ⓘ Free online encyclopedia. Did you know? page 452




                                               

আগাথোক্লেস দিকাইওস

আগাথোক্লেস দিকাইওস একজন ইন্দো-গ্রিক শাসক ছিলেন, যিনি আনুমানিক খ্রিস্টপূর্ব ১৯০ থেকে খ্রিস্টপূর্ব ১৮০ পর্য্যন্ত পারোপামিসাদাই অঞ্চল শাসন করেন। তিনি গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় শাসক প্রথম দেমেত্রিওসের উত্তরাধিকারী অথবা সামন্ত ছিলেন এবং আরাখোশিয়া অঞ্চলের ইন ...

                                               

দ্বিতীয় ইউক্রাতিদেস

দ্বিতীয় ইউক্রাতিদেস একজন গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় রাজ্যের শাসক ছিলেন, যিনি সম্ভবতঃ খ্রিস্টপূর্ব ১৪৫ থেকে খ্রিস্টপূর্ব ১৪০ পর্য্যন্ত রাজত্ব করেন।

                                               

দ্বিতীয় ইউথুদেমোস

দ্বিতীয় ইউথুদেমোস গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় রাজ্যের শাসক প্রথম দেমেত্রিওসের পুত্র ছিলেন, যিনি আনুমানিক ১৮০ খ্রিস্টপূর্বাব্দে সিংহাসন লাভ করেন। তার মুদ্রায় তাকে একজন কিশোর হিসেবে দেখা যায় বলে, অনুমান করা হয় যে, তিনি অল্প বয়সে মৃত্যুবরণ করেন।

                                               

প্রথম আন্তিমাখোস থেওস

প্রথম আন্তিমাখোস থেওস একজন গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় রাজ্যের শাসক ছিলেন, যিনি খ্রিস্টপূর্ব ১৮৫ থেকে খ্রিস্টপূর্ব ১৭০ পর্য্যন্ত রাজ্যশাসন করেন।

                                               

প্রথম ইউক্রাতিদেস

প্রথম ইউক্রাতিদেস একজন অন্যতম শক্তিশালী গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় রাজ্যের শাসক ছিলেন, যিনি খ্রিস্টপূর্ব ১৭০ থেকে খ্রিস্টপূর্ব ১৪৫ পর্য্যন্ত রাজ্যশাসন করেন।

                                               

প্রথম ইউথুদেমোস

প্রথম ইউথুদেমোস গ্রিক সেনাপতি আপোলোদোতাসের পুত্র ছিলেন। তিনি গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় শাসক প্রথম দিওদোতোস সোতেরের কন্যা ও দ্বিতীয় দিওদোতোসের ভগ্নীকে বিবাহ করেন এবং প্রথম দেমেত্রিওস নামক তার এক পুত্র সন্তানের জন্ম হয়।

                                               

প্রথম দিওদোতোস সোতের

প্রথম দিওদোতোস সোতের ব্যাক্ট্রিয়া অঞ্চলের সেলেউকিদ সত্রপ ছিলেন, যিনি সেলেউকিদ সম্রাট দ্বিতীয় আন্তিওখোস থেওসের মৃত্যুপর স্বাধীনতা ঘোষণা করেন।

                                               

প্রথম হেলিওক্লেস

প্রথম হেলিওক্লেস শেষ গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় রাজ্যের শাসক ছিলেন, যিনি সম্ভবতঃ খ্রিস্টপূর্ব ১৪৫ থেকে খ্রিস্টপূর্ব ১৩০ পর্য্যন্ত রাজত্ব করেন।

                                               

ব্যাক্ট্রিয়ার প্রথম দেমেত্রিওস

প্রথম দেমেত্রিওস গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় রাজ্যের শাসক ছিলেন, যিনি পারোপামিসাদাই ও আরাখোশিয়া অঞ্চলগুলি অধিকার করে ইন্দো-গ্রিক রাজ্য প্রতিষ্ঠা করেন।

                                               

ব্যাক্ট্রিয়ার প্লাতোন

অসমুন্ড বোপেয়ারাচ্চি প্লাতোনের মুদ্রা বিশ্লেষণ করে মত দেন যে, সম্ভবতঃ খ্রিস্টপূর্ব ১৪৫ থেকে খ্রিস্টপূর্ব ১৪০ পর্য্যন্ত তিনি রাজ্যশাসন করেন। সম্ভবতঃ তিনি গ্রিক-ব্যাক্ট্রিয় শাসক প্রথম ইউক্রাতিদেসের ভাই ছিলেন এবং ১৪৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দে তাঁর হত্যাপর ...

                                               

টমাস বেয়ারিং, প্রথম আর্ল অব নর্থব্রুক

টমাস বেয়ারিং, প্রথম আর্ল অব নর্থব্রুক, একজন ব্রিটিশ রাজনীতিক যিনি লিবারেল পার্টির রাজনীতির সাথে জড়িত ছিলেন। ১৮৭২ থেকে ১৮৮৬ পর্যন্ত ভারতের ভাইসরয় হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ভারতে ব্রিটিশ শাসনের গুনগত মান উন্নত করা ছিল অন্যতম প্রধান অবদান। তিনি ...

                                               

ভিক্টর ব্রুস

ভিক্টর আলেক্সান্ডার ব্রুস, ৯ম আর্ল অব এলগিন, ১৩শ আর্ল অব কিনকার্ডাইন, ১৮৬৩ সাল পর্য়ন্ত লর্ড ব্রুস হিসাবে পরিচিত, একজন ডান পন্থী ব্রিটিশ উদারপন্থী রাজনীতিক। ১৮৯৪ থেকে ১৮৯৯ পর্যন্ত ভারতের ভাইসরয় হিসাবে দায়িত্ব পালন করেন। ১৯০২-০৩ সালে তিনি আর্থার ...

                                               

আম্মিয়ানুস মারকেল্লিনুস

Wolfgang Seyfarth ed. Rerum gestarum libri qui supersunt in 2 vols. Leipzig: Teubner, 1978. এই নিবন্ধটি একটি প্রকাশন থেকে অন্তর্ভুক্ত পাঠ্য যা বর্তমানে পাবলিক ডোমেইনে: চিসাম, হিউ, সম্পাদক ১৯১১। "Ammianus, Marcellinus"। ব্রিটিশ বিশ্বকোষ । 1 ১১তম স ...

                                               

বর্মণ রাজবংশ

বর্মণ রাজবংশ পুষ্যবর্মণ কর্তৃক প্রতিষ্ঠিত কামরূপ রাজ্যের প্রথম ঐতিহাসিক রাজবংশ। এই রাজবংশের শাসকরা গুপ্ত সাম্রাজ্যের সামন্ত ছিলেন, কিন্তু পরবর্তীকালে গুপ্ত সাম্রাজ্যের দুর্বলতার সুযোগে মহেন্দ্রবর্মণ দুইটি অশ্বমেধ যজ্ঞ সম্পন্ন করে স্বাধীনতা ঘোষণা ...

                                               

পুষ্যবর্মণ

আসামের ডুবি ও নিধানপুর অঞ্চল থেকে প্রাপ্ত ভাস্করবর্মণের তাম্রলিপিগুলি থেকে জানা যায় যে, বর্মণ রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা ছিলেন পুষ্যবর্মণ। এই লিপিতে তাঁকে নরকাসুর, ভগদত্ত ও বজ্রদত্ত নামক পৌরাণিক চরিত্রগুলিরর বংশধর বলে উল্লেখ করা হয়েছে। অরুণ ভট্টাচার্ ...

                                               

ইফফাত উন নেসা বেগম

ইফফাত-উন-নিসা বেগম একজন মোগল রাজকন্যা। তার নামের অর্থ মহিলাদের মধ্যে শালীন। তার বাবা রাজকুমার দাওয়ার বকশ, যিনি সম্রাট শাহজাহানের নাতি। বিবাহসূত্রে তিনি আফসারিয় রাজবংশে প্রবেশ করেন।

                                               

অগমকুয়া

অগমকুয়া হল ভারতের বিহার রাজ্যের রাজধানী পাটনা শহরের একটি প্রাচীন কুয়ো ও প্রত্নক্ষেত্র। এটি মৌর্য সম্রাট অশোকের সমসাময়িক। গোলাকার এই কুয়োটি ইঁটের তৈরি। এর উপরিভাগের উচ্চতা ১৩ মিটার । অবশিষ্ট ১৯ মিটার কাঠের রিং দেখা যায়। অগমকুয়া আর্কিওলজিক্যা ...

                                               

কুম্ভরার

কুম্ভরার হল প্রাচীন মহানগরী পাটলীপুত্রের ধ্বংসাবশেষ। এটি ভারতের বিহার রাজ্যের রাজধানী পাটনা শহরের রেল স্টেশনের ৫ কিলোমিটার পূর্বে অবস্থিত। কুম্ভরারে যে মৌর্যযুগীয় খ্রিস্টপূর্ব ৩২২-১৮৫ অব্দ প্রত্নতাত্ত্বিক ধ্বংসাবশেষ আবিষ্কৃত হয়েছে তার মধ্যে রয় ...

                                               

কাকবর্ণ কালাশোক

কাকবর্ণ কালাশোক বা কাকবর্ণ কালাসোক শিশুনাগ রাজবংশের রাজা ছিলেন যিনি ৩৯৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ৩৬৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্য্যন্ত রাজত্ব করেন।

                                               

মহানন্দিন

মহানন্দিন বা মহানন্দী শিশুনাগ রাজবংশের রাজা ছিলেন যিনি ৩৬৭ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ৩৪৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্য্যন্ত মগধ রাজত্ব করেন।

                                               

শিশুনাগ

শিশুনাগ শিশুনাগ রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা রাজা ছিলেন, যিনি আনুমানিক ৪১৩ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ৩৯৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত মগধ শাসন করেন।

                                               

অগ্নিমিত্র

মহাকবি কালিদাস রচিত মালবিকাগ্নিমিত্রম কাব্যে অগ্নিমিত্রকে বৈম্বিক কুলের সন্তান বলে উল্লেখ করা হয়েছে; অপরদিকে পুরাণে তাকে শুঙ্গ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। মালবিকাগ্নিমিত্রম কাব্য থেকে জানা যায় যে, পিতার শাসনকালে অগ্নিমিত্র বিদিশা অঞ্চলের গোপত্রী ...

                                               

পুষ্যমিত্র শুঙ্গ

পুষ্যমিত্র শুঙ্গ শুঙ্গ সাম্রাজ্যের প্রতিষ্ঠাতা সম্রাট ছিলেন। বাণভট্ট রচিত হর্ষচরিত গ্রন্থানুসারে, ১৮৫ খ্রিস্টপূর্বাব্দে মৌর্য্য রাজবংশের নবম সম্রাট বৃহদ্রথের প্রধান সেনাপতি পুষ্যমিত্র শুঙ্গ মৌর্য্য সেনাবাহিনীর কুচকাওয়াজে শক্তি প্রদর্শনের সময় তা ...

                                               

ভগভদ্র

ভগভদ্র শুঙ্গ রাজবংশের সম্রাট ছিলেন, যিনি আনুমানিক ১১০ খ্রিস্টপূর্বাব্দে শাসন করেন। তার রাজধানী পাটলিপুত্র হলেও মনে করা হয় তিনি বিদিশা থেকেও শাসন পরিচালনা করতেন।

                                               

অজাতশত্রু

অজাতশত্রু বা অজাতসত্তু হর্য্যঙ্ক রাজবংশের রাজা ছিলেন, যিনি ৪৯২ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ৪৬০ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত মগধ শাসন করেন। তাঁর শাসনকালে হর্য্যঙ্ক রাজবংশের শাসন সর্বাধিক বিস্তৃত হয়।

                                               

উদায়িভদ্দক

উদায়িভদ্দক বা উদয়ভদ্দ বা উদয়ভদ্র হর্য্যঙ্ক রাজবংশের রাজা ছিলেন, যিনি ৪৬০ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ৪৪৪ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত মগধ শাসন করেন।

                                               

বজিরা

বজিরা কোশল রাজ্যের রাজা পসেনদি ও তার পত্নী মল্লিকার একমাত্র কন্যা ছিলেন। ৩৯২ খ্রিস্টপূর্বাব্দে মগধের রাজা ও পসেনদির ভগ্নীপতি বিম্বিসার তার পুত্র অজাতশত্রু কর্তৃক বন্দী হন ও পরের বছর বন্দী অবস্থায় তার মৃত্যু ঘটে। এই ঘটনায় ক্রুদ্ধ কোশল রাজ পসেনদি ...

                                               

বিম্বিসার

বিম্বিসার হর্য্যঙ্ক রাজবংশের রাজা ছিলেন, যিনি ৫৪২ খ্রিস্টপূর্বাব্দ থেকে ৪৯২ খ্রিস্টপূর্বাব্দ পর্যন্ত মগধ শাসন করেন। তার পৃষ্ঠপোষকতায় উত্তর ভারতে বৌদ্ধ ধর্মের বিস্তার সম্ভব হয়েছিল।

                                               

এস এইচ এম বি নূর চৌধুরী

এস এইচ এম বি নূর চৌধুরী বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধের একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। স্বাধীনতা যুদ্ধে তার সাহসিকতার জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে বীর বিক্রম খেতাব প্রদান করে। তিনি শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মস্বীকৃত ও মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামী। বর্তমানে তিনি কানাডায ...

                                               

প্রথম চন্দ্রগুপ্ত

প্রথম চন্দ্রগুপ্ত গুপ্ত মহারাজা শ্রীগুপ্তের পৌত্র এবং ঘটোৎকচগুপ্তের পুত্র ছিলেন। পিতার মৃত্যুপর তিনি মহারাজাধিরাজ উপাধি গ্রহণ করে সিংহাসনে আসীন হন। তিনি কুমারদেবী নামক একজন লিচ্ছবি রাজকুমারীকে বিবাহ করেন। তার পুত্র সমুদ্রগুপ্তের একটি স্বর্ণমুদ্রা ...

                                               

শ্রীগুপ্ত

আনুমানিক ৬৯০ খ্রিষ্টাব্দে ইজিং নামক চীনা বৌদ্ধ ভিক্ষুর রচনা থেকে দ্বিতীয় চন্দ্রগুপ্তের কন্যা প্রভাবতীগুপ্তের পুণে তাম্রলিপির বর্ণনা পাওয়া যায়, যেখানে মহারাজা শ্রীগুপ্তকে গুপ্ত রাজবংশের প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে। ইজিংয়ের রচনা থেকে আ ...

                                               

সমুদ্রগুপ্ত

সমুদ্রগুপ্ত ছিলেন গুপ্তসম্রাট প্রথম চন্দ্রগুপ্তের পুত্র, উত্তরাধিকারী এবং গুপ্ত সাম্রাজ্যের শ্রেষ্ঠ রাজা। শুধু গুপ্ত বংশেরই নন, তিনি ছিলেন ভারতীয় ইতিহাসের অন্যতম শ্রেষ্ঠ সামরিক শাসক। সম্ভবত তিনি পিতার প্রথম সন্তান ছিলেন না, কিন্তু শৌর্য ও বীর্যে ...

                                               

ধ্রুবস্বামিণী

১৯২৩ খ্রিষ্টাব্দে সিলভিয়ান লেভি রামচন্দ্র ও গুণচন্দ্র নামক দুই জৈন লেখক দ্বারা রচিত নাট্যদর্পণ নামক একটি সংস্কৃত গ্রন্থ থেকে বিশাখদত্ত রচিত দেবীচন্দ্রগুপ্ত নামক একটি সংস্কৃত নাটকের ছয়টি শ্লোক প্রকাশ করেন। এই বছরই একাদশ শতাব্দীর মালবের রাজা ভোজ ...

                                               

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক অনুমোদিত কলেজগুলির তালিকা

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী কলকাতা শহরে অবস্থিত। এটি দক্ষিণ এশিয়ার প্রাচীনতম ও সর্বাধিক খ্যাতিসম্পন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলির অন্যতম। একাধিক কলেজ ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ১৮৫৭ সালে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদনপ্রাপ্ ...

                                               

খেলাইচণ্ডী

পুরুলিয়া পৌরসভার ১৬ নং ওয়ার্ডে খেলাইচণ্ডীর স্থানে একটি অনুচ্চ কালো পাথরের ওপর ত্রয়োদশ শতাব্দীতে নির্মিত প্রথম জৈন তীর্থঙ্কর আদিনাথের মূর্তি রয়েছে, যা স্থানীয়দের নিকট চণ্ডী রূপে পূজিত হন। ৫৬ সেন্টিমিটার x ৩৮ সেন্টিমিটার মাপের পঞ্চরথ ও দ্বিতীর ...

                                               

গড় পঞ্চকোট

গড় পঞ্চকোট ভারতের পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়া জেলায় পঞ্চকোট পাহাড়ের কোলে অবস্থিত একটি প্রত্নস্থল। এই স্থানটি ঐ অঞ্চল শাসনকারী শিখর রাজবংশের রাজধানী ছিল।

                                               

চন্ডেশ্বর

চন্ডেশ্বর ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পুরুলিয়া জেলার অন্তর্গত একটি প্রত্নস্থল। এই স্থানটি পুরুলিয়া-বাঁকুড়া সড়কের ওপর অবস্থিত লধুড়কা গ্রামের অন্তর্গত। এখানে পূর্বে বেশ কয়েকটি পুরাকীর্তি থাকলেও সেগুলি অপসারিত বা অপহৃত হয়েছে। জনৈক অনিল কুমার চৌ ...

                                               

তেলকুপী

তেলকুপী পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়া জেলার একটি জলমগ্ন প্রত্নস্থল যেটি ১৯৫৭ সালে ওই জেলার পাঞ্চেতের কাছে দামোদর নদীর উপর দামোদর ভ্যালি কর্পোরেশন দ্বারা বাঁধ নির্মাণের দরুন জলমগ্ন হয়ে যায়। তেলকুপী গ্রামে প্রচুর মন্দির ছিল, যেগুলোর অধিকাংশই ১৯৫৯ সালের ...

                                               

দেউলঘাটা

দেউলঘাটা বা বোড়াম পুরুলিয়া থেকে ৩৪ কিলোমিটার দুরে অবস্থিত আড়ষা থানার অন্তর্গত একটি প্রত্নস্থল| এককালে এখানে অনেক দেউল এবং অজস্র মূর্তি ছিল| এখন মাত্র দুটি ইঁটের দেউল মন্দির দাঁড়িয়ে আছে| এখানকার একটি বৃহৎ দেউল ২০০২ সালে ভেঙ্গে পড়ে| বেশ কয়েক ...

                                               

ধাধকি

১৮৭২-১৮৭৩ সালে জে. ডি. বেগলার ধাধকি গ্রামের কাছে ধাধকি টাঁড় নামক স্থানে ১২০ বর্গফুট ব্যাপী বেষ্টিত স্থানের মধ্যে একটি সুবিশাল পুবমুখী মন্দির দেখতে পান। এই মন্দিরে মহামন্ডপ সহ গর্ভগৃহ ছিল। মহামন্ডপে কিছু পাথরের জাফরি সংলগ্ন করা জানালা ছিল| এই মন্ ...

                                               

পাকবিড়রা

পাকবিড়রা ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পুরুলিয়া জেলার পুরুলিয়া শহর থেকে চল্লিশ কিলোমিটার দূরে পুঞ্চা থানার অন্তর্গত পুঞ্চা সমষ্টি উন্নয়ন ব্লকের প্রত্নস্থল। পাকবিড়রার পুরাক্ষেত্রের প্রাচীনত্ব সম্বন্ধে সঠিক সিদ্ধান্তে এখনো উপনীত হওয়া না গেলেও অনু ...

                                               

বাউরিডি

বাউরিডি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পুরুলিয়া জেলার অন্তর্গত একটি প্রত্নস্থল। এই স্থানটি পুরুলিয়া-বাঁকুড়া সড়কের ওপর অবস্থিত লধুড়কা গ্রাম থেকে চার কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

                                               

বান্দা, পুরুলিয়া

এই স্থানে একটি ১৪ফুট X ১৪ ফুট X ৭২ ফুট আয়তনের বর্গক্ষেত্রাকার রেখদেউল বর্তমান। দেউলের নিম্নতলের চত্বর আনুমানিক দেড়শ ফুট চওড়া ও আড়াইশো ফুট লম্বা। চত্বরের পূর্ব দিকে পাথর দিয়ে বাঁধানো সিঁড়ি ও উত্তরদিকে পাথরের স্তম্ভ হেলানো অবস্থায় বর্তমান। দ ...

                                               

বারোমাস্যা, পুরুলিয়া

বারোমাস্যা ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পুরুলিয়া জেলার পুঞ্চা থানার অন্তর্গত মানবাজার ১ সমষ্টি উন্নয়ন ব্লকের একটি প্রত্নস্থল। এই স্থানতি পুরুলিয়া শহর থেকে চল্লিশ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত পাকবিড়রা প্রত্নস্থল থেকে তিন কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। বারোমাস ...

                                               

সুইসা

সুইসা ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের পুরুলিয়া জেলার বাঘমুন্ডি থানার অন্তর্গত একটি প্রত্নস্থল। ১৯৫৭ খ্রিষ্টাব্দে রাজ্য সরকারের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগ এই স্থানের প্রত্নসামগ্রীগুলিকে সরক্ষণ করে একটি সগ্রহশালা নির্মাণ করে।

                                               

ডিহর

ডিহর পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলার বিষ্ণুপুর মহকুমার অন্তঃপাতী একটি শহর। এই শহর বিষ্ণুপুর শহর থেকে ৮ কিলোমিটার উত্তরে ধারাপাট গ্রামের নিকট অবস্থিত।

                                               

ধারাপাট

বাঁকুড়া ভূখণ্ডটি প্রাচীন কালে জৈনধর্মের দ্বারা ব্যাপকভাবে প্রভাবিত হয়েছিল। আজও এই জেলার একাধিক স্থানে জৈন ধ্বংসাবশেষ দেখতে পাওয়া যায়। ধারাপাট, সোনাতাপাল, বহুলাড়া, হাড়মাসড়া ও পরেশনাথ অম্বিকানগরের কাছে গ্রামের বহুকাল পরিত্যক্ত জৈন মন্দিরগুলি ...

                                               

বহুলাড়া

বহুলাড়া পশ্চিমবঙ্গের বাঁকুড়া জেলার ওন্দা-১ গ্রাম পঞ্চায়েতের একটি সেন্সাস গ্রাম। এটি ওন্দা থেকে ৫ কিলোমিটার এবং বিষ্ণুপুর থেকে ২৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত।

                                               

সোনাতাপাল

সোনাতাপাহল ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাঁকুড়া জেলার অন্তর্গত একটি স্থান। এটি বাঁকুড়া শহরের কাছে একতেশ্বর থেকে ৩.২ কিলোমিটার উত্তর-পূর্বে দ্বারকেশ্বর নদের তীরে অবস্থিত। বাঁকুড়া জেলা ছিল জৈনধর্মের একটি গুরুত্বপূর্ণ কেন্দ্র। এই জেলায় জৈনদের একাধি ...

                                               

হদল নারায়ণপুর

হদল এবং নারায়ণপুর ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাঁকুড়া জেলার পাত্রসায়র থানায় পাশাপাশি অবস্থিত দুটি গ্রাম| এই গ্রাম দুটি আলাদা মৌজায় অবস্থিত হলেও, পাশাপাশি থাকার জন্য তারা এই যৌথ নামেই পরিচিত|