ⓘ Free online encyclopedia. Did you know? page 480




                                               

আঁকন

আঁকন) যার ডানা দুটি খাঁজকাটা এবং কমলাটে লাল বর্ণের। ডানায় সার বাঁধা V আকৃতির পটি দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং হেলিকোনায়িনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

আমব্লিপদিয়া আনিতা

আমব্লিপদিয়া আনিতা এক প্রজাতির মাঝারী আকারের ধূসর বাদামী রঙের প্রজাপতি। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং ‘থেকলিনি’ উপগোত্রের সদস্য।

                                               

আরুণ প্রজাপতি

আরুণ) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা উজ্জ্বল সোনালী রঙের এবং এদের উপরের ডানা ধাতব নীলচে বেগুনী রঙ দেখা যায়। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং লাইসিনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

আরোপালা সিলেটেনসিস

আরোপালা সিলেটেনসিস, সিলেট প্রজাপতি, অনেক সময় অ্যামব্লিপডিয়া গোত্রে স্থান দেয়া হয়, হচ্ছে একটি ছোট্ট প্রজাপতি যা ভারতে প্রাপ্ত লাইসিনিডি পরিবারের একটি সদস্য।

                                               

আলকুসুম

আলকুসুম এরা হলুদ ও কমলা বর্ণের মাঝারি আকারের প্রজাপতি এবং এরা ‘পিয়েরিডি’ পরিবারের সদস্য। এই প্রজাপতির ওপর পিঠ বাসন্তী হলুদ রঙের। সামনের ডানার শীর্ষকোণে চওড়া কালো পটির মধ্যে কমলা চওড়া পটি দেখা যায়। পিছনের ডানার পাশে মাঝারি বা কালো সরু পটি দেখা ...

                                               

আলতে

আলতে) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি, যার মূল শরীরটা লাল বর্ণের, ডানা কালো এবং তার ওপর লাল রঙের নকশাযুক্ত। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ পরিবারের এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ইক্সিয়াস মারিয়ান্নে

স্ত্রী-পুরুষ উভয় প্রকারেই শুষ্ক ঋতুরূপ এবং আর্দ্র ঋতুরূপ পার্থক্য খুবই কম। ডানার নিম্নতলের দাগছোপগুলি শুষ্ক ঋতুরূপ্র বেশি দেখা যায় এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে দাগ-ছোপগুলি অনেক অনেক বেশি স্পষ্টভাবে দৃশ্যমান।

                                               

ইন্ডিয়ান টর্টয়েস্‌সেল

ইন্ডিয়ান টর্টয়েস্‌সেল) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের প্রজাপতি যার শরীর এবং ডানা বাদামী বর্নের যাতে কমলা, কালো এবং হলুদ বর্নের আধিক্য দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং নিমফ্যালিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ইয়ালো স্পট সুইফ্‌ট

ইয়ালো স্পট সুইফ্‌ট) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের প্রজাপতি। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং হেসপেরায়িনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ইয়েলো কোস্টার

ভারত হিমাচল প্রদেশ থেকে পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম হয়ে অন্ধ্রপ্রদেশ ও উত্তর-পূর্ব ভারত নেপাল, ভুটান, মায়ানমার ও পশ্চিম চীন ইত্যাদির বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

উইজার্ড

উইজার্ড) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্র এবং রাইনোপালপা বর্গের অন্তর্ভুক্ত প্রজাতি। এই প্রজাতি ভারতের বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুসারে এই প্রজাতি তফ্‌সিল ২ এর তালিকার অন্তর্ভুক্ত।

                                               

উরফিদাঁড়া

উরফিদাঁড়া)এক প্রজাতির মাঝারী আকারের প্রজাপতি। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

এলি বাতাসি

ভারত নেপাল, ভুটান, মায়ানমার ও উত্তর ইন্দো-চীন এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

কংকা

ভারতে পশ্চিমবঙ্গ, সিকিম থেকে অরুণাচল প্রদেশ, নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ, মায়ানমারের ট্যানিনথারি Tanintharyi অঞ্চল, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম ও মালয় উপদ্বীপ এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের দেখা যায়।

                                               

কড়ি (প্রজাপতি)

কড়ি এক প্রজাতির ছোট আকারের সাদা রঙের লেজহীন প্রজাপতি, যাদের বিশেষত্ব হল ডানায় বিচ্ছিন্ন কালো রঙের ফুটকি। এরা লাইসিনিডি গোত্রের এবং পলিয়োম্যাটিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

কমন ওইট

ভারতএ, এছাড়া বাংলাদেশ, ভুটান, মায়ানমার, সুমাত্রা, বর্নিও, মালয় উপদ্বীপ এবং ফিলিপিন্স এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের দেখা যায়।

                                               

কমন ফন

এদের ভারতে সিকিম থেকে অরুণাচল প্রদেশ, আসাম, মেঘালয় ও নাগাল্যান্ড, ভুটান, মায়ানমার, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুর থেকে দক্ষিণ ইউনান এর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের দেখা যায়।

                                               

কমন রেড ফরেস্টার

ভারতে প্রাপ্ত কমন রেড ফরেস্টারের উপপ্রজাতি হল- Lethe mekara Moore, 1857 – Darjeeling Common Red Forester Lethe mekara zuchara Fruhstorfer, 1911 – Assam Common Red Forester

                                               

করঞ্জিয়া

করঞ্জিয়া) দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় প্রাপ্ত নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমিনিটিডিনি উপগোত্র এবং লিমেনিটিস বর্গের অন্তর্ভুক্ত মাঝারী আকারের লালচে খয়রী বর্নের প্রজাপতি। এই প্রজাপতির ওপর পিঠের ডানাদুটির মাঝখান দিয়ে একটি সাদা পটি বিদ্যমান, সামনের এবং পিছন ...

                                               

কল্কা রাংচিতি

কল্কা রাংচিতি) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের ধূসর বাদামী রঙের প্রজাপতি। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং ‘থেকলিনি’ উপগোত্রের সদস্য।

                                               

কাংসা

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- এই প্রজাতি রায়সেনা Hill Jezebel প্রজাতিকে নকল করে। পুরুষ নমুনার সামনের ডানার শীর্ষভাগ তীক্ষ্ণ। ডানার উপরিতল সাদা এবং সামনের ডানার উপরিপৃষ্ঠ শীর্ষভাগ চওড়া ...

                                               

কাওয়া

কাওয়া বৈজ্ঞানিক নাম: Euploea coreCramer) যার শরীর ও ডানা গাঢ় খয়েরি রঙের, ডানার প্রান্তে সাদা তিলক দেখা যায়। এরা মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা নিমফ্যালিডি পরিবারের সদস্য এবং ডানায়িনি উপগোত্রের অন্তর্ভুক্ত।

                                               

কাগজি

কাগজি) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের পাহাড়ী অরণ্যবাসী প্রজাপতি। পাহাড়ে ৮০০০ফুট উচ্চতা অবধি এদের দেখা মেলে। কাগজির মূল শরীর হালকা হলদেটে সাদা বর্ণের এবং ডানাদুটি মানচিত্রের ন্যায় সীমানাচিহ্নের মতো সরু সরু কালো রেখায় চিত্রিত। সামনের ডানার শীর্ষে এব ...

                                               

কাটি ফিরকি

কাটি ফিরকি) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং হেসপেরায়িনি উপগোত্রের সদস্য। ভারতে এই প্রজাতিটি দুষ্প্রাপ্য।

                                               

কাটিবল্গা

কাটিবল্গা) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি। এদের নিচের ডানার পিছনের দিকে লেজের মত প্রক্ষিপ্ত অংশ থাকে, যার জন্য এদের সোয়ালোটেল বলা হয়। এরা প্যাপিলিওনিডি পরিবার এবং প্যাপিলিওনিনি উপগোত্র এবং গ্রাফিয়াম বর্গের অন্তর্ভুক্ত প্রজাতি। এই প্রজাতি ভারত ...

                                               

কাঠ কিচক

ডানার উপরিতল লালচে বাদামী বর্নের। পিছনের ডানা ভীষণ ফ্যাকাসে বাদামী। সামনের ডানার উপরিতলের বাইরের দিক অর্থাৎ পোস্ট ডিসকাল অঞ্চলে অপেক্ষাকৃত ঘন বাদামী এবং অনিয়মিতভাবে সারিবদ্ধ ও বিভিন্ন আকৃতির অর্দ্ধ স্বচ্ছ কিছু ছোপ বর্তমান, ডিসকাল ও পোস্ট ডিসকাল ...

                                               

কানমরচে (প্রজাপতি)

কানমরচে) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা মরচে রঙা, আর ডানায় গাঢ় মরচে অথবা কালো রঙের আজিকাটা। এরা ‘নিমফ্যালিডি’ গোত্রের সদস্য।

                                               

কাপতাই

কাপতাই) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং হেসপেরায়িনি উপগোত্রের সদস্য। এদের দেহ কালচে বাদামী বর্নের এবং পিছনের ডানার নিচের অংশে প্রায় এক-তৃতীয়াংশ জুড়ে সাদা অঞ্চল দেখা যায়। এই অঞ্চলটির সীমারেখা এবড়ো-খেবড়ো ধরনের ...

                                               

কাপ্রোনা রান্সোন্নেত্তি

কাপ্রোনা রান্সোন্নেত্তি) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি। এরা ‘হেসপেরায়িডি’ গোত্রের এবং পায়ারজিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

কালামাটি

কালামাটি) প্রজাতি দক্ষিণ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় প্রাপ্ত নিমফ্যালিডি গোত্র ও স্যাটিরিনি উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত প্রজাপতি।

                                               

কালি পাংখা

কালি পাংখা) যার মূল শরীর কালো বর্ণের এবং ডানা দুটিতেও নীলচে কালো বর্ণ দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং আপাটুরিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

কালিম

কালিম) এক প্রজাতির বড় আকারের প্রজাপতি। এরা ‘প্যাপিলিওনিডি’ গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এবং সমগ্র এশিয়া মহাদেশ জুড়েই এর বিস্তার।

                                               

কাশ বাজরাল

ভারতে প্রাপ্ত কাশ বাজরাল এর উপপ্রজাতিসমূহ হল- Mimathyma ambica chitralensis Evans, 1912 – West Himalayan Purple Emperor Mimathyma ambica Kollar, 1844 – East Himalayan Purple Emperor

                                               

কুঁচ রাংগী

কুঁচ রাংগী) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি যার শরীর এবং ডানা নীলচে সবুজ বর্ণের এবং ডানায় লাল বিন্দু দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্রের সদস্য। বন্যপ্রাণ সংরক্ষণ আইন অনুসারে এই প্রজাতি তফ্‌সিল ৪ এর তালিকার অন্তর্ভুক্ত।

                                               

কুঁচি কংকা

ভারতে প্রাপ্ত কুঁচি কংকা এর উপপ্রজাতি হল- Delias acalis kandha Doherty, 1886 – Kandha Redbreast Jezebel Delias acalis pyramus Wallace, 1867 – Himalayan Redbreast Jezebel

                                               

কুচিলা (প্রজাপতি)

কুচিলা) এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এরা ‘পিয়েরিডি’ গোত্রের অন্তর্ভুক্ত এবং ভারত, চীন, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া মহাদেশ ও ইন্দোনেশিয়া দেশ জুড়েই এর বিস্তার। এদের সাধারণত মাটির কাছাকাছি উড়তে দেখা যায়। উন্মুক্ত তৃণক্ষেত্র এবং লতাগুল্মের জঙ্গলে ...

                                               

কুমকুম করোঞ্জী

কুমকুম করোঞ্জী) একপ্রকারের মাঝারী আকৃতির প্রজাপতি যার মূল শরীর চকোলেট বর্ণের এবং ডানায় চওড়া সাদা পটি অথবা ব্যান্ড দেখা যায়। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং লিমেনিটিডিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

কুশ (প্রজাপতি)

কুশ যার শরীর ও ডানা কালচে খয়েরি রঙের, ডানায় নীলচে ধূসর সরু ডোরা দেখা যায়। এরা বড় আকারের প্রজাপতি। কুশ ‘নিমফ্যালিডি’ পরিবারের সদস্য এবং অ্যাপাটুরিনি উপগোত্রের অন্তর্ভুক্ত।

                                               

কেঁদ ফিরকি

প্রজাপতির দেহাংশের পরিচয় বিষদ জানার জন্য প্রজাপতির দেহ এবং ডানার অংশের নির্দেশিকা দেখুন:- ডানার উপরিতল গাঢ় বাদামি বা কালচে বাদামি ও সাদা অর্ধ-স্বচ্ছ দাগ-ছোপ যুক্ত। সামনের ডানায় কোস্টার ঠিক নিচেই শীর্ষভাগের নিচে সাব-এপিক্যাল অংশে ৩ টি ছোট ছোপ স ...

                                               

কেউন্দি

পাউডার্ড ব্যারন)এক প্রজাতির মাঝারী আকারের বাদামী রঙের প্রজাপতি। এরা নিমফ্যালিডি পরিবার এবং এউথালিয়া উপগোত্রের সদস্য।

                                               

কোকেয়ারা

কোকেয়ারা) যার মূল শরীর গাঢ় খয়েরি বর্ণের এবং ডানা দুটিতে হালকা হলুদ রঙের পটি দেখা যায়। এরা মাঝারি আকৃতির প্রজাপতি। এরা রিওডিনিডি পরিবার এবং রিওডিনিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

ক্রেনুলেট্ মটেল

ক্রেনুলেট্ মটেল) লাইসেনিডি বা ব্লুজ গোত্র ও মিলেটিনি উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত মাঝারি আকার বিশিষ্ট প্রজাতি। অনেক ভারতীয় গ্রন্থে এই প্রজাতিকে ক্রেনুলেট্ ডার্কি বা গ্রেট ডার্কি নামেও উল্লেখ কর হয়েছে।

                                               

খয়রা জহুর

ভারত ভুটান, নেপাল, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, মায়ানমাএর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

খয়রাবিড়া

ভারত, নেপাল, ভুটান, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, মায়ানমার, মালয় এবং চীন সহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়াএর বিভিন্ন অঞ্চলে এদের পাওয়া যায়।

                                               

খয়েরচক

খয়েরচক)এক প্রজাতির মাঝারি আকারের প্রজাপতি। এদের উপরের ডানা গাঢ় বাদামী বর্ণের এবং ডানার কৌনিক প্রান্ত ঘেঁষে একটা সাদাটে ছোপ দেখা যায়। খয়েরচক নিমফ্যালিডি পরিবারের।

                                               

খয়েরা

স্ত্রী প্রকার সাধারণত পুরুষ অপেক্ষা ফ্যাকাশেতর। ডানার দাগ-ছোপ অনুরূপ; তবে সামনের ডানার ছোপগুলি পুরুষ অপেক্ষা স্ত্রী প্রকারে বৃহত্তর। স্ত্রী প্রকারে সামনের ডানার উপরের ডিসকাল ছোপদুটি চৌকো, সেল-এর বহিঃপ্রান্তে দুটি সংযুক্ত বড় ছোপ বিদ্যমান। স্ত্রী ...

                                               

খালসা সুরুল

খালসা সুরুল) এক প্রজাতির ছোট আকারের প্রজাপতি যার শরীর ও ডানা ধূসর-খয়েরি বর্ণের এবং সাদা ছোপ দেখা যায়। এরা লাইসিনিডি গোত্রের এবং পলিয়োম্যাটিনি উপগোত্রের সদস্য।

                                               

খৈরি

খৈরিদের সমগ্র ভারত এই দেখা যায়। হিমালয় এর ৯০০০ ফুট উচ্চতা অবধি সাধারনত এদের দেখা যায়। এছাড়া শ্রীলঙ্কা, নেপাল, মায়ানমার থেকে মালয়েশিয়া, সুমাত্রা এবং চিনের কিছু অংশে এদের পাওয়া যায়।

                                               

খোড়ে বাঘা

খোড়ে বাঘা) প্রজাতি নিমফ্যালিডি গোত্র ও ডানায়িনি উপ-গোত্রের অন্তর্ভুক্ত মাঝারীর চেয়ে বড় মাপের প্রজাপতি।

                                               

গরান রাংচিতি

গরান রাংচিতি) এক প্রজাতির মাঝারী আকারের খয়েরি রঙের প্রজাপতি। এরা ‘লাইসিনিডি’ গোত্রের এবং ‘থেকলিনি’ উপগোত্রের সদস্য। সম্ভবত এই প্রজাতির প্রজাপতি ভারতের সব থেকে বড় ওকব্লু ।