্দুগুলি ডানার উভয়তলেই ফ্যাকাশে ও কম স্পষ্ট। নিম্নতলে পিছনের ডানার চক্ষুবিন্দুগুলি অস্পষ্ট ফোঁটার মত বা অনেকক্ষেত্রে অনুপস্থিত।

                                               

ছাঁচনপাত্তি

এই প্রজাতির প্রজাপতিদের সিকিম, দক্ষিণ ভারত, শ্রীলঙ্কা, আসাম, মায়ানমার অঞ্চলে পাওয়া যায়।

                                               

ছাতক

ভারতের প্রায় সর্বত্র পাকিস্তান,আফগানিস্তান, বাংলাদেশ, মায়ানমার, শ্রীলঙ্কা, ফিলিপিন্স, নিউ গিনি এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

ছিট করঞ্জী

ছিট করঞ্জী) নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমিনিটিডিনি উপগোত্র এবং সুমালিয়া বর্গের অন্তর্ভুক্ত মাঝারী আকারের প্রজাপতি।প্রথম দর্শনে এই প্রজাতির সনাক্তকরণে প্রায়শই তুঁতচিল প্রজাতির সাথে ভ্রম হয়।

                                               

ছিটমউল

ছিটমউল) যার শরীর ও ডানা লালচে বাদামি রঙের এবং এরা মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ পরিবারের সদস্য এবং ডানায়িনি উপগোত্রের অন্তর্ভুক্ত।

                                               

ছিল্কিরানা

ছিল্কিরানা) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের কালচে খয়েরি রঙের প্রজাপতি। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং ‘থেকলিনি’ উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ছেউন সুর্মা

ছেউন সুর্মা)এক প্রজাতির মাঝারী আকারের বাদামী রঙের প্রজাপতি। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

জংলাবিড়া

ভারতে প্রাপ্ত জংলাবিড়ারা এর উপপ্রজাতি হল- Mycalesis perseus tabitha Fabricius, 1793 – Dakhan Common Bushbrown Mycalesis perseus blasius Fabricius, 1798 – Himalayan Common Bushbrown

                                               

জংলি যশ

জংলি যশ) হচ্ছে দক্ষিণ এশিয়ায় দেখতে পাওয়া একটি প্রজাপতি যেটি নিমফ্যালিডি পরিবারের মরফিনি উপপরিবারের অন্তর্ভুক্ত বৃহদাকার প্রজাতি। ইভান্স-এর মতানুসারে ভারতীয় পরিমণ্ডলে এই প্রজাতি দুর্লভ নয়, আবার উইন্টার ব্লাইথ জানিয়েছেন ভারতে এদের সাধারণত খুব ...

                                               

জরিনা খয়ের

জরিনা খয়ের) এর প্রজাতির মাঝারী আকারের প্রজাপতি। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং স্যাটায়রিনি উপগোত্রের সদস্য। বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুসারে এই প্রজাতি তফ্‌সিল ২ এর তালিকার অন্তর্ভুক্ত।

                                               

জলপান্না

জলপান্না) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা কালচে খয়েরী বর্ণের এবং ডানায় বেগুনী নীল রঙের পটি দেখা যায়। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রর সদস্য।

                                               

জামুই (প্রজাপতি)

ক্রমানুযায়ী জামুই এর উপপ্রজাতিগুলো হলো- H. b. montrouzieri Butler – H. b. pulchra Butler – New Caledonia H. b. rarik Eschscholtz, 1821) – Lifu H. b. nerina Fabricius, 1775 – H. b. jaluita Fruhstorfer, 1903 H. b. philippensis Butler, 1874 – Phili ...

                                               

জারদ বাতাসি

ভারত, ভুটান, থাইল্যান্ড, পূর্ব মালয়েশিয়া থেকে পশ্চিম চীন এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

জারাদ পাইকান

জারাদ পাইকান) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা বাদামী রঙের। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং হেসপেরায়িনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

জেমা ব্যান্ডেড এক

জেমা ব্যান্ডেড এক বা ব্যান্ডেড এক) ‘হেসপেরায়িডি’ বা স্কিপারস গোত্র ও হেসপেরায়িনি উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত ছোট আকৃতির প্রজাপতি।

                                               

জোহুর

জোহুর) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা খয়েরি বাদামী রঙের এবং রোঁয়া যুক্ত। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং হেসপেরায়িনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ঝাঁকপাল্লা

ঝাঁকপাল্লা) যার মূল শরীর উজ্জ্বল কমলা হলুদ বর্ণের এবং ডানা দুটি কমলাটে হলুদ বর্ণ দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং হেলিকোনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ঝালর

ভারতে প্রাপ্ত ঝালর এর উপপ্রজাতি হল- Catapaecilma major callone Fruhstorfer, 1915 – Sahyadri Common Tinsel Catapaecilma major Druce, 1895 – Himalayan Common Tinsel

                                               

ঝিনুকপলাশ

ঝিনুকপলাশ) এক প্রজাতির ছোট থেকে একটু বড় আকারের প্রজাপতি। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এবং সমগ্র এশিয়া মহাদেশ জুড়েই এর বিস্তার। ক্ষিপ্র গতিতে এলোমেলো ভাবে এদের উড়তে দেখা যায়। গ্রামাঞ্চলে বিশেষভাবে এদের দেখা পাওয়া যায়।

                                               

ঝিলম

ঝিলম) এক প্রজাতির ছোট আকারের ধূসর বাদামী রঙের প্রজাপতি, এদের ডানার উপরিতল উজ্জ্বল ধাতব তুঁতে বর্ণের। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং ‘পোরিটিনি’ উপগোত্রের সদস্য।

                                               

টংসা

ভারতে প্রাপ্ত টংসার উপপ্রজাতি হল- Hypolycaena erylus himavantus Fruhstorfer, 1912 – Sikkim Common Tit Hypolycaena erylus andamana Moore, 1877 – Andaman Common Tit

                                               

টাইগার হপ্পার

টাইগার হপ্পার) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা হলুদ এবং বাদামী রঙের। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং হেসপেরায়িনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

টুয়া

টুয়া) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা কালচে এবং উজ্জ্বল নীলাভ রঙের এবং এদের পিছনের ডানায় কমলা এবং হলুদ ব্ররনের চোখ দেখা যায়। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ গোত্রের সদস্য।

                                               

টেইলড রেড ফরেস্টার

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- সাঁঝলা প্রজাতির Melanities leda শুষ্ক-ঋতুরূপের সাথে টেইলড রেড ফরেস্টারের আপাত সাদৃশ্য রয়েছে। এদের সামনের ডানা শীর্ষভাগে ব্ল্যাক ফরেস্টার Lethe vindhya অপে ...

                                               

ট্যাবি

ভারতএর হিমাচল প্রদেশ, উত্তরাঞ্চল সিকিম থেকে আরুণাচল প্রদেশ, উত্তর-পূর্ব ভারত, নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ এবং মায়ানমার এ দেখা যায়। এপ্রিল থেকে ডিসেম্বর পর্যন্ত ৪০০ থেকে ২০০০ ফুট উচ্চতা অবধি এদের দর্শন মেলে।

                                               

ডট্‌-ড্যাশ-সার্জেন্ট

ডট্‌-ড্যাশ-সার্জেন্ট) ক্রান্তীয় এবং উপক্রান্তিয় ও কম্বোডিয়ায় প্রাপ্ত নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্র এবং প্যান্টোপরিয়া বর্গের অন্তর্গত মাঝারী আকৃতির প্রজাতি। এই প্রজাতি ভারতের বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুসারে তফ্‌সিল ২ এর তালিকার অন ...

                                               

ডার্ক ক্লাউডেড ইয়েলো

ভারতে জম্মু ও কাশ্মীর থেকে অরুণাচল প্রদেশ, আফগানিস্তান, নেপাল, ভুটান, উত্তর মায়ানমার, পাকিস্তান, দক্ষিণ চীন, ইন্দো-চীন ও দক্ষিণ ইরান এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের দেখা যায়।

                                               

ডার্ক স্যাফায়ার

ডার্ক স্যাফায়ার অথবা ইন্ডিয়ান স্যাফায়ার) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা উজ্জ্বল সোনালী রঙের এবং এদের উপরের ডানা ধাতব নীলচে বেগুনী রঙ দেখা যায়। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং লাইসিনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ডাস্কি ডায়াডেম

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- এরা satyr উপ-পরিবাএর অন্তর্ভুক্ত প্রজাতি। ডানার উভয় পৃষ্ঠের মূল রঙ বাদামি ও কালচে বাদামি এবং ডানার পোস্ট-ডিসকাল ডিসকাল পরবর্তী অংশ থেকে প্বার্শপ্রান্ত রেখ ...

                                               

ডোডোনা এজেওন

ডোডোনা এজেওন বা অরেঞ্জ পাঞ্চ ডোডোনা গোত্রভুক্ত প্রজাপতি যা জন ওয়েস্টউড ১৮৫১ সালে প্রথম চিহ্নিত করেন। এটি ভারতের হিমালয় অঞ্চলে সচারচর পরিদৃষ্ট হয়। বাদামী বা হলুদ এমনকী কখনও খয়েরি রঙের পাখার এই প্রজাপতি ক্রমবিলীয়মান। তাই ভারতের বন্য সুরক্ষা আই ...

                                               

ডোরাকাটা বাঘ (প্রজাপতি)

ডোরাকাটা বাঘ মাঝারি থেকে বড় আকারের প্রজাপতি যা বাঘ বা বাঘবল্লা নামেও পরিচিত। নিম্ফ্যালিডি পরিবারের ডানায়িনি উপগোত্রের সদস্য এরা। এদের চূড়া বাদে সামনের দুই ডানার ওপরের বাকি অংশ দেখতে বাঘের মতো তাই ডোরাকাটা বাঘ বা বাঘবল্লা বলেই পরিচিত।

                                               

তল্লার

তল্লার এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি, যাদের মুল শরীআর ডানা সাদা এবং আকাশী নীল বর্ন যুক্ত। এরা ‘পিয়েরিডি’ পরিবার এবং পিয়েরিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

তাঁতরাবিরা

ভারতে প্রাপ্ত তাঁতরাবিরা এর উপপ্রজাতি হল- Mycalesis visala Moore, 1857 – Indian Long-branded Bushbrown Mycalesis visala andamana Moore, 1892 – Andaman Long-branded Bushbrown

                                               

তাত্রা বল্গা

তাত্রা বল্গা এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি । এদের নিচের ডানার পিছনের দিকে লেজের মত প্রক্ষিপ্ত অংশ থাকে, যার জন্য এদের সোয়ালোটেল বলা হয়। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের সদস্য।

                                               

তান সাঁগ্রা

ভারতে প্রাপ্ত তান সাঁগ্রা এর উপপ্রজাতি হল- Notocrypta feisthamelii alysos Moore, 1865 – Himalayan Spotted Demon

                                               

তামট

তামট এক প্রজাতির প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা এবং ডানাগুলি লালচে তামা রঙের। এরা মাঝারি আকারের এবং‍’নিমফ্যালিডি পরিবারের সদস্য।

                                               

তামা রিমলি

ভারতে প্রাপ্ত তামা রিমলি এর উপপ্রজাতি হল- Rapala pheretima petosiris Hewitson, 1863 – ভারতীয় তামা রিমলি Indian Copper Flash

                                               

তিতিমোউরাল

তিতিমোউরাল) এক বড় আকারের প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা কালো বর্ণের তার উপর সবুজ আবির ছেটানো। পিছনের ডানায় চওড়া নীল পটি দেখা যায়। এরা প্যাপিলিওনিডি পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রর সদস্য।

                                               

তিলে ফিরকি

তিলে ফিরকি) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা বাদামী রঙের। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং হেসপেরায়িনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

তুঁতচিল

তুঁতচিল) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা কালো বর্ণের এবং ডানায় সবজে নীল রঙের পটি দেখা যায়। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রর সদস্য।

                                               

তুঁতভুশন্ডা

তুঁতভুশন্ডা) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি যার শরীর এবং ডানা ধূসর কালচে বাদামী বর্ণের এবং নিচের ডানায় চওড়া নীলচে সাদা পটি দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

তুরান (প্রজাপতি)

ভারতে প্রাপ্ত তুরান এর উপপ্রজাতি হল- Charaxes eudamippus Doubleday, 1843 – Himalayan Great Nawab

                                               

তুর্ক টাংসা

তুর্ক টাংসা) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি। এদের দু-জোড়া লেজ দেখতে পাওয়া যায়, ১নং শিরা বরাবর লেজটি বড় এবং ২ নং শিরা বরাবর লেজটি ছোট । এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং ‘থেকলিনি’ উপগোত্রের সদস্য। বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুসারে এই প্রজাতি তফ্‌সিল ১ ...

                                               

দাগি ফিতেপলাশ

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- প্রথম দর্শনে আকার-আকৃতিতে ফিতেপলাশ প্রজাতির সাথে দাগি ফিতেপলাশ প্রজাতির ভ্রম হওয়া খুবই স্বাভাবিক, তবে উপরের ডানার প্রায় গোল আকৃতি দেখে একেবারেই এদের পৃথক ...

                                               

দাহর লোচন

দাহর লোচন)এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি। এদের বাইরের ডানা ঘিয়ে ধূসর বর্নের এবং ভিতরের ডানা ধাতব নীল আভা দেখা যায়। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং থেকালিনি উপগোত্রের সদস্য।